Sunday, September 29th, 2019
জামিন নাকচ জিকে শামীমের সাত দেহরক্ষীর
September 29th, 2019 at 7:19 pm
জামিন নাকচ জিকে শামীমের সাত দেহরক্ষীর

ঢাকাঃ টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, অস্ত্রবাজি এবং অর্থ পাচারের অভিযোগে গ্রেপ্তার জিকে শামীমের সাত দেহরক্ষীর জামিন আবেদন নাকচ করেছে আদালত। সাত দেহরক্ষী হলেন- মো. দেলোয়ার হোসেন, মো. মুরাদ হোসেন, মো.জাহিদুল ইসলাম, মো.শহিদুল ইসলাম, মো.কামাল হোসেন, মো. সামসাদ হোসেন ও মো. আমিনুল ইসলাম।

রোববার তাদের পক্ষে আইনজীবীগন ঢাকার সি.এম.এম আদালতে জামিন চেয়ে আবেদন করেন। ঢাকা মহানগর হাকিম আতিকুর রহমান শুনানী শেষে আসামিদের জামিন নাকচের এ আদেশ দেন।

আসামিদের পক্ষে তাদের আইনজীবী আবদুর রহমান হাওলাদার জামিন শুনানি করেন। শুনানিতে আইনজীবী বলেন, আসামিদের অস্ত্র বৈধ এবং নিজেদের নামে। তাদের নামে অস্ত্র লাইসেন্স করা। বৈধ অস্ত্র দিয়ে তারা জীবিকা নির্বাহ করেন, অবৈধ অস্ত্র দিয়ে নয়। এজন্য আসামিরা জামিন পাওয়ার হকদার। জামিন দিলে তারা পলাতক হবেন না।

অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে আদালতে সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা রাকিবুল হাসান আসামিদের জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আসামিদের জামিন নাকচ করেন।

গত ২১ সেপ্টেম্বর সাত আসামির চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। ওই দিন জি কে শামীমের অস্ত্র ও মাদকের দুটি মামলায় ৫ দিন করে ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসা,টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজির সুনির্দিষ্ট অভিযোগে গত ২০ সেপ্টেম্বর রাতে গুলশানের নিকেতনে নিজ কার্যালয় থেকে একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে জি কে শামীমসহ সাত দেহরক্ষীকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। এ সময় তার অফিসে অবৈধ অস্ত্র ও মাদক পাওয়া গেছে। এবং বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা ও এফডিআর জব্দ করা হয়। পরে তার বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক ও অর্থ পাচার আইনে তিনটি মামলা করা হয়।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: সবুজ


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ৪১, একদিনেই ২০ জনের মৃত্যু

করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ৪১, একদিনেই ২০ জনের মৃত্যু


সাবেক ছাত্রদল নেতা নীরু গ্রেফতার, জেলহাজতে প্রেরণ

সাবেক ছাত্রদল নেতা নীরু গ্রেফতার, জেলহাজতে প্রেরণ


দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতুর ৩.৩ কিলোমিটার

দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতুর ৩.৩ কিলোমিটার


লেমিনেটেড পোস্টার: কেউ কিছু বলছে না দেখেই আদালতের রুল

লেমিনেটেড পোস্টার: কেউ কিছু বলছে না দেখেই আদালতের রুল


১,২৭১ জন মুক্তিযোদ্ধার তথ্য চেয়েছে মন্ত্রণালয়

১,২৭১ জন মুক্তিযোদ্ধার তথ্য চেয়েছে মন্ত্রণালয়


গণতন্ত্র সূচকে আট ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশ

গণতন্ত্র সূচকে আট ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশ


কতদিনে পাওয়া যাবে ই-পাসপোর্ট?

কতদিনে পাওয়া যাবে ই-পাসপোর্ট?


“আধুনিক ই-পাসপোর্টের কারণে মানুষ আর ধোঁকায় পড়বে না”

“আধুনিক ই-পাসপোর্টের কারণে মানুষ আর ধোঁকায় পড়বে না”


পাঁচ উপনির্বাচন ও চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনের সিদ্ধান্ত আগামী সপ্তাহে

পাঁচ উপনির্বাচন ও চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনের সিদ্ধান্ত আগামী সপ্তাহে


বাকৃবিতে যৌন হয়রানির অভিযোগে চার ছাত্র বহিষ্কার

বাকৃবিতে যৌন হয়রানির অভিযোগে চার ছাত্র বহিষ্কার