Wednesday, December 21st, 2016
‘চেয়ার নয়’ দায়িত্ব পালনের প্রতিজ্ঞা
December 21st, 2016 at 6:32 pm
‘চেয়ার নয়’ দায়িত্ব পালনের প্রতিজ্ঞা

নাহিদ ন্যাস, ঢাকা:

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতে নির্বাচনী হাওয়া বইতে শুরু করেছে। দিন যত যাচ্ছে নির্বাচনের সময়টাও তত ঘনিয়ে আসছে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর বাংলাদেশ পরিচালক সমিতির নির্বাচন। আবার ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন। দুই নির্বাচনকে ঘিরে বিএফডিসিতে চলছে এখন উৎসবের আমেজ। সেই সাথে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে সকল প্রার্থীরাও। আর তাই দুই নির্বাচনের প্রার্থীদের প্রস্তুতি, ভাবনা তুলে ধরা হলো নিউজনেক্সটবিডি ডটকম’র ধারাবাহিক প্রতিবেদনে।

ফেব্রুয়ারির শুরুতে শেষ হবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির বর্তমান কমিটির মেয়াদ ২০১৫-২০১৬। এর পরের নির্বাচনে অংশ নিবে দুটি প্যানেল। এক প্যানেলে খল নায়ক মিশা সওদাগর ও চিত্রনায়ক জায়েদ খান অন্যদিকে ওমর সানি ও নায়ক ফেরদৌস। ইতোমধ্যে দুটি প্যানেলের অংশগ্রহণকারীরা নিজেদের গুছিয়ে নিচ্ছে খুব ভালো ভাবে।

ধারাবাহিক প্রতিবেদনের প্রথম পর্বে কথা বলেছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী অভিনেতা জায়েদ খান।

নীতিগত দিক থেকে সবাই এক! আসলে নীতিটা কি?

আমরা নীতিগত দিক থেকে সবাই এক। আমি আর মিসা ভাই দুজন মিলে এ স্লোগানটা ঠিক করেছি। আমাদের নীতির মধ্যে আছে- দুস্থ কথাটি উঠিয়ে দিয়ে অসহায় যেসব শিল্পী আছে আমরা তাদের পাশে দাঁড়াতে চাই, সিনেমার শিল্পীদের সম্মানটা বাড়াতে চাই, যারা সিনিয়র আছেন তারা অনেকেই সমিতিতে আসা ভুলেই গেছে তাদের একত্র করতে চাই। যার কারণেই আমরা গুনী ব্যক্তিদের নিয়েই প্যানেল ঘোষণা করেছি।

শিল্পীদের সিডিউল, সঠিক সময়ে শুটিং স্পটে আসা এ বিষয়ে কি চিন্তা করছেন?

এ বিষয়গুলো নিয়েও আমরা কথা বলছি। এটাও আমাদের নীতিতে আছে। শুধু নির্বাচনের জন্য নয় একজন শিল্পী হিসেবে আমিও এটা অনেক গুরুত্ব দেই। অনেকদিন যাবৎ আমাদের সমিতিতে কোন বিচারিক কার্জকলাপ চোখে পড়েনি। আগে যেমন শুনতাম অমুক শিল্পী-পরিচালককে শাস্তির আওতায় আনা হয়েছে কিন্তু এখন আর তা শুনা হয়না। কোন পরিচালক, প্রডিউসার, শিল্পী কেউ যেন ক্ষতিগ্রস্থ না হয় আমরা এ বিষয়ে সতর্ক থাকবো।

যৌথ প্রযোজনার ছবিগুলো সঠিক নিয়ম মেনে করা হচ্ছে কি না বা শিল্পীরা কিভাবে আসছে-যাচ্ছে তা নিয়ে কি কোন ভাবানা আছে?

