Saturday, July 9th, 2016
জঙ্গি টার্গেটে দক্ষিণাঞ্চল, সর্বোচ্চ সতর্কতা
July 9th, 2016 at 4:17 pm
জঙ্গি টার্গেটে দক্ষিণাঞ্চল, সর্বোচ্চ সতর্কতা

ডেস্ক: জঙ্গিবাদী সন্ত্রাসীদের টার্গেটে রয়েছেন দক্ষিণাঞ্চলের ১০ জেলার সংখ্যালঘুরা। নিষিদ্ধ সংগঠন হিজযুত তাহরিরের ফাইজুল্লাহ ফাহিম (১৯) গত ১৮ জুন ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হওয়ার আগে পুলিশকে এমনটাই জানিয়েছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায় দেশের একমাত্র দ্বীপ জেলা ভোলা ও সাগরপারের জেলা বরগুনায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপাসনালয়গুলোতে হুমকী পাঠানো হচ্ছে। এ ব্যাপারে সর্বোচ্চ সতর্ক আছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

ভোলা সদরের বাপ্তা ইউনিয়নের মহাপ্রভুর মন্দিরে চিঠি পাঠিয়ে হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মন্দির কমিটির সদস্য নীহার কুমার মজুমদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে  সাংবাদিকদের বলেন, ‘গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মন্দিরের প্রণামী বাক্স খোলার পর একটি হাতে লেখা চিঠি পাওয়া যায়। এতে লেখা আছে, সাবধান থেকে লাভ নেই। আপনাদের জবাই করে হত্যা করা হবে। এ মন্দিরে পূজা-অর্চনার কাজ করেন পুরোহিত জগদানন্দ ব্রহ্মচারী। এই ঘটনার পর তিনি মহা আতঙ্কে আছেন।

160702104026_bangladesh_640x360_ap_nocredit

ভোলা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর খায়রুল কবির মন্দিরে পুলিশ পাঠিয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান সাংবাদিকদের। এছাড়া ভোলার আরো বেশ কিছু মন্দিরে হাতে লেখা চিঠি পাঠিয়ে প্রায় একই কায়দায় হুমকী দেয়ার অভিযোগ পাওয়ার গেছে। এমন একটি চিঠিতে লেখা রয়েছে, ‘৭৮৬, আল্লাহু আকবার। সাবধান থেকে কি করবি? প্রাণে বাঁচতে পারবি না তোরাও। তোরাও মরবি। জবাই করবো জবাই। থাকবো মোরা ইসলাম।’এতে আরো লেখা আছে, ‘স্ট্রাইক দ্য আয়রন হোয়াইল ইট ইজ হট (strike the irone while it is hot), মৃত্যু – আলহামদুলিল্লাহ’। এমন চিঠি পাওয়ার পর অনেক মন্দিরের কর্মকাণ্ড বন্ধ রাখা হয়েছে বলেও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খবর এসেছে।

শনিবার দুপুরে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ভোলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান নিউজনেক্সটবিডি ডটকম’কে বলেন, ‘এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। পাঁচ দিন আগে একটি মন্দিরে চিঠি এসেছিলো, ওই চিঠিতে সুনির্দিষ্টভাবে কাউকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়নি। ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতা বন্ধেরও কোনো কথা বলা হয়নি।’

এদিকে বরগুনা পৌর শহরের কড়ইতলা কালিবাড়ি এলাকায় রাধা গোবিন্দ মন্দিরে চিঠি দিয়ে হত্যার হুমকী দিয়েছে ‘পুরোহিত হত্যা সংগঠন’নামের এক সংগঠন। শনিবার সকালে মন্দিরের ভিতরে চিঠিটি পরে থাকতে দেখেন পুরোহিত রাম প্রসাদ চক্রবর্তী (সঞ্জয়)। বিষয়টি চাউর হলে পুরোহিতকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে হত্যার হুমকিও রয়েছে এ চিঠিতে। এতে বলা হয়েছে, ‘পুরোহিত তোর মৃত্যু আমাদের হাতে। তোর মাথা নিয়ে ফালাবো এই আমাদের ইচ্ছা। আমরা এখন কিলিং মিশনে আছি বরগুনা জেলায়। কাউকে কিছু বললে ২৪ ঘন্টার মধ্যে তোর মৃত্যু হবে।’

Banner-7

চিঠি পাওয়ার পর প্রথমে হুমকিদাতাদের ভয়ে বিষয়টি চেপে যেতে চান পুরোহিত। পরবর্তীতে স্থানীয়দের পরামর্শে তিনি এ ঘটনা বরগুনা সদর থানা ও পুলিশ সুপার বিজয় বসাককে অবহিত করেন। পরে একটি সাধারণ ডায়েরিও করা হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানান ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) রিয়াজ হোসেন।

