Wednesday, December 14th, 2016
ট্রাম্পের জয়ে চীন-মেক্সিকো বন্ধন গভীর হচ্ছে
December 14th, 2016 at 8:02 pm
ট্রাম্পের জয়ে চীন-মেক্সিকো বন্ধন গভীর হচ্ছে

মেক্সিকো সিটি: গত মাসে ধনকুবের ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর সোমবার(১২ ডিসেম্বর) মেক্সিকোতে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে চীন এবং মেক্সিকোর শীর্ষ কূটনীতিকরা উভয় দেশের মধ্যে বন্ধন গভীর করার অঙ্গীকার করেছেন।

রোববার(১১ ডিসেম্বর) মেক্সিকোতে যাওয়ার আগে চীনের স্টেট কাউন্সিলর ইয়াং জিয়েচি নিউইয়র্কে ট্রাম্পের দলের সদস্যদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এছাড়া তিনি নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট কর্তৃক মনোনীত জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা লেঃ জেনারেল মাইকেল ফ্লিনের সঙ্গেও দেখা করেন।

বর্তমানে মেক্সিকো তার ক্ষমতাধর প্রতিবেশি যুক্তরাষ্ট্রের উপর অর্থনৈতিক নির্ভরশীলতা কমানোর উপায় খুঁজছে। কারণ নির্বাচনের আগে ট্রাম্প মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চাকরি অন্য দেশে স্থানান্তরের বিষয়ে কঠোর অবস্থান নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। ফলে নবনির্বাচিত এই প্রেসিডেন্টের বাণিজ্যিক নীতি মেক্সিকোর অর্থনীতির জন্য ক্ষতিকর হতে পারে বলে ধারণা করছে দেশটির নীতিনির্ধারকরা।

মেক্সিকোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্লডিয়া রুইজ ম্যাসিউ এক বিবৃতিতে জানান, ইয়াং এর সঙ্গে সাক্ষাতে উভয় দেশের মধ্যে বাণিজ্য এবং বিনিয়োগ সম্পর্ক বাড়ানোর পাশাপাশি দেশ দুটির মধ্যে বিমান চলাচল ব্যবস্থা উন্নত করার বিষয়েও আলোচনা হয়।

দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, মেক্সিকো-চীন কৌশলগত সংলাপের মাধ্যমে পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে দ্বিপাক্ষিক সংলাপে উভয় দেশের মধ্যে আস্থা তৈরি এবং সম্পর্ক উন্নয়নের বিষয়ে একমত হয়েছে।

মেক্সিকান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের পর ইয়াং দেশটির প্রেসিডেন্ট এনরিক পেনা নিয়েতোর সঙ্গেও সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের হবু প্রেসিডেন্টের সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ডে চীন গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। কয়েকদিন আগে ট্রাম্প তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন। এছাড়া রোববার(১১ ডিসেম্বর) ফক্স নিউজ চ্যানেলে তিনি এক চীন নীতি থেকে সরে আসার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। ট্রাম্প উল্লেখ করেছিলেন, বাণিজ্যের ক্ষেত্রে চীন যদি যুক্তরাষ্টকে কোনো ছাড় না দেয় তাহলে দেশটি এক চীন নীতির পরিবর্তন ঘটাতে পারে। প্রসঙ্গত চীন তাইওয়ানকে নিজ দেশের একটি অংশ বলে মনে করে এবং চীনের এই অবস্থানকে সমর্থন করাই এক চীন নীতি।

মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট পিনা নিয়েতো চীনের সঙ্গে উচ্চ পর্যায়ের একটি রেল এবং খুচরা প্রকল্প বাতিল করায় দেশটির সঙ্গে চীনের সম্পর্ক শীতল হতে শুরু করে। কিন্তু গত সপ্তাহে মেক্সিকো ‘চায়না ন্যাশনাল অফশোর অয়েল কর্পোরেশন’কে দুটি গভীর সমুদ্রের তেলের ব্লক ইজারা দিয়ে সম্পর্ক উষ্ণ করার চেষ্টা করছে।

ইউ.এস. আর্মি ওয়ার কলেজের প্রফেসর ইভান ইলিস জানান, চীন-মেক্সিকো সম্পর্ক আবারো ফিরে আসছে। তিনি বলেন, ‘ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচিত হওয়ায় এবং উত্তর আমেরিকার মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি বা নাফটা সম্ভাব্য হুমকির মুখে পড়ার ফলে মেক্সিকোর বৈদেশিক অর্থনীতিকে বহুমুখী করার চেষ্টা করছেন প্রেসিডেন্ট পেনা নিয়েতো।’

মেক্সিকো, কানাডা এবং যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে করা নাফটা চুক্তি নিয়ে পুনরায় আলোচনা করার কিংবা এটিকে বাতিল করার অঙ্গীকার করেছিলেন নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বাণিজ্যিক এই চুক্তিটি মেক্সিকোর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

গ্রন্থনা: ফারহানা করিম, সম্পাদনা: জাহিদ


সর্বশেষ

আরও খবর

সিনেটে ১ লাখ ৯০ হাজার কোটি ডলারের করোনা সহায়তা বিল পাস

সিনেটে ১ লাখ ৯০ হাজার কোটি ডলারের করোনা সহায়তা বিল পাস


বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা


ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ৫০ বছর

ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ৫০ বছর


কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরের জামিন মঞ্জুর

কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরের জামিন মঞ্জুর


একদিনেই সড়কে ঝড়ল ১৯ প্রাণ

একদিনেই সড়কে ঝড়ল ১৯ প্রাণ


শাহবাগে মশাল মিছিলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ, আটক ৩

শাহবাগে মশাল মিছিলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ, আটক ৩


করোনায় ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩২৭

করোনায় ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩২৭


নামাজ পড়ানোর সময় সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু

নামাজ পড়ানোর সময় সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু


ভাষার বৈচিত্র্য ধরে রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ভাষার বৈচিত্র্য ধরে রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


করোনায় আরও জনের ১৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯১

করোনায় আরও জনের ১৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯১