Friday, June 24th, 2016
তিনটি অপ্রত্যাশিত মৃত্যু
June 24th, 2016 at 10:09 pm
তিনটি অপ্রত্যাশিত মৃত্যু

ডেস্ক: গত সপ্তাহে পর পর তিন দিনে চলে গেলেন সাংবাদিক সন্তোষ মন্ডল, একাত্তর টেলিভিশনের চিত্রগ্রাহক আলী হোসেন রিপন এবং সাবেক সচিব ড. রণজিৎ বিশ্বাস। তাদের মৃত্যু শোকের ছায়া ফেলেছে দেশের জনপ্রিয় গণযোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও। প্রকাশিত হয়েছে অসংখ্য লেখা ও ছবি। যাতে রয়েছে শোক, ক্ষেত্র বিশেষে শঙ্কা, ক্ষোভও।

‘ছবিতে রণজিৎ দার সঙ্গে কিছু স্মৃতি..’ -শীর্ষক এক প্রকাশনায় সাংবাদিক রিমন মাহফূজ বলেছেন, ‘রণজিৎ দা সাংবাদিকদের অত্যন্ত প্রিয় ও শ্রদ্ধার মানুষ, ক্রীড়া বিশ্লেষক, রম্য লেখক ও বাংলাদেশ সরকারের প্রাক্তন সচিব চলে গিয়েছেন না ফেরার দেশে। রণজিৎ বিশ্বাসের এই অকাল ও অকস্মিক প্রয়াণে আমরা শোকাহত।  বিনোদন পরিবার তাঁর বিদেহী আত্মার চিরশান্তি ও কল্যাণ কামনা করছি। যেখানেই থাকুন প্রিয় দাদা, ভাল থাকুন আপনি।’ আবার কবি, সাংবাদিক ও চলচ্চিত্র নির্মাতা লিখেছেন, ‘রণজিৎ বিশ্বাসের মরদেহ রাখার জন্যে একটি চৌকিও রাখতে পারেননি আয়োজকেরা! প্লাস্টিকের চেয়ারের ওপর মরদেহটি রাখা হলো। ক্ষোভ জানিয়েছেন শ্রদ্ধা জানাতে আসা সাধারণ মানুষ।’ এছাড়া আলমগীর হক স্বপন নামের একজন লিখেছেন, ‘ভাবতেই পারছি না রণজিৎ দা নেই, বমিটা কেন হলো, সেটার কারণ জানতে হবে! কাদের নিমন্ত্রণ ছিল! বৌদি কোথায় ছিলেন ! কোন বিষক্রিয়া হলো কিনা ? একটা তদন্ত হওয়া উচিত।’

এদিকে সাংবাদিক সালেহ বিপ্লব লিখেছেন, ‘দাদার কফিন খুললেন দু’জন। হেডসাইডে তারিকুল ইসলাম মাসুম, চ্যানেল আইর জয়েন্ট এসাইনমেন্ট এডিটর। লোয়ার পার্টে রহমান মুস্তাফিজ, চ্যানেল আইর সাবেক সিনিয়র রিপোর্টার। আমি মাসুমের ডানপাশে। দাদার মুখের দিকে চেয়ে রইলাম অনেকটা সময়। তার ডানগালটা খুব আলতো করে স্পর্শ করলাম, কয়েক সেকেন্ড কিন্তু মনে হচ্ছিলো অনন্তকাল। হাত সরিয়ে এনে দাদার স্পর্শে ঠোঁট ছোঁয়ালাম। বিদায় দাদা, প্রিয় সন্তোষদা। গ্রেট সন্তোষ মণ্ডল।’

একই পেশার প্রতীক ইজাজ লিখেছেন, ‘সন্তোষদাকে আমি চিনি অনেক আগে থেকেই, পেশায় আসা থেকেই। টুকটাক কথা হয়েছে। কিন্তু নিবিড়ভাবে মেশার সুযোগ পাই অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের জন্য গণমাধ্যম করতে গিয়ে। প্রথমদিকের সভাগুলোয় আসতেন, কথা বলতেন। আমার ভালো লেগে যায়। হাসিমুখ, স্বচ্ছ, মিশুক। কিছুটা গোটানো নিজের ভেতর। চেহারায় চোখে মুখে অনাবিল আনন্দ। আমার দেখে ভালো লাগতো। সান্তনা পেতাম। তারপর একদিন পাড়ি জমায় যুক্তরাষ্ট্রে, অন্যের কাছে শুনি। আর আজ শুনলাম চলে যাওয়ার কথা। চলে গেলেন। এ চলে যাওয়ায় আমার কষ্ট আছে, এক ধরণের অভাববোধ আছে। আছে এই কারণেই যে, চারপাশে ভালো মানুষের বড্ড অভাব। এ অভাব আরো গভীর হলো। ভালো থাকুন সন্তোষ’দা, ভালো থাকুন। আপনার প্রতি আমার শ্রদ্ধা অকৃত্রিম, আগের মতোই।’

সাংবাদিক মোহাম্মদ ওমর ফারুক লিখেছেন, ‘এই যুগের একজন সচেতন সাংবাদিক সেরিব্রাল ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাবে কল্পনাতেও ছিলো না। কিভাবে সম্ভব? বান্দরবানের থানচি, বড়মোদকে খাদ্য সংকট নিয়ে ধারাবাহিক রিপোর্ট করতে গিয়ে একাত্তর টেলিভিশনের চিত্রগ্রাহক আলী হোসেন রিপন ভাইয়ের ক্ষেত্রে সেটাই হলো। রিপন ভাইয়ের সাথে আমার কখনোই পরিচয় ছিলো না,কখনো কথা হয়নি তারপরও যখন ফারজানা আপার ফেসবুক স্ট্যাটাসে তার মৃত্যু সংবাদটি দেখলাম তখন মনটা খারাপ হয়ে গেলো। ত্রিশ বছরের একটি যুবক এই যুগে এসে এই ভাবে অপচয় হয়ে গেল? সাথে এই রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আছেন আমার দেখা দেশের সেরা পরিবেশ সাংবাদিক হোসেন সোহেল ভাই ।’

সাংবাদিক শুভাশিস ব্যানার্জি লিখেছেন, ‘সোম থেকে শুক্র। মাঝে তিনটি মাত্র দিন। তিন জন মানুষের অপ্রত্যাশিত মৃত্যু। সাংবাদিক সন্তোষ মন্ডল, একাত্তর টেলিভিশনের চিত্রগ্রাহক আলী হোসেন রিপন এবং সাবেক সচিব ড. রণজিৎ বিশ্বাস। এই তিনজন অনেকের কাছেই পরিচিত। তাদের মৃত্যুতে দুঃখ পাওয়া স্বাভাবিক।’

শুভাশিস আরো লিখেছেন, ‘একেকজন মানুষের মৃত্যুর পর আমরা তার বা তাদের প্রতি যে পরিমাণ শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা প্রকাশ বা প্রচার করি, জীবিত অবস্থায় সেটা কেন করি না? কেন জীবিত অবস্থায় এসব ভালোবাসা গুপ্ত থাকে? আবার কেন-ই বা মৃত্যুর কয়েক দিনের মধ্যেই আমরা তাকে বা তাদের ভুলেও যাই? এটা কেমন রীতি? জীবন ক্ষণিকের। কখন কাকে কিভাবে চলে যেতে হবে, সেটা সবার অজানা।’

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এসকে


সর্বশেষ

আরও খবর

অসুস্থ হয়ে পড়েছেন সাংবাদিক তানু, ভর্তি করা হয়েছে হাসপাতালে

অসুস্থ হয়ে পড়েছেন সাংবাদিক তানু, ভর্তি করা হয়েছে হাসপাতালে


গণতন্ত্রের রক্ষাকবজ হিসাবে গণমাধ্যম ধারালো হাতিয়ার

গণতন্ত্রের রক্ষাকবজ হিসাবে গণমাধ্যম ধারালো হাতিয়ার


ছয় দিনে নির্যাতিত অর্ধশত সাংবাদিক: মামলা নেই, কাটেনি আতঙ্ক

ছয় দিনে নির্যাতিত অর্ধশত সাংবাদিক: মামলা নেই, কাটেনি আতঙ্ক


ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করুন

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করুন


কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরের জামিন মঞ্জুর

কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরের জামিন মঞ্জুর


সৈয়দ আবুল মকসুদঃ মৃত জোনাকির থমথমে চোখ

সৈয়দ আবুল মকসুদঃ মৃত জোনাকির থমথমে চোখ


গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক মারা যাওয়ার ৬০ ঘন্টা পরে পরিবারের মামলা

গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক মারা যাওয়ার ৬০ ঘন্টা পরে পরিবারের মামলা


৯ মাস পর কারামুক্ত হলেন সাংবাদিক কাজল

৯ মাস পর কারামুক্ত হলেন সাংবাদিক কাজল


জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারে ধাপ্পার অভিযোগ ভারতীয় লেখকের!

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারে ধাপ্পার অভিযোগ ভারতীয় লেখকের!


বিদায় কিংবদন্তি যুদ্ধ সাংবাদিক রবার্ট ফিস্ক

বিদায় কিংবদন্তি যুদ্ধ সাংবাদিক রবার্ট ফিস্ক