পুরোহিত রাম প্রসাদ চক্রবর্তী সাংবাদিকদের বলেন, ‘চিঠি পাওয়ার পর থেকে আমি এবং আমার পরিবার পরিজন নিয়ে আতঙ্কে রয়েছি।’দুই ছেলে ও স্ত্রীকে তিনি মন্দিরের পাশেই থাকেন। প্রতিটি মুহূর্তে তাদের আতঙ্কের মধ্যে কাটছে। ঘটনা শুনে স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাড. ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু মন্দির পরিদর্শন করে আতঙ্কিতদের নির্ভয়ে থাকতে বলেছেন। তিনি বলেন, ‘প্রশাসন আমাদের সাথে আছে।’

এ বিষয়ে বরগুনার পুলিশ সুপার বিজয় বসাক বলেন, ‘ইতোমধ্যে আমি পুরোহিত ও মন্দির এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করেছি। বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।’

এর আগে শুক্রবার রাতে বরগুনার আমতলী থেকে ঢাকায় ফেরা এক সাংবাদিক তার ফেসবুক প্রকাশনায় বলেন, ‘আমাদের এলাকার উপজেলা এবং জেলা লেভেলের সমস্ত মন্দিরে চিঠি দিয়ে গেছে সেখানে যেনো পুজা দেয়া না হয়।’ এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পুলক চন্দ্র রায় বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। এমন কিছু শুনিও নাই। মনে হয় আপনার কাছে সঠিক তথ্য নেই।’

solakia 2

এ ব্যাপারে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে পুলিশ বিজয় বসাক নিউজনেক্সটবিডি ডটকম’কে বলেন, ‘এমন খবর আমিও শুনেছি। তবে অনেক মন্দিরে নয়। কালি বাড়ি মন্দিরসহ দু’টি মন্দিরে চিঠি পাঠানো হয়েছে। সব জায়গাতেই পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে।’

উল্লেখ্য, মাদারীপুর সরকারি নাজিমউদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের গণিত বিভাগের প্রভাষক রিপন চক্রবর্তীর ওপর হামলার ঘটনায় আটক ফাহিমের মৃত্যু পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে মাদারীপুর পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ সরোয়ার হোসেন জানিয়েছিলেন, জঙ্গিদের পরবর্তী টার্গেড বরিশালসহ দক্ষিণের ১০ জেলা।

গত বছরের আগস্টে ‘আনসার বিডি’নামের একটি ফেসবুক পেইজে প্রকাশ করা এক প্রকাশনায় বরিশালের ছয়  ব্যক্তিকে হুমকী দেয়া হয়েছিলো। হুমকীদাতারা সেখানে বলেছিলো, ‘মাশাআল্লা, আমরা সফলভাবে বরিশালে কার্যক্রম শুরু করেছি। আমরা এ বিভাগে সফলভাবে কাজ শুরু করেছি। এখানে ইসলামবিরোধী তিনজন কবি এবং তিনজন ব্লগার সংগঠক আছে। তারা ইসলামের শত্রু। আমাদের যা লক্ষ্য তা আমাদের করা উচিত।’

ছবি-  অমিল মার্চেন্টের ফেসবুক থেকে নেয়া

ছবি- অমিল মার্চেন্টের ফেসবুক থেকে নেয়া

 

ওই সময়ে হুমকিপ্রাপ্তরা ছিলেন কবি হেনরী স্বপন, ভাস্কর্য শিল্পী চারু তুহিন, কবি সৈয়দ মেহেদী হাসান, গনজাগরণ মঞ্চ বরিশালের সংগঠক ও সাংবাদিক নেতা নজরুল বিশ্বাস, কবি তুহিন দাস ও ছাত্র ইউনিয়ন বরিশাল জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক প্রীতম চৌধুরী। এ ঘটনায় বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানায় পৃথক ছয়টি জিডি হয়েছিলো।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এসজি/এসকে


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত


মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী

মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী


আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার

আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার


পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি

পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি


বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে

বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে


অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ

অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ


মাইন্ড এইড হাসপাতালে তালা, মালিক গ্রেপ্তার

মাইন্ড এইড হাসপাতালে তালা, মালিক গ্রেপ্তার


বিরোধী নেতাদের কটাক্ষ করতেন না বঙ্গবন্ধু: রাষ্ট্রপতি

বিরোধী নেতাদের কটাক্ষ করতেন না বঙ্গবন্ধু: রাষ্ট্রপতি


মসজিদ-মন্দিরে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করলো সরকার

মসজিদ-মন্দিরে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করলো সরকার


করোনায় একদিনে আরও ১৮ প্রাণহানি

করোনায় একদিনে আরও ১৮ প্রাণহানি