Thursday, July 7th, 2022
জীবিত থাকতেই নতুনের হাতে দায়িত্ব দিতে চান শেখ হাসিনা
October 23rd, 2016 at 5:10 pm
জীবিত থাকতেই নতুন নেতৃত্বের হাতে আওয়ামী লীগের দায়িত্ব তুলে দেয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দলের ২০তম জাতীয় সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে রোববার কাউন্সিল অধিবেশনের উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি এ প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
জীবিত থাকতেই নতুনের হাতে দায়িত্ব দিতে চান শেখ হাসিনা

ঢাকা: জীবিত থাকতেই নতুন নেতৃত্বের হাতে আওয়ামী লীগের দায়িত্ব তুলে দেয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দলের ২০তম জাতীয় সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে রোববার কাউন্সিল অধিবেশনের উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি এ প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, “৩৫ বছর ধরে আমি দায়িত্ব পালন করে আসছি। দলকে যে সময় দিয়েছি, আমার ছেলেমেয়েদেরও সে সময় দিতে পারিনি। আমার বয়স এখন সত্তুরের ওপরে। নতুন নেতৃত্বের কাছে এখন দায়িত্ব অর্পণ করতে চাই। দলকে আরো একবার ক্ষমতায় আনতে হবে। এখানে বসে থাকলে হবে না। কাজ করতে হবে। মানুষের কাছে সরকারের উন্নয়ন তুলে ধরতে হবে। মানুষকে বোঝাতে হবে, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে দেশের উন্নয়ন হবে। সাত বছরে আওয়ামী লীগ যে কাজ করেছে, তার সুফল জনগণ পাবে আবারো ক্ষমতায় এলে। বিএনপির লুটেরা এলে এটি হবে না।”

তিনি আরো বলেন, “আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধু পরিবারের বিরুদ্ধে কেউ দুর্নীতির অভিযোগ করতে পারেনি। সজীব ওয়াজেদ জয়, পুতুল, রিদওয়ান মুজিব সিদ্দিক- তারা জাতি গঠনে কাজ করছে। আওয়ামী লীগ আজ যে অবস্থানে এসেছে, তাতে কেউ আওয়ামী লীগকে অবহেলা করতে পারবে না। শনিবার বিভিন্ন দেশ থেকে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের অতিথিরা, যারা সম্মেলনে এসেছেন, তারা বক্তব্য দিয়ে গেছেন। তারা সবাই আওয়ামী লীগের প্রশংসা করে গেছেন, জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে গেছেন। জিয়াউর রহমানের সময় জয় বাংলা স্লোগান নিষিদ্ধ ছিল। সে সময় শুধু আওয়ামী লীগ জয় বাংলা স্লোগান দিত। আজ সেই স্লোগান আন্তর্জাতিকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে।”

উল্লেখ্য, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান সংলগ্ন রমনার ইনস্টিটিউশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে চলছে রুদ্ধদ্বার এ কাউন্সিল অধিবেশন। রোববার সকাল ৯টা ৩৮ মিনিটে শুরু হওয়া কাউন্সিল অধিবেশনে অংশ নিচ্ছে দেশের বিভিন্ন ইউনিটের ছয় হাজার পাঁচশো ৭০ কাউন্সিলর। শেখ হাসিনার বক্তব্যের পর বক্তব্য দিচ্ছেন বিভিন্ন সাংগঠনিক জেলার নেতারা। তাদের বক্তব্য শেষ হলে দলের গঠনতন্ত্র ও ঘোষণাপত্রের সংশোধনী অনুমোদনের পর নেতৃত্ব নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হবে। বর্তমান কমিটি ভেঙে দিয়ে কার্যনির্বাহী সংসদের নতুন কমিটি নির্বাচন করা হবে।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: আবু তাহের


সর্বশেষ

আরও খবর

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব


আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন

আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন


চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ

চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ


তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন

তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন


যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার

যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার


আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০

আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০


সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি

সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি


চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার


সাংবাদিকতা বিরোধী আইন হবে না: মন্ত্রী

সাংবাদিকতা বিরোধী আইন হবে না: মন্ত্রী


সেনাবাহিনীতে নিরপেক্ষ মূল্যায়ন চান প্রধানমন্ত্রী

সেনাবাহিনীতে নিরপেক্ষ মূল্যায়ন চান প্রধানমন্ত্রী