Sunday, August 21st, 2016
থান্ডারবোল্ট’র জন্মদিনে
August 21st, 2016 at 1:59 pm
থান্ডারবোল্ট’র জন্মদিনে

ডেস্ক: অলিম্পিক গেমসে রেকর্ড পরিমান স্বর্ণপদক জিতে দৌড়বিদ উসাইন বোল্ট ইতিমধ্যেই ইতিহাসের পাতায় নিজের নাম লিখিয়ে নিয়েছেন অমোচনীয় কালিতে। রবিবার এই ঐতিহাসিক অলিম্পিয়ানের ৩০ তম জন্মবার্ষিকী। ১৯৮৬ সালের ২১ আগস্ট জ্যামাইকার ছোট্ট শহর ট্রিলনি পারিশ’র শেরউড কনটেন্ট এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন উসাইন বোল্ট। তার পিতা-মাতা ওয়েলেসলি এবং জেনিফার বোল্ট গ্রামে মুদি দোকান চালাতেন।

শৈশবে বোল্ট ওয়াল্ডেনসিয়া প্রাইমারী এন্ড অল এইজ স্কুলে ভর্তি হন। তার দৌড়ের দক্ষতা প্রথম বারের মত প্রকাশ পায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায়। ১২ বছর বয়সে ১০০ মিটার দূরত্বের দৌড়ে বোল্ট তার বিদ্যালয়ের সবচেয়ে দ্রুততম দৌড়বিদ হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন।

উইলিয়াম নিব মেমোরিয়াল হাই স্কুলে ভর্তি হবার পর বোল্ট অন্যান্য ক্রীড়ার দিকেও মনোনিবেশ করতে থাকেন। কিন্তু ক্রিকেট কোচ পীচে তার দ্রুতগতির বল নিক্ষেপ করার বিষয়টি লক্ষ্য করে তাকে ট্র্যাক এন্ড ফিল্ডের খেলাগুলোতে মনোনিবেশ করতে বলেন। সাবেক অলিম্পিক দৌড়বিদ পাবলো ম্যাকনিল এবং ওয়েন ব্যারেট বোল্টকে প্রশিক্ষণ দিতে থাকেন ও অ্যাথলেটিকে তার সক্ষমতায় উদ্দীপনা যোগাতে যথেষ্ট সহায়তা করেন। এছাড়াও মাইকেল গ্রীন’র মত দৌড়বিদের দক্ষতা বিকাশে বিদ্যালয়টির স্বর্ণোজ্জ্বল ইতিহাস রয়েছে।

বেইজিং-লন্ডন-রিও, টানা তিন অলিম্পিকেই ১০০ ও ২০০ মিটার স্প্রিন্ট এবং ৪×১০০ মিটার রিলেতে সোনা জিতেছেন জামাইকান দৌড়বিদ উসাইন বোল্ট। স্পর্শ করেছেন ফিনল্যান্ডের মাঝারি ও দূরপাল্লার দৌড়বিদ পাভো নুর্মি ও যুক্তরাষ্ট্রের স্প্রিন্টার কার্ল লুইসকে। অলিম্পিক ইতিহাসে অ্যাথলেটিক্সে ৯টি সোনা আছে কেবল এই তিনজনেরই।

তবে, ২০০৮ সালের বেইজিং অলিম্পিক থেকে জেতা একটি পদক হারাতে পারেন বোল্ট। প্রত্যক্ষভাবে এতে তার কোন হাত নেই; বেইজিং-এ ১০০ মিটার রিলেতে তার সতীর্থ নেস্তা কার্টার নতুন করে করা এক ডোপ টেস্টে প্রাথমিকভাবে ‘পজিটিভ’ প্রমাণিত হয়েছেন। এর ফলে ওই ইভেন্টে কার্টারসহ পদক হারাতে পারেন জ্যামাইকা দলের ৪ সদস্যই।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইল এ প্রকাশিত একটি সংবাদ থেকে জানা যায়, ২০০৮ বেইজিং অলিম্পিকের যে ৩১ প্রতিযোগী নতুন করে করা এক ডোপ টেস্টে ‘পজিটিভ’ হয়েছেন সে তালিকায় আছে কার্টারের নামও রয়েছে। কার্টার ওই সময় নিষিদ্ধ ঘোষিত মিথাইলহেক্সানামাইন গ্রহণ করেছিলেন। প্রাথমিক পরীক্ষায় এমন প্রমাণ আসার পর অপেক্ষা চলছে চূড়ান্ত ফলাফলের। এতে করে বোল্ট সহ কার্টারের বাকী দুই সতীর্থের পদকও কেড়ে নেয়া হতে পারে। কিন্তু এতে উসাইন বোল্টের খ্যাতি বা সম্মান কোনটাই কমবে না, কারন উসাইন বোল্ট’রা পৃথিবীতে আসেন অনিয়মিত ভাবে, শত শত বছর পরপর একবার করে।

প্রতিবেদন: এস. কে. এস, প্রকাশ: তুসা


সর্বশেষ

আরও খবর

৭ অক্টোবরের আগে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে না বাংলাদেশ

৭ অক্টোবরের আগে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে না বাংলাদেশ


শর্ত মেনে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে না বাংলাদেশ: পাপন

শর্ত মেনে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে না বাংলাদেশ: পাপন


বিসিবির নিরাপত্তা প্রধান মারা গেছেন

বিসিবির নিরাপত্তা প্রধান মারা গেছেন


দেশে ফিরলেন সাকিব

দেশে ফিরলেন সাকিব


হতাশ হলেও শিখেছেন বাবর আজম

হতাশ হলেও শিখেছেন বাবর আজম


জয়ের ধারায় থাকা ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সমতা ফেরানোর খোঁজে পাকিস্তান

জয়ের ধারায় থাকা ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সমতা ফেরানোর খোঁজে পাকিস্তান


কভিড-১৯: সময়মত আইপিএল শুরু অনিশ্চিত

কভিড-১৯: সময়মত আইপিএল শুরু অনিশ্চিত


বার্সার অনুশীলনে সোমবার মাঠে নামছেন মেসি

বার্সার অনুশীলনে সোমবার মাঠে নামছেন মেসি


মাঠে নামছেন তামিম ইকবাল

মাঠে নামছেন তামিম ইকবাল


২৪ অক্টোবর ক্রিকেটে ফিরছে বাংলাদেশ

২৪ অক্টোবর ক্রিকেটে ফিরছে বাংলাদেশ