Wednesday, November 9th, 2016
নিজস্ব খরচে ভাঙতে হবে বিজিএমইএ ভবন
November 9th, 2016 at 12:08 pm
নিজস্ব খরচে ভাঙতে হবে বিজিএমইএ ভবন

ঢাকা: হাতিরঝিল প্রকল্প এলাকায় বেআইনিভাবে গড়ে তোলা বিজিএমইএর ১৬ তলা ভবন নিজেদের খরচে ভেঙে ফেলার নির্দেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

বিজিএমইএ ভবন ভাঙ্গতে ব্যর্থ হলে রায়ের কপি পাওয়ার ৯০ দিনের মধ্যে রাজউক ভবনটি অপসারণ করবে। এজন্য বিজিএমইএ’র কাছ থেকে খরচ নেবে। রায়টি দ্রুত কার্যকরের জন্য যথাযথ ব্যবস্থা নিতে রাজউককে রায়ের কপি সরবরাহ করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া এ ভবনের বিষয়ে হাইকোর্ট আর যেসব নির্দেশনা দিয়েছেন তাও বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। আইনী প্রক্রিয়া অনুযায়ী বিজিএমইএ আপিল বিভাগের রায় পুনর্বিবেচনার জন্য রায়ের কপি পাওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে রিভিউ আবেদন করতে পারবে।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের চার বিচারপতির বেঞ্চের দেওয়া ৩৬ পৃষ্ঠার এ রায় মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। ওই ভবন রক্ষার জন্য হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার অনুমতি চেয়ে (লিভ টু আপিল) বিজিএমইএ’র করা আবেদন গত ২ জুন খারিজ করেন দেশের সর্বোচ্চ আদালত আপিল বিভাগ।

আদালত রায়ে বলেন, ইমারত বিল্ডিং নির্মাণের সকল আইন লংঘন করা হয়েছে পোষাক প্রস্ততকারী ও রপ্তানীকারক সংগঠনের ভবন তৈরীর সময়। ভবন নির্মাণেনের জন্য জলাধার আইন-২০০০ এবং পরিবেশ সংরক্ষণ আইন-১৯৯৫ অনুযায়ী পরিবেশগত ছাড়পত্র নিতে হয়। এখানে সেটা অনুপস্থিত। অবৈধভাবে জমি হস্তান্তরের পর অবৈধভাবে ভহুতল ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। এ ভবনটি দেশের সকল আইন লংঘন করে নির্মাণ করা হয়েছে- এটা বলতে আমাদের কোনো দ্বিধা নেই।

আপিল বিভাগের রায়ে বলা হয়েছে, দুটি প্রাকৃতিক জলাধার বেগুনবাড়ি খাল ও হাতিরঝিল লেকের ওপর ভবনটি নির্মান করা হয়েছে। এই জলাধার দুটি থেকে পানি ক্যানেলের মাধ্যমে বুড়িগঙ্গা নদীতে যেয়ে পড়ে। রাজধানী ঢাকাকে জলাবদ্ধতা ও বন্যা থেকে রক্ষার জন্য গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা রয়েছে এ দুটি জলাধারের। এছাড়া এই দুটি জলাধার ঘিরে সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য সরকার এক হাজার ৪শ ৮০ কোটি টাকার প্রকল্প নিয়েছে। এ অবস্থায় হাইকোর্টের রায় বাতিল করার বা হস্তক্ষেপ করা যুক্তিসংগত কোনো কারণ দেখাতে পারেননি আবেদনকারীপক্ষ(বিজিএমইএ)।

রায়ে বলা হয়, ভবনটি রক্ষার জন্য আবেদনকারীর আইনজীবীরা বলেছেন যে, এই সংগঠনের সঙ্গে ৪৫ লাখ শ্রমিকের স্বার্থ জড়িত। বিজিএমইএর কারণে সারাদেশে ৪/৫ কোটি মানুষ উপকৃত হচ্ছে। জিডিপির হার বাড়ানোর জন্য এ সংগঠনের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাদের এ বক্তব্য যুক্তি সংগত হলেও আইন অনুযায়ী জমির মালিকানার যথাযথ কাগজপত্র দেখাতে হবে। কিন্তু এক্ষেত্রে সেটা অনুপস্থিত।

