Wednesday, March 29th, 2017
ট্যানারি হাজারীবাগে রাখার আবেদন খারিজ
March 29th, 2017 at 3:58 pm
ট্যানারি হাজারীবাগে রাখার আবেদন খারিজ

ঢাকা: রাজধানীর হাজারীবাগে থাকা ট্যানারি কারখানা গুলো আগামী ঈদুল আযহা পর্যন্ত কার্যক্রম চালানোর জন্য মালিকদের পক্ষে করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। ফলে ট্যানারি স্থানান্তরের দেওয়া আদেশ বহাল-ই রইলো।

পর পর দুই দিন এ সংক্রান্ত আবেদনের ওপর শুনানি করে আজ বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. সেলিমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে আজ ট্যানারি কারখানার পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস, ব্যারিস্টার মেহেদী হাসান চৌধুরী। তাদেরকে সহযোগিতা করেন ব্যারিস্টার উপমা বিশ্বাস ও অ্যাডভোকেট স্বপ্নীল ভট্রাচার্য। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী জিনাত হক। রিট আবেদনের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোটে ফিদা এম কামাল ও সৈয়দা রেজোয়ানা হাসান।

এর আগে বুধবার সকালে আগামী ঈদুল আযহা পর্যন্ত কার্যক্রম চালাতে রাজধানীর হাজারীবাগে থাকা ট্যানারি কারখানাগুলো সময় আবেদন করেন। গত ১২ মার্চ হাজারীবাগে থাকা ট্যানারি কারখানা অবিলম্বে বন্ধে হাইকোর্টের নির্দেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। গত ৬ মার্চ রাজধানীর হাজারীবাগের সব ট্যানারি কারখানা অবিলম্বে বন্ধের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

একই সঙ্গে কারখানাগুলোর বিদ্যুৎ, গ্যাস ও পানি বিচ্ছন্ন করাসহ সকল সুযোগ সুবিধা বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দেন আদালত। বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ এবং বিচারপতি মো. সেলিমের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান। শিল্প মন্ত্রণালয়ের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী রইস উদ্দিন। পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবং স্বরাষ্ট্র সচিবকে এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বলা হয়।

এর আগে আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে ট্যানারি শিল্প কারখানা সরিয়ে নিতে সরকার নতুন করে যে সময়সীমা দিয়েছে ওই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন করেন বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতি (বেলা)। ওই আবেদনের শুনানি নিয়ে আদালত এ আদেশ দেন বলে জানিয়েছেন বেলার প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান।

জানা যায়, এক রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে ২০০১ সালে ট্যানারি শিল্প হাজারীবাগ থেকে সরিয়ে নিতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। ওই আদেশ বাস্তবায়িত না হওয়ায় ২০১০ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে হাজারীবাগের ট্যানারি শিল্প অন্যত্র সরিয়ে নিতে ২০০৯ সালের ২৩ জুন হাইকোর্ট ফের নির্দেশ দেন। সরকারপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে পরে ওই সময়সীমা কয়েক দফা বাড়িয়ে ২০১১ সালের ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত করা হয়। এরপরও ওই এলাকা থেকে ট্যানারি শিল্প কারখানা সরিয়ে নেয়নি। নতুন করে শিল্পমন্ত্রণালয়ের থেকে জানানো হয়, ২৯ ফেব্রুয়ারির মধ্যে হাজারীবাগ থেকে যেসব ট্যানারি স্থানান্তর করা হবে না, আগামী ১ মার্চ থেকে  ওইসব ট্যানারির গ্যাস, বিদ্যুৎ ও পানির সংযোগ লাইন বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হবে।

সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান জানান, আদালতের নির্দেশ ও সরকারের তাগাদা মেনে যে সমস্ত ট্যানারি হাজারীবাগ থেকে এখনো সাভারে স্থানান্তরিত হয়নি তাদেরকে অবিলম্বে বন্ধ করে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। ওই সমস্ত কারখানার গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানিসহ সকল সুযোগ সুবিধা বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

প্রতিবেদক: ফায়েজ, সম্পাদনা: ইয়াসিন


সর্বশেষ

আরও খবর

সাগরপথে ইতালি পৌঁছালেন ৩৬২ বাংলাদেশি

সাগরপথে ইতালি পৌঁছালেন ৩৬২ বাংলাদেশি


করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৩৬০

করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৩৬০


দুর্নীতিবাজ যেই হোক ব্যবস্থা নেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

দুর্নীতিবাজ যেই হোক ব্যবস্থা নেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী


৫ অক্টোবর পর্যন্ত ইতালিতে বাংলাদেশিদের প্রবেশ নিষেধ

৫ অক্টোবর পর্যন্ত ইতালিতে বাংলাদেশিদের প্রবেশ নিষেধ


করোনায় আরও ৪৬ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩৪৮৯

করোনায় আরও ৪৬ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩৪৮৯


রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যানকে খুঁজছে র‌্যাব

রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যানকে খুঁজছে র‌্যাব


রিজেন্টের মিরপুর শাখাও সিলগালা, আটক সাতজনের ৫ দিনের রিমান্ড

রিজেন্টের মিরপুর শাখাও সিলগালা, আটক সাতজনের ৫ দিনের রিমান্ড


টেস্ট না করেই করোনার রিপোর্ট দিতো রিজেন্ট হাসপাতাল

টেস্ট না করেই করোনার রিপোর্ট দিতো রিজেন্ট হাসপাতাল


চলে গেলেন এন্ড্রু কিশোর, রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক

চলে গেলেন এন্ড্রু কিশোর, রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক


এবারের হজে স্পর্শ করা যাবে না কাবা শরীফ

এবারের হজে স্পর্শ করা যাবে না কাবা শরীফ