Wednesday, January 15th, 2020
জমে উঠেছে দুই সিটির নির্বাচনী প্রচারণা
January 15th, 2020 at 3:52 pm
এক কথায় পুরো ঢাকা নগরীতে এক ধরনের উৎসবের আমেজ যে রয়েছে, তা আর কাউকে বলে দিতে হয় না, চারদিকে তাকালেই বোঝা যায়
জমে উঠেছে দুই সিটির নির্বাচনী প্রচারণা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাঃ

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিন দুই সিটির নির্বাচন অনুষ্ঠানে সপ্তাহ দুয়েকের মতো সময় হাতে রয়েছে। পুরো রাজধানী ঢাকা যেন হয়ে উঠেছে প্রচারের নগরী। মেয়র আর কাউন্সিলর প্রার্থীদের পোস্টার-ব্যানারে ছেয়ে গেছে গোটা পথ-ঘাট; সর্বত্র মাথার ওপর  উড়ছে প্রার্থীদের পোস্টারের মালা।

নগরবাসীও এই প্রচারের মহড়াকে উৎসবের মতোই উপভোগ করছেন। প্রার্থীদের মিছিল কিংবা গাড়িবহর দেখলেই সাধারন জনতাও রাস্তার দুপাশে দাঁড়িয়ে হাত নেড়ে উচ্ছাস প্রকাশ করছেন তারা।  এক কথায় পুরো ঢাকা নগরীতে এক ধরনের উৎসবের আমেজ যে রয়েছে, তা আর কাউকে বলে দিতে হয় না, চারদিকে তাকালেই বোঝা যায়।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় রাজধানীর শ্যামপুরের ধোলাইপাড় উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। নির্বাচনী আচরণবিধি যেন লঙ্ঘন না হয় এ বিষয়ে তিনি বলেন, নির্বাচনী আচরণবিধি যেন লঙ্ঘন না হয় সেদিকে আমরা ও আমাদের নির্বাচনী মনিটরিং কমিটি লক্ষ্য রাখছে। আমি যেখানে যাচ্ছি সেখানে নেতাকর্মীদের সুশৃঙ্খলভাবে কাজ করার নির্দেশ দিচ্ছি, যেন জনভোগান্তির সৃষ্টি না হয়। যেখানেই আমরা খবর পাচ্ছি, সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিচ্ছি। আমরা আরও সচেতনভাবে লক্ষ্য রাখবো জনগণের যেন কোনো ভোগান্তি না হয়।

রাজধানীর শ্যামপুরে নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যারিস্টার তাপস

ভোটের তারিখ পরিবর্তনের বিষয়ে প্রশ্ন করলে ব্যারিস্টার তাপস বলেন, আমি সত্যি অনেক দুঃখিত বিষয়টির জন্য। পঞ্জিকা অনুযায়ী হয়তো নির্বাচন কমিশনের ভুল হয়ে গেছে। তারপরেও আমরা তাদের (সনাতন ধর্মালম্বী) প্রতি সহানুভূতিশীল। যেহেতু নির্বাচনে তারিখ নির্ধারিত হয়ে গেছে তাই আমাদের গণসংযোগ চালিয়ে যেতে হবে। 

বিজয়ের বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করে তাপস বলেন, গত পাঁচদিন ধরে আমরা যে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছি তাতে জনগণের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। আমাদের ঢাকার উন্নয়নের দেওয়া পাঁচ দফা উন্নয়ন পরিকল্পনা জনগণ সাদরে গ্রহণ করেছে। আমরা বিশ্বাস করি আগামী ৩০ তারিখে বিপুল ভোটে নৌকার বিজয় হবে। দায়িত্ব পাওয়ার প্রথম দিন থেকেই আমরা কাজ শুরু করবো একটি উন্নত ঢাকা গড়তে।

বুধবার দিনব্যাপী শ্যামপুর ও কদমতলী থানায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ মনোনীত কাউন্সিলর প্রার্থীদের সঙ্গে নিয়ে ব্যারিস্টার তাপস নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন। এ সময় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়াসহ স্থানীয় দলের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

একই দিন বুধবার (১৫ জানুয়ারি) রাজধানীর উত্তর বাড্ডা রহমাতুল্লাহ গার্মেন্টসের সামনে থেকে প্রচার শুরু করেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরশনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে প্রচারণা সভায় তিনি অভিযোগ করেন, এতদিন বিএনপি প্রার্থীদের পোস্টার ছিড়ে ফেলা হতো। এখন মাইক কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। পোস্টার না লাগাতে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি প্রচারণায় হামলা করার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ দিয়ে অনেককে গ্রেফতারও করা হচ্ছে। নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, প্রচারের আর ১২ দিন বাকি আছে। এ সময়ে যেন সব প্রার্থীরা সমানভাবে প্রচার-প্রচারণা চালাতে পারেন ইসিকে সে ব্যবস্থা করতে হবে। 

রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় নির্বাচনী প্রচারণায় তাবিথ আউয়াল

প্রচারণায় তাবিথ আউয়াল বলেন, এ এলাকার জলবদ্ধতা ও সরু এলাকায় যানজট নিরসনে এবং নারী শিশুসহ সবার নিরাপত্তায় কাজ করবো। খোলা জায়গায় হাটার ব্যবস্থা করা হবে। তিনি বলেন, বয়স্ক মানুষ, কর্মজীবী নারী-পুরুষ যাতে রাতের বেলা চলাচল করতে পারে সেজন্য সড়কে আলো ও নিরাপত্তার ব্যবস্থা করবো। দিনের বেলায়ও মানুষের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে।

অন্যদিকে, বুধবার (১৫ জানুয়ারি) রাজধানীর ফার্মগেটে নির্বাচনী গণসংযোগ শুরু করেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে মেয়র পদপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম। শুরুতেই এক পথসভা করেন আতিকুল। এসময় তিনি বলেন, আমাদের চ্যালেঞ্জ আছে অনেক। কিন্তু আপনাদের সবাইকে নিয়ে এ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে সুন্দর একটি ঢাকা শহর গড়ে তুলবো। প্রথমেই আমরা ঢাকা শহরে যানজট মুক্ত করার জন্য দ্রুততার সঙ্গে উদ্যোগ নেব। বাস মালিকদের সঙ্গে বসে বাস রুট রেশনালাইজেশনের কাজ করতে চাই।

এদিন মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে আবারো জোর দেন আতিকুল। তিনি বলেন, আমরা মাদকের বিরুদ্ধে একটি সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলবো। নৌকা প্রতীক মানে উন্নয়নের প্রতীক। উন্নয়ন চলছে, চলবে। আর এজন্য আসন্ন সিটি নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিতে হবে আপনাদের। ঢাকা শহরের জলাবদ্ধতা আমাদের আরেকটি চ্যালেঞ্জ। জলবদ্ধতা নিরসনে আমরা ইতোমধ্যে পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। আশা করছি পর্যায়ক্রমে ঢাকা শহরের জলাবদ্ধতা নিরসন করতে পারবো ইনশাআল্লাহ্‌।

অপরদিকে, ষষ্ঠদিনের নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন। বুধবার দুপুরে ধানমন্ডি থেকে তিনি প্রচারণা শুরু করেছেন। কলাবাগান, হাজারীবাগ এলাকায় আজ গণসংযোগ চালাবেন। ইশরাকের প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক হাবিবুল ইসলাম হাবিব, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশাররফ হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, যুবদল নেতা মোরতাজুল করিম বাদরু, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাসসহ বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

এফ.এ.


সর্বশেষ

আরও খবর

রিজভী-দুলুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

রিজভী-দুলুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি


অপারেশনের পর সুস্থ আছেন খালেদা জিয়া: ফখরুল

অপারেশনের পর সুস্থ আছেন খালেদা জিয়া: ফখরুল


বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্যে জড়িতদের খোঁজার নির্দেশনা চেয়ে রিট

বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্যে জড়িতদের খোঁজার নির্দেশনা চেয়ে রিট


সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস: প্রধান বিচারপতির উদ্বেগ, আশ্বাস আইনমন্ত্রীর

সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস: প্রধান বিচারপতির উদ্বেগ, আশ্বাস আইনমন্ত্রীর


বিএফইউজের নতুন সভাপতি ফারুক, মহাসচিব দীপ

বিএফইউজের নতুন সভাপতি ফারুক, মহাসচিব দীপ


কালীপূজায় হবে না দীপাবলি!

কালীপূজায় হবে না দীপাবলি!


রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ঠেকাতেই মুহিবুল্লাহকে হত্যা: পুলিশ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ঠেকাতেই মুহিবুল্লাহকে হত্যা: পুলিশ


সহিংসতায় নিহত ৬ রোহিঙ্গা, ইউএন বলছে ৭

সহিংসতায় নিহত ৬ রোহিঙ্গা, ইউএন বলছে ৭


ইকবালকে জেরা করছে পুলিশ, সারাদেশে গ্রেফতার ৫৮৪

ইকবালকে জেরা করছে পুলিশ, সারাদেশে গ্রেফতার ৫৮৪


সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস, সংবিধান এবং আশাজাগানিয়া মুরাদ হাসান

সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস, সংবিধান এবং আশাজাগানিয়া মুরাদ হাসান