Monday, July 4th, 2022
দুর্গার আলোয় আলোকিত বরিশাল শহর
October 7th, 2016 at 8:25 pm
দুর্গার আলোয় আলোকিত বরিশাল শহর

বরিশাল: সারা দেশের মতো বরিশালেও শুরু হয়েছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে বাহারী আলোয় আলোকিত হয়ে উঠেছে পুরো বরিশাল নগরী।

শুক্রবার সকাল ৯টা ৪৯ মিনিটে দুর্গাদেবীর ষষ্ঠ্যাদি কল্পারম্ভ ও ষষ্ঠীবিহিত পূজা দিয়ে অনুষ্ঠানমালা শুরু হয়।

মন্দিরে মন্দিরে ঢাকের বাজনার পাশাপাশি চলছে ধর্মীয় গান। মন্দিরে মন্দিরে চলছে পূজা অর্চনা। শারদীয় দুর্গা উৎসব উপলক্ষে নগরীর মন্দিরগুলো সাজানো হয়েছে।

barisal-3শুক্রবার সকাল থেকে পূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হলেও বৃহস্পতিবার পঞ্চমীর দিন সন্ধ্যার সঙ্গে সঙ্গেই মণ্ডপগুলোর আলোকসজ্জায় আলোকিত হয়ে উঠে পুরো নগরী। যা দেখতে পূজার আগেই ভিড় করে বিনোদনপ্রেমী মানুষ।

বরিশালের পূজা মণ্ডপগুলোতে আলোকসজ্জায় কাজ করা লোকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, প্রতিবার এক ধরনের লাইটিং বা আলোকসজ্জা করা হলেও এবার কিছুটা পরিবর্তন করা হয়েছে। নতুন কিছু লাইট এবং আলোকসজ্জা যুক্ত করা হয়েছে বরিশালের পূজা মণ্ডপগুলোতে।

বরিশাল শ্রী শ্রী শংকর মঠে আলোকসজ্জায় নিয়োজিত থাকা খোকন মুহুরী জানান, পূজা শুরুর ৩ মাস আগেই ভারত থেকে মালামাল এনে কাজ শুরু করা হয়। তবে এক মাস আগে মণ্ডপের কাজ ধরা হয়। পাশাপাশি গেট গুলোতেও আনা হয়েছে ভিন্নতা। দূর্গা পূজায় শুধু মণ্ডপ নয়, সংলগ্ন এলাকগুলোকেও ঢেকে দেয়া হয়েছে আলোকসজ্জার বাহারী সাজে।

তিনি জানান, এবারের পূজায় নতুন মালামাল যেমন আনা হয়েছে, তেমনি পূজা কমিটিগুলো বাজেটও বাড়িয়ে দিয়েছে।

নগরীর রামকৃষ্ণ মন্দিরে আলোকসজ্জায় নিয়োজিত নন্দ কুন্ড বলেন, প্রতিবারে সচরাচর লাইট দিয়ে কাজ করা হলেও, এবারে ভিন্নতা রয়েছে কাজে। আশা করি দর্শনার্থীদের বিনোদন দিতে পারব আমাদের এবারের আলোকসজ্জা দিয়ে।

barisal-2প্রতিবারে শংকর মঠের আলোকসজ্জা শ্রেষ্ঠর তালিকায় থাকলেও এবারের আলোকসজ্জায় ভালো ধরনের ভিন্নতা এসেছে নগরীর কালিবাড়ি রোডের পাষানময়ী কালিমাতার মন্দিরের পূজা মণ্ডপ। তাই সেখানেও ভির করছেন দর্শনার্থীরা।

পাষানময়ী কালিমাতার মন্দির পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্লাবন সাহা জানান, পূজা শুরু না হলেও আলোকসজ্জার ভ্যালকিতে পঞ্চমী থেকেই ভির করছেন দর্শনার্থীরা। যার কারণে আমাদের আলোকসজ্জা নিয়ে আমরা নিজেরাও উচ্ছসিত।

এ ব্যপারে বরিশাল মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি নারায়ণ চন্দ্র দে নারু বলেন, প্রতিবারেই জেলাসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে অনেক মানুষ আসে বরিশাল নগরীর পূজা উপভোগ করতে। তবে তাদের আসার মূল বিশেষত্ব হল মণ্ডপগুলোর আলোকসজ্জা। যা এবারেও অনেক স্বাচ্ছন্দ্য সৃষ্টি করবে।

এছাড়া সার্বিক নিরাপত্তার খাতিরে সকালে বিভিন্ন মন্দির পরিদর্শন করেছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার সায়েদুর রহমান, উপ পুলিশ কমিশনার গোলাম রউফ, মুখপাত্র সহকারী কমিশনার ফরহাদ সরদার ও সহকারী কমিশনার আজাদ রহমান।

এবছর বরিশাল নগরীতে পূজা মণ্ডপের সংখ্যা ৩৫টি এবং মেট্রোপলিটন এলাকায় পূজা মণ্ডপের সংখ্যা ৬৬টি। বরিশাল জেলায় ৫৭৩টি ও বিভাগে ১৫৪৫টি। এর মধ্যে ঝলকাঠিতে ১৭২, পটুয়াখালীতে ১৭৭, ভোলায় ৯৬, বরগুনায় ১৪৩ এবং পিরোজপুরে ৪৬২টি পুজামণ্ডপ রয়েছে।

বিভাগের পূজামণ্ডপগুলোর মধ্যে সাধারণ ৪৯৫টি, গুরুত্বপূর্ণ ৫০৫টি এবং অধিক গুরুত্বপূর্ণ ৫৪৫টি।

প্রতিনিধি, সম্পাদনা: জাহিদুল ইসলাম


সর্বশেষ

আরও খবর

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব


আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন

আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন


চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ

চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ


ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার

ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার


তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন

তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন


অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?

অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?


যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার

যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার


আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০

আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০


সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি

সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি


চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার