Sunday, January 19th, 2020
জিয়ার জন্মদিনে দেশ রক্ষার শপথ ফখরুলের
January 19th, 2020 at 2:49 pm
নির্বাচন পরিচালনার ক্ষেত্রে বর্তমান নির্বাচন কমিশনকে পুরোপুরি ব্যর্থ এবং অযোগ্য বলেও দাবি করেন ফখরুল
জিয়ার জন্মদিনে দেশ রক্ষার শপথ ফখরুলের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাঃ

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, “আমরা শপথ নিয়েছি, যে কোনও ত্যাগের বিনিময়ে হলেও দেশকে রক্ষা করব এবং গণতন্ত্রকে মুক্ত করবো। খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে জিয়াউর রহমানের আর্দশ অনুযায়ী বহুদলীয় গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করবো।”

রোববার (১৯ জানুয়ারি) সকালে শেরেবাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৮৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তার সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

নির্বাচন পরিচালনার ক্ষেত্রে বর্তমান নির্বাচন কমিশনকে পুরোপুরি ব্যর্থ এবং অযোগ্য দাবি করে বিএনপি বলেন, “সিটি নির্বাচনের তারিখ তারা নির্ধারণ করেছিল হিন্দু সম্প্রদায়ের পূজোর দিনে। বড় সমস্যা হচ্ছে, নির্বাচনি কেন্দ্রগুলোতেই পূজা হয়। এতে বড় ধরনের সমস্যা হতে পারতো। কিন্তু এসব চিন্তা না করে তারা তারিখ নির্ধারণ করে। নির্বাচন কমিশনের অযোগ্যতার কারণেই এমন সমস্যার সৃষ্টি হয়।”

২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতা আসার পর থেকে গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে সংকুচিত করে ফেলছে বলে দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, “তারা রাজনৈতিক দলগুলোর স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে। একইভাবে গত জাতীয় নির্বাচন ৩০ তারিখের পরিবর্তে ২৯ তারিখে করে নিয়েছে। আজকে সিটি করপোরেশন নির্বাচনেও একটি দলের প্রার্থীরাই প্রাধান্য পাচ্ছে। অযোগ্য নির্বাচন কমিশন কোনও ব্যবস্থা নিতে সক্ষম নয়। কারণ, তাদের সেই যোগ্যতা নেই।”

ইভিএমে নির্বাচন মানে নির্বাচন ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দেয়ার অপকৌশল হিসেবে উল্লেখ করে ফখরুল বলেন, “ইভিএমের মাধ্যমে জনগণের রায় কখনও সামনে আসবে না। এর ব্যবহার হচ্ছে একটা ত্রুটিপূর্ণ ব্যবস্থা। বিশ্বের কোনও দেশেই এই ব্যবস্থাকে ত্রুটিহীন সিস্টেম বলেনি।”

ব্যালটের মাধ্যমে ভোট দেওয়াই জনগণের জন্য উপযুক্ত ব্যবস্থা উল্লেখ করে ফখরুল বলেন, “জনগণ ব্যালটে ভোট দিলে চুরি-ডাকাতি না হলে মোটামুটি একটা ফল পাওয়া যায়। কিন্তু ইভিএমে যথেষ্ট ত্রুটি আছে ভোটের ফলাফল পরিবর্তন করার।”

জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হয়েছিল বলে দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, তিনি সংবাদপত্রের স্বাধীনতা ফিরিয়ে দিয়েছেন এবং মুক্ত একটি সমাজ প্রতিষ্ঠার কাজ শুরু করেছিলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, “দুর্ভাগ্য যে যখন আমরা জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী পালন করছি, তখন তার যোগ্য উত্তরসূরী ও সহধর্মিণী খালেদা জিয়াকে আওয়ামী শাসক গোষ্ঠী অন্যায়ভাবে আটকে রেখেছে। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে বিদেশে নির্বাসিত করে রেখেছে। হাজার-হাজার নেতাকর্মীর নামে মিথ্যা মামলা দিয়েছে, গ্রেফতার করেছে, খুন ও গুম করেছে। দেশকে অগণতান্ত্রিক স্বৈরাচারী রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেছে।”


সর্বশেষ

আরও খবর

সাম্প্রদায়িক নৈরাজ্যে আক্রান্ত ২৩ জেলা

সাম্প্রদায়িক নৈরাজ্যে আক্রান্ত ২৩ জেলা


ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে ইভ্যালি কর্তৃপক্ষ

ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে ইভ্যালি কর্তৃপক্ষ


ময়মনসিংহে সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহে সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ জনের মৃত্যু


পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার করলো জাতীয় রাজস্ব বোর্ড

পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার করলো জাতীয় রাজস্ব বোর্ড


মিরপুরে খালে পড়ে নিখোঁজ ব্যক্তিকে ৬ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার

মিরপুরে খালে পড়ে নিখোঁজ ব্যক্তিকে ৬ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার


কুমিল্লার ঘটনায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: প্রধানমন্ত্রী

কুমিল্লার ঘটনায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: প্রধানমন্ত্রী


ফেসবুকে কিডনি বেচাকেনা, চক্রের ৫ সদস্য গ্রেপ্তার

ফেসবুকে কিডনি বেচাকেনা, চক্রের ৫ সদস্য গ্রেপ্তার


সেই ভুয়া অতিরিক্ত সচিবের বিরুদ্ধে মামলা করবেন মুসা বিন শমসের

সেই ভুয়া অতিরিক্ত সচিবের বিরুদ্ধে মামলা করবেন মুসা বিন শমসের


হাসপাতালে ভর্তি হলেন খালেদা জিয়া

হাসপাতালে ভর্তি হলেন খালেদা জিয়া


শান্তিতে নোবেল পেলেন দুই সাংবাদিক

শান্তিতে নোবেল পেলেন দুই সাংবাদিক