Monday, June 27th, 2016
দেশি টুপির চাহিদা বেশি, আতর বিদেশি
June 27th, 2016 at 8:33 pm
দেশি টুপির চাহিদা বেশি, আতর বিদেশি

ময়ূখ ইসলাম, ঢাকা:  ঈদের বাকি আর নয় দিন। এরই মধ্যে নগরবাসী ঈদের কেনাকাটা শেষ করেছেন, যাদের বাকি আছে তারাও তাড়াহুড়া করে সেরে ফেলছেন ‘কেনাকাটার’ বাকি কাজ। তবে পরিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে এখন জমে উঠেছে আতর, টুপি, তসবি ও জায়নামাজের বেচাকেনা।

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের সাত মসজিদ সুপার মার্কেটে কথা হলো আঁতর, টুপি, তসবি, জায়নামাজ ইত্যাদি অনুসঙ্গ বিক্রেতা নিয়ামত আতর হাউজের স্বত্বাধিকারী মাওলানা মুফতি নিয়ামত উল্লাহ’র সঙ্গে। তিনি জানান, ‘এরই মধ্যে জমে উঠেছে আতর, টুপির বেচা কেনা। একই সঙ্গে চলছে জায়নামাজ, তসবি, দাঁতনের বিক্রি।’

তিনি বলেন, ‘এবার সৌদি আরবের আল ফারিজ এবং দুবাইয়ের আল রেহাব আতরের চাহিদা বেশি। এছাড়া চলছে ডালাল, আল রেহাব ইতযাদি। চাহিদা আছে ভারতীয় আতর  আল নঈমেরও। দোকানভেদে ১০০ মিলিলিটারের আতরের দাম ১২০ টাকা থেকে ১২০০ টাকা পর্যন্ত দেখা গেছে।’

ator-tupi (3)

টুপি সম্পর্কে নিয়ামত উল্লাহ বলেন, ‘দেশি টুপির চাহিদা বেশ ভালো। এর মধ্যে চট্টগ্রামের জালি টুপির ক্রেতা বেশি। রয়েছে পাকিস্তানি পাঁচ খলি টুপির চাহিদাও।’

দোকান ঘুরে দেখা যায়, চীনা টুপি ১৫০ থেকে ২০০ টাকা, পাকিস্তানি টুপি ১৫০ থেকে ৬০০, ভারতীয় টুপি ২০ থেকে ৬০০ এবং দেশে তৈরি টুপি ১০ থেকে ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পাকিস্তানি টুপির মধ্যে আসিফ জারদারি বিক্রি হচ্ছে ৮০০ টাকায়, চিনের ওয়ানি ৫৫০ টাকায়, ভারতের গুজরাটি ২৫০ থেকে ৩০০ টাকায়, সিডনি ৪০০, পাঠান ৪৫০ এবং ছোট পুতির সঙ্গে সোনালি কাজ করা প্রতিটি টুপি বিক্রি হচ্ছে ৪০০ থেকে এক হাজার টাকার মধ্যে। এ ছাড়া নেটের তৈরি চীনা টুপি ১৫০ টাকা ও তুর্কি ৫০ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি করছে দোকানিরা।

কথা হলো ক্রেতা মেহেরাব হোসেনের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘ঈদে পরিবারের জন্য ও আত্মিয়-স্বজনদের জন্য আতর ও টুপি নিচ্ছি। বড়দের জন্য এগুলোই ভালো উপহার।’

ator-tupi (2)

এদিকে তসবি, দাঁতন ও পাঞ্জাবির বোতাম এর বেচাকেনাও চলছে বেশ ভালোই। বিক্রেতা সোলায়মান হোসেন বলেন, ‘ঈদে অনেকেই নতুন জায়নামাজ, তসবি, টুপি কিনেন। কেউ কেউ এসব ঈদগাহে নিয়ে যান, অনেকেই আত্মীয়দের উপহার দেন। এজন্য এসময় বিক্রি ভালো হয়।’

জায়নামাজের মধ্যে পাকিস্তান, তুরস্ক, ইরান এসব দেশের পণ্যের চাহিদা বেশি। দোকান ও মান ভেদে এসব বিক্রি হচ্ছে ২৫০ টাকা থেকে ১২০০ টাকার মধ্যে।

এছাড়া রাজধানীর বিভিন্ন মার্কেটে আকিক পাথরের তৈরি তসবি ৪০০ থেকে এক হাজার ২০০ টাকা, জমরুদ ৩০০ থেকে ৬০০ টাকা, সোলেমানি পাথরের তসবি ৩০ থেকে ১৫০ টাকা, ক্রিস্টাল পাথরের তসবি ৫০ থেকে ৩০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া কাঠের তৈরি তসবি ৫০ থেকে ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে বলে জানালেন দোকানদাররা।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এমআই/টিএস


সর্বশেষ

আরও খবর

সৌন্দর্যসেবায় আয় কমেছে সবার: বেকার ৪০ শতাংশ উদ্যোক্তা-কর্মী

সৌন্দর্যসেবায় আয় কমেছে সবার: বেকার ৪০ শতাংশ উদ্যোক্তা-কর্মী


নতুন মোটরসাইকেল পাচ্ছেন ভাইরাল ফারহানা!

নতুন মোটরসাইকেল পাচ্ছেন ভাইরাল ফারহানা!


নিউ নরমাল: শহরজুড়ে শ্রাবণ ধারা

নিউ নরমাল: শহরজুড়ে শ্রাবণ ধারা


মুক্তচিন্তা প্রকাশের ভীতি কাটাবে লিট ফেস্ট!

মুক্তচিন্তা প্রকাশের ভীতি কাটাবে লিট ফেস্ট!


ঐতিহ্যকে লালন করছে দোয়েল চত্ত্বরের শো-পিস মার্কেট

ঐতিহ্যকে লালন করছে দোয়েল চত্ত্বরের শো-পিস মার্কেট


জেনে নিন কলার গুণাগুণ

জেনে নিন কলার গুণাগুণ


জেনে নিন কিডনি সুস্থ রাখার ৫ উপায়

জেনে নিন কিডনি সুস্থ রাখার ৫ উপায়


রোজাদারদের জন্য কিছু পরামর্শ

রোজাদারদের জন্য কিছু পরামর্শ


নতুন ঢাকাতেও জনপ্রিয় বাকরখানি

নতুন ঢাকাতেও জনপ্রিয় বাকরখানি


খারাপ স্পর্শ বুঝতে শিশুদের শিক্ষা

খারাপ স্পর্শ বুঝতে শিশুদের শিক্ষা