Wednesday, August 24th, 2016
দীপন হত্যাকারীদের প্রশিক্ষণ দেয় জিয়া
August 24th, 2016 at 3:05 pm
দীপন হত্যাকারীদের প্রশিক্ষণ দেয় জিয়া

ঢাকা: জাগৃতির প্রকাশক ফয়সল আরেফিন দীপনের হত্যাকারী আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের (এবিটি) সদস্যদের প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন সেনাবাহিনী থেকে চাকরিচ্যুত মেজর জিয়াউল হক।

বুধবার দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার ও কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

এর আগে মঙ্গলবার রাতে টঙ্গির চেরাগআলী মার্কেটের সামনে থেকে শামীম ওরফে সিফাতকে গ্রেফতার করে পুলিশের গোয়েন্দা ও অপরাধ তথ্য বিভাগ (ডিবি)। পরে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সিফাত পুলিশকে এসব তথ্য দেন।

সম্প্রতি গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁ ও কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া জঙ্গি হামলার ঘটনায়ও মেজর জিয়ার সম্পৃক্ততার কথা জানিয়েছে পুলিশ। তাকে ধরিয়ে দিতে ২০ লাখ টাকা পুরস্কারও ঘোষণা করা হয়।

মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘গ্রেফতার হওয়া সিফাত দীপন হত্যাকাণ্ডের সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল। সে হত্যাকাণ্ডের আগে ঘটনাস্থলে গিয়ে রেকি করেছে। হত্যাকাণ্ডের ১ মাস আগে থেকে তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সিফাত তাদের প্রশিক্ষক হিসেবে মেজর জিয়ার নাম বলেছে।’

‘দীপন হামলার পরিকল্পনাকারী সেলিমসহ আরো কয়েকজনের নাম বলেছে সিফাত। তাকে রিমান্ডে এনে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করলে আরো বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে’ বলেন তিনি।

মনিরুল বলেন, ‘প্রকাশক দীপন ছাড়াও সিফাত গত বছরের ৪ জানুয়ারি সাভারে সান্ত-মরিয়ম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রিয়াজ মোর্শেদ বাবু হত্যাকাণ্ডে সরাসরি অংশ নেয়।’

অভিজিৎ ও দীপন হত্যাকারীরা একই গ্রুপের তবে তাদের মধ্যে কেউ কমন থাকতে পারে বলেও জানান তিনি।

মেজর সৈয়দ মোহাম্মদ জিয়াউল হক বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চাকরীচ্যুত কর্মকর্তা। ২০১১ সালে সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগে চাকরিচ্যুত করা হয় তাকে। এরপর থেকেই তিনি আত্মগোপনে আছেন।

২০১৩ সালে প্রথমবারের মতো এবিটির সঙ্গে জিয়াউল হকের সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পায় পুলিশ। জিয়া জঙ্গিদের যুদ্ধ ও বোমা তৈরি ইত্যাদি বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেন বলে তথ্য আসে তাদের কাছে।

পুলিশ জানায়, ২০১৩ সালে এবিটি প্রধান মুফতি জসিমউদ্দিন রাহমানী গ্রেফতার হওয়ার পর এই নিষিদ্ধ সংগঠনের অন্যতম ‘মাস্টারমাইন্ড’ হিসেবে জিয়ার নাম বেরিয়ে আসে। তখন জেএমবির একাংশের সঙ্গে এই বহিষ্কৃত সেনা কর্মকর্তার ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ থাকার তথ্যপ্রমাণ পায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সেই থেকেই পলাতক জীবনযাপন করছেন জিয়া। তার সঙ্গে পাকিস্তানে নিহত আরেক জঙ্গি নেতা এজাজের সঙ্গেও যোগাযোগের তথ্য মেলে।

প্রতিবেদন: প্রীতম সাহা সুদীপ, সম্পাদনা: মাহতাব শফি


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় প্রাণ গেল আরও ২১ জনের

করোনায় প্রাণ গেল আরও ২১ জনের


শিশু ধর্ষণের মামলায় দ্রুততম রায়ে আসামির যাবজ্জীবন

শিশু ধর্ষণের মামলায় দ্রুততম রায়ে আসামির যাবজ্জীবন


মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে নির্দেশ মন্ত্রিসভার

মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে নির্দেশ মন্ত্রিসভার


দেশে করোনায় আরও ২৩ জনের মৃত্যু

দেশে করোনায় আরও ২৩ জনের মৃত্যু


ভোট সুষ্ঠু হয়েছে; দাবি প্রধান নির্বাচন কমিশনারের

ভোট সুষ্ঠু হয়েছে; দাবি প্রধান নির্বাচন কমিশনারের


বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার খসড়া তালিকায় গ্লোব বায়োটেকের ভ্যাকসিন

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার খসড়া তালিকায় গ্লোব বায়োটেকের ভ্যাকসিন


আপাতত বন্ধ হচ্ছে না ইন্টারনেট-ক্যাবল টিভি

আপাতত বন্ধ হচ্ছে না ইন্টারনেট-ক্যাবল টিভি


চোরের চিরকুট!

চোরের চিরকুট!


মিরপুর চিড়িয়াখানা খুলছে ১ নভেম্বর

মিরপুর চিড়িয়াখানা খুলছে ১ নভেম্বর


দেশে করোনায় আরও ১৫ মৃত্যু

দেশে করোনায় আরও ১৫ মৃত্যু