রায়ে বলা হয়, ভবন নির্মাণ আইন-১৯৯৬ অনুযায়ী রাজউক থেকে নকশা অনুমোদনের জন্য জমির মালিকানার প্রমাণপত্র দাখিল করতে হয়। জমির মালিকানা সঠিক হলে আইন অনুযায়ী রাজউক নকশা অনুমোদন করতে পারে। কিন্তু এক্ষেত্রে আলোচিত জমিটি রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) কাছ থেকে নিয়েছে বিজিএমইএ। অথচ ইপিবি এই জমির মালিকই নয়। রায়ে জমির মালিকানা সংক্রান্ত তথ্য বিস্তারিতভাবে উল্লেখ করা হয়েছে।

হাইকোর্ট ২০১১ সালের ৩ এপ্রিল ওই ভবনটিকে ‘হাতিরঝিল প্রকল্পে একটি ক্যান্সারের মতো’ উল্লেখ করে তা রায় প্রকাশের ৯০ দিনের মধ্যে ভেঙে ফেলতে সরকারকে নির্দেশ দেন। ২০১৩ সালের ১৯ মার্চ হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়। এ রায়ের কপি পাওয়ার পর আপিল বিভাগে আপিল করার অনুমতি চেয়ে (লিভ টু আপিল) আবেদন করে বিজিএমইএর সভাপতি। শুনানি শেষে এ আবেদন গত ২ জুন খারিজ করা হয়।

রাজউকের অনুমোদন ছাড়াই বিজিএমইএ ভবন নির্মাণ করা নিয়ে ২০১০ সালের ২ অক্টোবরি একটি ইংরেজি দৈনিকে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনটি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ডিএইচএম মনির উদ্দিন আদালতে উপস্থাপন করেন। পরদিন ৩ অক্টোবর বিজিএমইএ ভবন কেন ভাঙার নির্দেশ দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে হাইকোর্ট স্বঃপ্রণোদিত হয়ে (সুয়োমোটো) রুল জারি করেন। এ রুলের ওপর শুনানি শেষে হাইকোর্ট রায় দেন।

১৯৯৮ সালের ২৮ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিজিএমইএ ভবনটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। ভবন নির্মাণ শেষ হলে ২০০৬ সালের ৮ অক্টোবর বিজিএমইএ ভবন উদ্বোধন করেন সে সময়কার প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। এরপর থেকে বিজিএমইএ ভবনটি তাদের প্রধান কার্যালয় হিসেবে ব্যবহার করছে।

প্রতিবেদক: ফায়েজ, সম্পাদনা: জাবেদ


সর্বশেষ

আরও খবর

মহামারী, পাকস্থলির লকডাউন ও সহমতযন্ত্রের নরভোজ

মহামারী, পাকস্থলির লকডাউন ও সহমতযন্ত্রের নরভোজ


করোনায় আরও ৩৯ মৃত্যু

করোনায় আরও ৩৯ মৃত্যু


করোনায় আক্রান্ত শচীন

করোনায় আক্রান্ত শচীন


শুক্র ও শনিবার যান চলাচল নিয়ন্ত্রিত থাকবে

শুক্র ও শনিবার যান চলাচল নিয়ন্ত্রিত থাকবে


মতিঝিলে মোদিবিরোধী বিক্ষোভ, শিশুবক্তা রফিকুলসহ অন্তত ১০ জন আটক

মতিঝিলে মোদিবিরোধী বিক্ষোভ, শিশুবক্তা রফিকুলসহ অন্তত ১০ জন আটক


৮ মাস পর দেশে করোনায় এক দিনে সর্বোচ্চ ৩৫৫৪ শনাক্ত

৮ মাস পর দেশে করোনায় এক দিনে সর্বোচ্চ ৩৫৫৪ শনাক্ত


শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্রে ১৪ জঙ্গিকে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড

শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্রে ১৪ জঙ্গিকে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড


শবে বরাতের ছুটি ৩০ মার্চ

শবে বরাতের ছুটি ৩০ মার্চ


গান্ধী শান্তি পুরস্কারে ভূষিত হলেন বঙ্গবন্ধু

গান্ধী শান্তি পুরস্কারে ভূষিত হলেন বঙ্গবন্ধু


করোনায় আক্রান্ত ইমরান খান

করোনায় আক্রান্ত ইমরান খান