Thursday, June 30th, 2022
‘দেশের সবচেয়ে বড় রাসায়নিক দুর্ঘটনা’
August 23rd, 2016 at 10:52 am
‘দেশের সবচেয়ে বড় রাসায়নিক দুর্ঘটনা’

চট্টগ্রাম: চিটাগাং ইউরিয়া ফার্টিলাইজার কোম্পানি সিইউএফএল সংলগ্ন ডিএপি প্লান্টে বিস্ফোরণের ঘটনা দেশের প্রথম বড় রাসায়নিক দুর্ঘটনা বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এতে প্রায় শতাধিক মানুষ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

সোমবার রাত দশটার দিকে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা পানির প্রবাহ দিয়ে গ্যাসের বিষক্রিয়া নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন। মঙ্গলবার সকাল আটটা পর্যন্ত গ্যাস নি:সরণ অনেক কমে গেলেও তা অব্যাহত ছিলো।

বিস্ফোরণে ডিএপি কারখানার ৫টি ট্যাংকারের মধ্যে একটি ট্যাংকার ফেটে গেছে, এতে প্রায় ৫শ টন তরল অ্যামোনিয়া ছিলো, বিস্ফোরণের পর অপর ট্যাংকারগুলোর সংযোগ লাইন থেকেও গ্যাস বের হয়েছে।

গ্যাস বিশেষজ্ঞ ও চট্টগ্রাম কলেজের ফিজিক্যাল কেমেস্ট্রি বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক ড. নু প ম আকবর হোসেন জানিযেছেন, ডিএপি প্লান্টের ঘটনাটি দেশের প্রথমবারের মত বড় ধরনের রাসয়নিক দুর্ঘটনা, প্রাথমিক অনুমানে এই গ্যাস প্রায় ৫০ বর্গকিলোমিটার এলাকায় ছড়িয়েছে বলে মনে হচ্ছে।

‘দুর্ঘটনাস্থলের আশপাশ সমুদ্র তীরবর্তী খোলা হওয়ার কারণে গ্যাস বাতাসের সাথে দ্রুত ছড়িয়েছে, সমুদ্র তীর এলাকায় বাতাসের গতিবেগ স্বাভাবিকের চেয়েও একটু বেশি থাকে, প্লান্টের বিপরীতে কর্ণফুলী নদীর উত্তর তীরের পতেঙ্গা, হালিশহর ও আনোয়ারা এলাকায় মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়েছিলো’- উল্লেখ করেন তিনি।

ছেবি- গ্যাস

আকবর হোসেন আরো বলেন, ‘অ্যামোনিয়া খুব দ্রুত বাতাসে মিশে যায় এবং এটি সহজে দ্রবিভূত হতে পারে, মূলত; এই কারণে এটি মানব দেহের জন্য তেমন একটা ক্ষতিকর নয়।’

ডিএপি কারখানায় বিস্ফোরণের সাথে সাথে ঘটনাস্থলে ছুটে যাওয়াদের মধ্যে ছিলেন চট্টগ্রাম ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন মাস্টার পূর্ণ চন্দ্র মৃৎসুদ্দী।

তিনি জানান, ‘এতবড় গ্যাস দুর্ঘটনা বাংলাদেশে প্রথম, ফায়ার সার্ভিসের ২৩ বছরের চাকুরী জীবনে এই রকম দুর্ঘটনা আর দেখিনি’।

পূর্ণ চন্দ্র মুৎসুদ্দী জানান, ‘এর আগে ২০০৫সালে কক্সবাজারে এবং ২০০৮সালে চট্টগ্রামের সাগরিকা শিল্প এলাকার দুটি কারখানায় অ্যামোনিয়া ট্যাংকারে বিস্ফোরণ হয়েছিলো, ওই দুর্ঘটনায় বড়জোরে ৪০/৫০ লিটার গ্যাস ছড়িয়ে ছিলো।’

এখানে কয়েক’শ টন অ্যামোনিয়া ছড়িয়েছে, ডিএপি কারখানার ৫টি ট্যাংকারের মধ্যে যেটি বিস্ফোরিত হয়েছে সেটিতে কমপক্ষে ৫শ টন অ্যামোনিয়া ছিলো, বিস্ফোরণে সেখানে বড়সড় গর্তের সৃষ্টি হয়, এই বিস্ফোরণের পরে অন্য ট্যাংকারগুলোর পাইপ থেকেও গ্যাস বের হয়ে আসে’ উল্লেখ করেন তিনি।

মুৎসুর্দ্দী আরো জানান, ‘ফায়ার সার্ভিসের গ্যাস দুর্ঘটনার উপর প্রশিক্ষিত ৩ জন কর্মী রেজাউল করিম, এনামুল হক ও নিউটন দাশ এই দুর্ঘটনা মোকাবেলায় কাজ করছে, এরা থাইল্যান্ড থেকে গ্যাস ও রাসয়নিক দুর্ঘটনার উপর প্রশিক্ষন নিয়েছে।’

এদিকে, চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মেজবাহ ‍উদ্দিন জানান, রাত দশটার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটলেও রাত দুইটার দিকে গ্যাস নি:সরণের মাত্রা কমে আসে, ফলে প্রাথমিকভাবে যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছিলো দ্রুত তা কেটে যায়। সম্ভবত এই ধরনের দুর্ঘটনা দেশে এই প্রথম, যেখানে  এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়- উল্লেখ করেন তিনি।

এই দুর্ঘটনায় শতাধিক মানুষ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে আসেন চিকিৎসা নেওযার জন্য, অসুস্থদের মধ্যে বেশির ভাগই শ্বাস কষ্টে ভুগছেন বলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

প্রতিবেদন: সালেহ নোমান, সম্পাদনা: মাহতাব শফি/সাইফুল ইসলাম

 


সর্বশেষ

আরও খবর

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব


আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন

আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন


চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ

চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ


ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার

ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার


তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন

তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন


অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?

অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?


যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার

যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার


আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০

আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০


সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি

সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি


চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার