Sunday, July 17th, 2016
জামালপুরের ৮ ‘রাজাকারের’ রায় কাল
July 17th, 2016 at 11:20 am
জামালপুরের ৮ ‘রাজাকারের’ রায় কাল

ঢাকা: একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় জামালপুরের সৈয়দ আশরাফ হোসেনসহ ৮ ‘রাজাকারের’ রায়ের জন্য সোমবার দিন ধার্য করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। অভিযুক্ত এই আসামিদের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের সময় জামালপুরে ১০ হাজার মানুষ হত্যার অভিযোগ রয়েছে।

রোববার ট্রাইব্যুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল রায়ের এই দিন ধার্য করেন।

এই মামলায় ৮ আসামির মধ্যে অ্যাডভোকেট শামসুল আলম ওরফে বদর ভাই ও এস এম ইউসুফ আলী গ্রেফতার হয়ে কারাগারে আছেন। পলাতক বাকি ৬ আসামিরা হলেন- মুহাম্মদ আশরাফ হোসাইন, অধ্যাপক শরীফ আহমেদ ওরফে শরীফ হোসেন, মোহাম্মদ আবদুল মান্নান, মোহাম্মদ আবদুল বারী, মো. হারুন ও মোহাম্মদ আবুল হাসেম।। এদিকে রায়ের দিন ধার্য করার সময় ট্রাইব্যুনালে উপস্থিত ছিলেন প্রসিকিউটর তাপস কান্তি বল।

গত ১৯ জুন উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক (আর্গুমেন্ট) উপস্থাপনের মধ্য দিয়ে মামলাটির বিচারিক প্রক্রিয়া শেষ হওয়ায় রায় ঘোষণা অপেক্ষমান (সিএভি) রাখেন ট্রাইব্যুনাল।

গত ১৫ জুন রাষ্ট্রপক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ও তাপস কান্তি বল। ১৬ ও ১৯ জুন আসামিপক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন গ্রেফতারকৃত দু’জনের পক্ষে সৈয়দ মিজানুর রহমান, ব্যারিস্টার এহসান এ সিদ্দিকী ও গাজী এম এইচ তামিম এবং পলাতক ছয়জনের পক্ষে রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবী আব্দুস সোবহান তরফদার।

গত বছরের ১৮ নভেম্বর আট আসামির বিরুদ্ধে প্রসিকিউশনের সূচনা বক্তব্য (ওপেনিং স্টেটমেন্ট) উপস্থাপন শেষে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। গত ১৪ জুন পর্যন্ত মোট ২৫ জন সাক্ষী ৮ আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দেন।

গত বছরের ২৬ অক্টোবর আট আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ (চার্জ) গঠন করেন ট্রাইব্যুনাল। তাদের বিরুদ্ধে হত্যা, গণহত্যা, আটক, অপহরণ, নির্যাতন, লুটপাট ও মরদেহ গুমের পাঁচটি মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ আনা হয়।

এর আগে ৩০ সেপ্টেম্বর ও ০৭ অক্টোবর আট আসামির বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষে অভিযোগ গঠনের পক্ষে শুনানি করেন প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ ও তাপস কান্তি বল। অন্যদিকে অভিযোগ গঠনের বিপক্ষে শুনানি করেন গ্রেফতার হওয়া অ্যাডভোকেট শামসুল আলম ওরফে বদর ভাই ও এস এম ইউসুফ আলীর পক্ষে এ ওয়াই এম মশিহুজ্জামান, পলাতক মো. আশরাফ হোসেন, অধ্যাপক শরীফ আহমেদ ওরফে শরীফ হোসেন ও মো. আব্দুল হান্নানের পক্ষে আব্দুস সোবহান তরফদার এবং মো. আব্দুল বারী, মো. হারুন ও মো. আবুল কাসেমের পক্ষে এম এইচ তামিম ও কুতুবউদ্দিন আহমেদ।

গত বছরের ২৯ এপ্রিল ওই আট আসামির বিরুদ্ধে প্রসিকউশনের দাখিল করা আনুষ্ঠানিক অভিযোগ (ফরমাল চার্জ) আমলে নেন ট্রাইব্যুনাল।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এফএইচ/ওয়াইএ


সর্বশেষ

আরও খবর

বিজিবি মোতায়েনের পরও ঘাটে কোনভাবেই বন্ধ হচ্ছে না যাত্রী পারাপার

বিজিবি মোতায়েনের পরও ঘাটে কোনভাবেই বন্ধ হচ্ছে না যাত্রী পারাপার


ঈদের আগে দূরপাল্লার গণপরিবহন চালুর দাবি

ঈদের আগে দূরপাল্লার গণপরিবহন চালুর দাবি


যাত্রীবাহী ফেরি বন্ধ, শিমুলিয়া ঘাট থেকে হাজারো মানুষকে ফিরিয়ে দিচ্ছে পুলিশ

যাত্রীবাহী ফেরি বন্ধ, শিমুলিয়া ঘাট থেকে হাজারো মানুষকে ফিরিয়ে দিচ্ছে পুলিশ


শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি


দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির

দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির


খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী

খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী


যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি

১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি


২১ দিন পর বৃহস্পতিবার থেকে সড়কে গণপরিবহন

২১ দিন পর বৃহস্পতিবার থেকে সড়কে গণপরিবহন


করোনায় আরও ৬০ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৪৫২

করোনায় আরও ৬০ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৪৫২