Tuesday, September 5th, 2017
দ্বিতীয় দিন নিজেদের করে নিলো অস্ট্রেলিয়া
September 5th, 2017 at 6:14 pm
দ্বিতীয় দিন নিজেদের করে নিলো অস্ট্রেলিয়া

চট্টগ্রাম: অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথের পর ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যান পিটার হ্যান্ডসকম্বের হাফ-সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিনটি নিজেদের করে নিলো সফরকারী অস্ট্রেলিয়া।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের করা ৩০৫ রানের জবাবে ম্যাচের দ্বিতীয় দিন শেষে ২ উইকেটে ২২৫ রান তুলেছে অস্ট্রেলিয়া। ৮ উইকেট হাতে নিয়ে ৮০ রানে পিছিয়ে সফরকারীরা। স্মিথ ৫৮ রানে থামলেও, ওয়ার্নার ৮৮ ও হ্যান্ডসকম্ব ৬৯ রানে অপরাজিত আছেন।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনই মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমানের ৬৬, সৌম্য সরকারের ৩৩, মুমিনুল হকের ৩১ ও সাকিব আল হাসানের ২৪ রানের সাথে অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের অপরাজিত ৬২ ও নাসির হোসেনের অপরাজিত ১৯ রানের কল্যাণে ৬ উইকেটে ২৫৩ রান তুলে বাংলাদেশ।

৬২ রান নিয়ে শুরু করে দ্বিতীয় দিন নিজের ইনিংসটা খুব বেশি বড় করতে পারেননি মুশফিকুর। অস্ট্রেলিয়ার অফ-স্পিনার নাথান লিঁও’র ষষ্ঠ শিকার হয়ে ৬৮ রানে থেমে যান মুশি। ২৫২ মিনিটের লড়াকু ইনিংসে ১৬৬ বল মোকাবেলা করে ৫টি বাউন্ডারি হাকাঁন টাইগার দলপতি। ষষ্ঠ উইকেটে নাসিরের সাথে ৪৩ রানের জুটি গড়েন মুশি।

তবে নাসির চেষ্টা করেছিলেন নিজের ইনিংসটা বড় করতে। মুশফিকুরের বিদায়ের পর বাংলাদেশের রানের চাকা সচল রেখেছিলেন তিনি। কিন্তু তার ইনিংসের সমাপ্তি ঘটে অস্ট্রেলিয়ার স্পিনার অ্যাস্টন আগারের ডেলিভারিতে। উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ৯৭ বলে ৪৫ রান করে থামেন তিনি। তার ১১৫ মিনিটের ইনিংসে ৫টি চার ছিলো।

এরপর টেল-এন্ডারদের মধ্যে মেহেদি হাসান মিরাজ ১১ ও তাইজুল ইসলাম ৯ রানের ছোট্ট দু’টি ইনিংস খেলে বাংলাদেশের স্কোর ৩০০ পার করান। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে তাইজুলের বিদায়ে ৩০৫ রানেই গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এটি বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ। শূন্য রানে অপরাজিত থাকেন মুস্তাফিজুর রহমান। অস্ট্রেলিয়ার নাথান লিঁও ৯৪ রানে ৭টি ও অ্যাস্টন আগার ৫২ রানে ২টি উইকেট নেন।

নিজেদের ইনিংস শুরু করে দ্বিতীয় ওভারেই ধাক্কা খায় অস্ট্রেলিয়া। বাংলাদেশের কাটার মাস্টার পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের তৃতীয় ডেলিভারিতে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ব্যক্তিগত ৪ রানে ফিরেন অস্ট্রেলিয়ার ওপেনার ম্যাট রেনশ।

এরপর দলের হাল ধরেন আরেক ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। বাংলাদেশ বোলারদের বিপক্ষে আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকেন তারা। ফলে শতরানের দোড়গোড়ায় পৌঁছে যায় অস্ট্রেলিয়ার দলীয় স্কোর। এমন সময় বাংলাদেশকে উইকেট শিকারের আনন্দে ভাসান বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম। ব্যক্তিগত ৫৮ রানে থাকা স্মিথকে বোল্ড করেন তাইজুল। ফলে বিছিন্ন হয়ে যায় ওয়ার্নার ও স্মিথ জুটি। দ্বিতীয় উইকেটে ৯৩ রান যোগ করেন তারা। টেস্ট ক্যারিয়ারের ২১তম হাফ-সেঞ্চুরি পাওয়া ইনিংসে ৮টি বাউন্ডারি মারেন স্মিথ।

দলীয় ৯৮ রানে স্মিথের বিদায়ের পর দলকে সামনে এগিয়ে নেয়ার দায়িত্ব পান ওয়ার্নার ও পিটার হ্যান্ডসকম্ব। সেই কাজটা দক্ষতার সাথেই করেছেন তারা। দিন শেষে ১২৭ রানের জুটিতে অটুট ছিলেন দু’জনে। তাই ২ উইকেটে ২২৫ রান তুলে দ্বিতীয় দিনটি নিজেদের করে রাখতে পারলো অস্ট্রেলিয়া।

