Tuesday, September 6th, 2016
জন্ম ও মৃত্যুর তথ্য সংরক্ষণ করবে ‘হু’
September 6th, 2016 at 8:26 pm
জন্ম ও মৃত্যুর তথ্য সংরক্ষণ করবে ‘হু’

ঢাকা: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) -এর দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার আঞ্চলিক কার্যালয়ের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. নিনা রাইনা সকল সদস্য দেশগুলোকে নবজাতক ও মাতৃমৃত্যুর হার কমাতে জন্ম ও মৃত্যুর তথ্য সংরক্ষণ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার কলম্বোতে হু এর দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ৬৯তম আঞ্চলিক অধিবেশনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মাতৃ ও নবজাতকের মৃত্যু হার কমাতে একটি সঠিক ও নির্ভুল জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন ব্যবস্থা অত্যন্ত জরুরি। এর মাধ্যমে যাতে পরবর্তিতে গবেষণার মাধ্যমে মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে গবেষণা করা যায়।

ডা. নিনা রাইনা বলেন, বাল্যবিবাহ মাতৃমৃত্যুর অন্যতম কারণ। নিবন্ধনের ফলে যে কোনো কিশোরীর জন্ম তারিখ সম্পর্কে সহজেই জানা যাবে। যার ফলে সে ২০ বছরের আগে বিয়ে এবং গর্ভধারণ করতে পারবে না।

মা ও পরিবারের অবর্ণনীয় দুর্ভোগের কারণে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় প্রতিদিন প্রায় ৭ হাজার ৪০০ নবজাতকের মৃত্যু হয়। এই মৃত্যুর দুই-তৃতীয়াংশ ব্যয় সংকোচন ব্যবস্থা কার্যকরের মাধ্যমে রোধ করা যায় উল্লেখ করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু এ ব্যাপারে সরকার ও এর অংশীদারদের নবজাতকের মৃত্যুরোধে এর ওপর নজর দেয়ার আহ্বান জানানো হয়।

হু এর তথ্য মতে, ২০১০ সালে বিশ্বে পাঁচ বছরের কম আনুমানিক ৭৬ লাখ হাজার শিশুর মৃত্যু হয়েছে, যার মধ্যে ২ দশমিক ৭ শতাংশ মৃত্যুর কারণ চিকিৎসাবিদ্যায় প্রত্যায়িত।

ডা. নিনা এ সময় স্বাস্থ্যসেবা উন্নয়নে চিকিৎসা ক্ষেত্রে চিকিৎসক, সেবিকা বিশেষভাবে ধাত্রীসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্যকর্মী সংখ্যা বৃদ্ধির ওপর জোর দেন, যা এ অঞ্চলের অনেক কম।

শিশু মৃত্যুর হার কমিয়ে আনার ব্যাপারে বাংলাদেশে দৃষ্টান্তমূলক অগ্রগতি হয়েছে। ২০১০ সালে জাতিসংঘ বাংলাদেশকে মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোল (এমডিজি)-এর ৪ নং লক্ষ্য শিশু মৃত্যুর হার হ্রাস এবং ৫ নং লক্ষ্য মাতৃমৃত্যুর হার হ্রাসে দৃষ্টান্ত স্থাপনের স্বীকৃতি দিয়েছে।

বৃটিশ স্বাস্থ্য বিষয়ক সাময়িকী দ্য ল্যানসেটের এক প্রতিবেদনে বাংলাদেশকে ‘কম ব্যয়ে ভালো স্বাস্থ্য সেবা’র একটি উদাহরণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়।

প্রতিবেদন: দেলোয়ার মহিন, সম্পাদনা- জাহিদুল ইসলামৃ


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত


ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড


মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী

মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী


আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার

আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার


পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি

পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি


দুইদিনের বিক্ষোভের ডাক বিএনপির

দুইদিনের বিক্ষোভের ডাক বিএনপির


বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে

বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে


অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ

অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ


মাইন্ড এইড হাসপাতালে তালা, মালিক গ্রেপ্তার

মাইন্ড এইড হাসপাতালে তালা, মালিক গ্রেপ্তার


অবশেষে গ্রেফতার হলো এসআই আকবর

অবশেষে গ্রেফতার হলো এসআই আকবর