Saturday, July 2nd, 2016
দূর্বিষহ ১২ ঘণ্টা
July 2nd, 2016 at 4:15 pm
দূর্বিষহ ১২ ঘণ্টা

ঢাকা: ‘অপারেশন থান্ডারবোল্ট’ শেষে গুলশান-২ এর রেস্টুরেন্ট হলি আর্টিজান বেকারি থেকে উদ্ধারকৃতদের জবানিতে প্রকাশ হচ্ছে তাদের দূর্বিষহ ১২ ঘণ্টার অভিজ্ঞতা। তাদের মধ্যে একজন গুলশান-২ এলাকার বাসিন্দা প্রকৌশলী হাসনাত করিম। ১৩ বছর বয়সী সন্তান রাইয়ান করিমের জন্মদিন উদযাপন করতে স্ত্রী শারমিন পারভীন ও কনিষ্ঠ সন্তান সাফা করিমকে নিয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় ঐ রেস্টুরেন্টে যান হাসনাত করিম।

রাতভর আটক থাকার পর সকাল ৮টার দিকে কমান্ডো অভিযানে হাসনাত ও তার পরিবার উদ্ধার হয় বলে নিউজনেক্সটবিডি ডটকম প্রতিনিধিকে জানান হাসনাতের বাবা এম আর করিম। তিনি পেশায় একজন ব্যবসায়ী। সন্তান, পুত্রবধূ ও নাতি নাতনীদের দুশ্চিন্তায় স্ত্রী মিসেস করিমের সঙ্গে সারারাত গুলশানে ছিলেন তিনি।

এম আর করিম তার সন্তানের বরাত দিয়ে জানান, রেস্টুরেন্টের ভেতরে পাঁচজন সক্রিয় আক্রমণকারী ছিল যারা প্রত্যেকেই অপারেশন থান্ডারবোল্টে নিহত হয়েছে। চরমপন্থীদের হাতে জিম্মি হিসেবে আটকদের মধ্যে সাতজন বাংলাদেশি, একজন ভারতীয় এবং ২০ জন বিদেশী নাগরিক ছিলেন।

তিনি আরো বলেন, ‘জিম্মিকারীরা বাংলাদেশি মুসলমানদের সুরা পড়তে বলে। সুরা পড়তে পারার পর তাদের রাতে খেতেও দেয়া হয়। পারভীন হিজাব পরা থাকায় খাতির করা হয়। একজন সনাতন ধর্মালম্বীকে মুসলমান ভেবে ছেড়েও দেয় তারা।’

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস এই হামলার দায় স্বীকার করেছে বলে সাইট ইন্টিলিজেন্স গ্রুপ জানিয়েছে। তবে এই সংগঠনটির তৎপরতার খবর বাংলাদেশ সরকার নাকচ করে আসছে।

২০ বছর প্রবাসে কাটিয়ে আসা হাসনাত যুক্তরাজ্যে প্রকৌশলী পড়াশোনা সম্পন্ন করার পর যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে এমবিএ করেন। মাত্র দেড় বছর আগে দেশে ফিরে আসেন তিনি। ক্যাফেটিতে থাকা বিদেশি কয়েকজন নাগরিককে রাতেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয় বলে হাসনাত তার পরিবারকে জানিয়েছেন।

এদিকে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) জানিয়েছে গুলশানে হলি আর্টিজেন রেস্টুরেন্টে সন্ত্রাসী হামলায় ২০ জন নিহত হয়েছেন। এদের সবাইকে শুক্রবার রাতে হত্যা করা হয় এবং অধিকাংশই ধারালো অস্ত্রের নৃশংসতার শিকার হয়ে মৃত্যুবরণ করে। হলি আর্টিজন বেকারি গুলশানে বসবাসরত বিদেশীদের মধ্যে বেশি জনপ্রিয় ছিল।

শুক্রবার রাত ৯টার দিকে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের হাতে স্প্যানিশ রেস্টুরেন্ট আর্টিজানে জিম্মি হওয়ার ঘটনা ঘটে। অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা রেস্টুরেন্টটি অবরুদ্ধ করে সেখানে থাকা দেশি-বিদেশি গ্রাহকদের জিম্মি করে। সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অপারেশন থান্ডারবোল্টের মাধ্যমে একজন জাপানি ও দু’জন শ্রীলংকান নাগরিক সহ মোট ১৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। অভিযানে ৭ জন সন্ত্রাসীর মধ্যে ৬ জন নিহত এবং একজন সন্দেহ ভাজন সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়।

নিউজনেক্সটবিডিডটকম/এসকেএস/জাই


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত


মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী

মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী


আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার

আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার


পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি

পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি


বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে

বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে


অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ

অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ


মাইন্ড এইড হাসপাতালে তালা, মালিক গ্রেপ্তার

মাইন্ড এইড হাসপাতালে তালা, মালিক গ্রেপ্তার


বিরোধী নেতাদের কটাক্ষ করতেন না বঙ্গবন্ধু: রাষ্ট্রপতি

বিরোধী নেতাদের কটাক্ষ করতেন না বঙ্গবন্ধু: রাষ্ট্রপতি


মসজিদ-মন্দিরে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করলো সরকার

মসজিদ-মন্দিরে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করলো সরকার


করোনায় একদিনে আরও ১৮ প্রাণহানি

করোনায় একদিনে আরও ১৮ প্রাণহানি