টেস্ট ক্যারিয়ারের ২৫তম হাফ-সেঞ্চুরি তুলে ৪টি চারের সহায়তায় ১৭০ বলে ৮৮ রানে অপরাজিত ওয়ার্নার। এই ইনিংস খেলার পথে দু’বার জীবন পেয়েছেন ওয়ার্নার। আর টেস্ট ক্যারিয়ারের চতুর্থ হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নিয়ে ৬৯ রানে অপরাজিত হ্যান্ডসকম্ব। তার ১১৩ বলের ইনিংসে ৫টি চার ছিলো। বাংলাদেশের মুস্তাফিজুর ও তাইজুল ১টি করে উইকেট নেন।

স্কোর কার্ড:

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস (আগের দিন ২৫৩/৬)

তামিম ইকবাল এলবিডব্লু ব লিঁও ৯

সৌম্য সরকার এলবিডব্লু ব লিঁও  ৩৩

ইমরুল কায়েস এলবিডব্লু ব লিঁও ৪

মোমিনুল হক এলবিডব্লু ব লিঁও  ৩১

সাকিব আল হাসান ক ওয়েড ব আগার ২৪

মুশফিকুর রহিম বোল্ড ব লিঁও    ৬৮

সাব্বির রহমান স্টাম্পিং ওয়েড ব লিঁও ৬৬

নাসির হোসেন ক ওয়েড ব আগার      ৪৫

মেহেদি হাসান মিরাজ রান আউট (ওয়ার্নার)  ১১

তাইজুল ইসলাম ক স্মিথ ব লিঁও ৯

মুস্তাফিজুর রহমান অপরাজিত   ০

অতিরিক্ত (বা-৫)   ৫

মোট (অলআউট, ১১৩.২ ওভার)      ৩০৫

উইকেট পতন: ১/১৩ (তামিম), ২/২১ (ইমরুল), ৩/৭০ (সৌম্য), ৪/৮৫ (মোমিনুল), ৫/১১৭ (সাকিব), ৬/২২২ (সাব্বির), ৭/২৬৫ (মুশফিকুর), ৮/২৯৩ (নাসির), ৯/২৯৬ (মিরাজ), ১০/৩০৫ (তাইজুল)।

অস্ট্রেলিয়া বোলিং:

প্যাট কামিন্স: ২২-৫-৪৬-০,

নাথান লিঁও: ৩৬.২-৭-৯৪-৭,

স্টিভ ও’কেফি: ২৩-০-৭৯-০,

অ্যাস্টন আগার: ২৩-৯-৫২-২,

গ্লেন ম্যাক্সওয়েল: ৪-০-১৩-০,

হিল্টন কার্টরাইট: ৫-১-১৬-০।

অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংস:

ম্যাট রেনশ ক মুশফিকুর ব মুস্তাফিজুর ৪

ডেভিড ওয়ার্নাও অপরাজিত ৮৮

স্টিভেন স্মিথ বোল্ড ব তাইজুল ৫৮

পিটার হ্যান্ডসকম্ব অপরাজিত    ৬৯

অতিরিক্ত (বা-৪, লে বা-২)       ৬

মোট (২ উইকেট, ৬৪ ওভার)  ২২৫

উইকেট পতন: ১/৫ (রেনশ), ২/৯৮ (স্মিথ)।

বাংলাদেশ বোলিং:

মিরাজ: ২০-২-৫৩-০,

মুস্তাফিজুর: ১০-০-৪৫-১,

সাকিব: ১৫-০-৫২-০,

তাইজুল: ১৫-১-৫০-১,

নাসির: ১-০-৪-০,

মোমিনুল: ২-০-৬-০,

সাব্বির: ১-০-৯-০।

প্রকাশ: জাই


সর্বশেষ

আরও খবর

পাগলা মিজানের কাছে মিললো ৮ কোটির চেক-এফডিআর-অস্ত্র

পাগলা মিজানের কাছে মিললো ৮ কোটির চেক-এফডিআর-অস্ত্র


শান্তিতে নোবেল পেলেন ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী অ্যাবি আহমেদ

শান্তিতে নোবেল পেলেন ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী অ্যাবি আহমেদ


বুয়েটে রাজনীতি নিষিদ্ধ ঘোষণা

বুয়েটে রাজনীতি নিষিদ্ধ ঘোষণা


আবরার হত্যায় আসামি পক্ষের আইনজীবীকে বিএনপি থেকে বহিষ্কার

আবরার হত্যায় আসামি পক্ষের আইনজীবীকে বিএনপি থেকে বহিষ্কার


বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন

বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন


দাবি আদায়ে আজও বুয়েটে বিক্ষোভ চলছে

দাবি আদায়ে আজও বুয়েটে বিক্ষোভ চলছে


আবরার হত্যাকাণ্ডে আরও ৩ বুয়েটছাত্র গ্রেপ্তার

আবরার হত্যাকাণ্ডে আরও ৩ বুয়েটছাত্র গ্রেপ্তার


শিক্ষার্থীদের সামনে এসে তোপের মুখে বুয়েট ভিসি

শিক্ষার্থীদের সামনে এসে তোপের মুখে বুয়েট ভিসি


ঢাবির মুহসীন হল থেকে অস্ত্রসহ দুই ছাত্রলীগ নেতা আটক

ঢাবির মুহসীন হল থেকে অস্ত্রসহ দুই ছাত্রলীগ নেতা আটক


যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন বুধবার

যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন বুধবার