নিয়ম না মেনে ভিজিট ভিসায় বাহিরের শিল্পীদের নিয়ে এসে কাজ করানো হচ্ছে। একইসাথে যৌথ প্রযোজনার নিয়ম নীতি ঠিকভাবে না মেনেই চলচ্চিত্র বানানো হচ্ছে, এগুলোও আমাদের নীতির মধ্যে আছে।

যদি নির্বাচিত হন প্রথম উদ্যোগ কি থাকবে?

নির্বাচিত হলে প্রথমেই সভাপতি-সেক্রেটারি কথা বলে সব শিল্পীদের নিয়ে একটি সাধারণ সভার আয়োজন করা হবে। সেখানে সবার কথা শুনবো। সে অনুযায়ী কাজ করবো। নির্বাচিত হয়ে শুধু চেয়ার নিয়ে বসে থাকলেই হবেনা এটার যে দায়িত্ব তা পালন করতে হবে।

মান্না ভাইয়ের পরে আমরাই প্রথম উদ্যোগ নিয়েছি সকল সিনিয়রদের আমরা আমাদের কমিটির উপদেষ্টা হিসেবে রাখবো। আমাদের গঠনতন্ত্রেও আছে ১০ সদস্য বিশিষ্ট একটি উপদেষ্টা কমিটি করার। এতে নায়ক রাজ রাজ্জাক, সোহেল রানা, ফারুক, আলমগীর, ইলিয়াস কাঞ্চন, ডিপজল ভাই এমন সবাইকে নিয়ে ১০ সদস্যের একটি উপদেষ্টা কমিটি করবো। তাদের পরামর্শ ও নির্দেশ শুনবো। কারণ তারাইতো আমাদের ‘আইডল’। ওনাদের অভিজ্ঞতা আমাদের চেষ্টা সব মিলিয়ে ভালো কিছু করা।

এফডিসির সৌন্দর্যবর্ধনে কোন কাজ করার ইচ্ছে আছে কি?

কেন নয়। যদিও এটা এফডিসি কর্তপক্ষের কাজ তারপরও আমরা এটা নিয়ে কাজ করবো, তথ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিব। আমরা সব শিল্পীরা একত্র হয়ে এফডিসির সৌন্দর্য বাড়াতে সরকারের কাছে দাবি জানাবো যেন এর সর্বোচ্চ সহায়তা পাওয়া যায়।

বিএফডিসি বলতে যা বুঝায়, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন। আগে এখানে চলচ্চিত্রের শুটিং হতে দেখা যেত, এখন আর তা খুববেশি চোখে পড়েনা। শুধুমাত্র ফ্লোরগুলোতে বিভিন্ন নাটক, বিজ্ঞাপন বা চ্যানেলের শুটিং। এ নিয়ে কোন ভাবনা আছে কি?

অবশ্যই আছে। এখানে চলচ্চিত্রের শুটিং না হওয়ার কারণ হলো ফ্লোরগুলোর ভাড়া দিগুন করা হয়েছে। আমরা এ ধরনের সব বিষয় নিয়েই কাজ করবো। আশাকরি এবার এফডিসিতে চলচ্চিত্র সবার আগে প্রাধান্য পাবে।

সম্পাদনা: ইয়াসিন


সর্বশেষ

আরও খবর

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা


ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ৫০ বছর

ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ৫০ বছর


কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরের জামিন মঞ্জুর

কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরের জামিন মঞ্জুর


একদিনেই সড়কে ঝড়ল ১৯ প্রাণ

একদিনেই সড়কে ঝড়ল ১৯ প্রাণ


শাহবাগে মশাল মিছিলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ, আটক ৩

শাহবাগে মশাল মিছিলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ, আটক ৩


করোনায় ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩২৭

করোনায় ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩২৭


নামাজ পড়ানোর সময় সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু

নামাজ পড়ানোর সময় সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু


ভাষার বৈচিত্র্য ধরে রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ভাষার বৈচিত্র্য ধরে রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


করোনায় আরও জনের ১৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯১

করোনায় আরও জনের ১৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯১


৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে কেকেআরে সাকিব

৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে কেকেআরে সাকিব