Saturday, February 18th, 2017
নির্বাচনে আসা না আসার দ্বন্দ্বে বিএনপি
February 18th, 2017 at 7:02 pm
নির্বাচনে আসা না আসার দ্বন্দ্বে বিএনপি

শেখ রিয়াল, ঢাকা: আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্তে দ্বিধা-দ্বন্দ্বের মধ্যে রয়েছে বিএনপি। অন্তত দলের নেতাদের বক্তব্যে এমনটা পরিস্কার। কেননা দলের সিনিয়র নেতাদের বক্ত্যের মধ্যেই রয়েছে বিভ্রান্তি। কেউ বলছেন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিবে আবার কোনো সিনিয়র নেতা বলছেন বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিবে না।

শনিবার বিকেলে ভোলায় আয়োজিত এক আলোচনা সভায় দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরি ও সহায়ক সরকার গঠন করা হলে আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি।

বগুড়া শহরে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের জাতীয়তাবাদী কৃষকদলের সম্মেলন উপলক্ষে আয়োজিত প্রস্তুতি সভায় দলের ভাইস চেয়ারম্যন শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ‘আগামী জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে। সেই নির্বাচনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোট জয়লাভ করে ক্ষমতায় যাবে। আর খালেদা জিয়াই হবে দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী।’

অন্যদিকে জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুল দিতে এসে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচনে গেলে ২০১৪ সালেই নির্বাচনে যেতাম, তাহলে আবার পাঁচ বছর পরে যাব কেন?’

তিনি বলেন, ‘আমরা দলীয় ভাবে বসি নাই। দলের মধ্যে নানা রঙ্গের লোক আছে, নানা মতের লোক আছে। বিষয়টা আমরা জানি না। পত্রিকার ভাষায় যেটা আসছে সেটা দেখে আমরা দলীয় ভাবে সিদ্ধান্ত নেব। কারণ সুটকির নৌকায় বিড়াল পাহারাদার রাখলে কি হবে? এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। শেখ হাসিনার অধীনে যদি নির্বাচনেই যাব তবে ২০১৪ সালে নির্বাচনে যেতে পারতাম।’

তবে বিএনপির দলীয় সূত্রে জানা গেছে, শেখ হাসিনাকে প্রধান করে নির্বাচনকালীন সরকারের প্রস্তাব করবে বিএনপি। এ বিষয়ে দলের সিনিয়র কোনো নেতাই এখনো গণমাধ্যমে কোনো বক্তব্য দেয়নি। সিনিয়র নেতাদের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন, দলীয়ভাবে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। কারো একক বক্তব্য দলের বক্তব্য নয়। দলীয় ভাবে যা সিদ্ধান্ত হবে তাই বিএনপির সিদ্ধান্ত।

দলীয় সূত্রে আরো জানা গেছে, সার্চ কমিটি এবং নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য সংবাদ সম্মেলন করে খালেদা জিয়া যেমন ১৩ দফা প্রস্তাবনা দিয়েছিল ঠিক একই আকারে কয়েক দিনের মধ্যেই সহায়ক সরকার নিয়েও খালেদা জিয়া সংবাদ সম্মেলন করে সরকারের কাছে প্রস্তাবনা পেস করবেন।

বিএনিপর সিনিয়র নেতাদের সাথে কথা বললে তারা জানায়, আগামী জাতীয় নির্বাচন বিএনপি অংশ নিবে। তবে সেই নির্বাচন হতে হবে সহায়ক সরকারের অধীনে। শেখ হাসিনার দ্বারা গঠিত সরকারের অধীনে অংশ নিবে না বিএনপি। দলীয় ভাবে সরকারকে বাধ্য করা হবে নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার গঠন করার জন্য।

যদিও শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই আগামী জাতীয় নির্বাচন হবে। প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করবেন। তিনি যাকে নির্বাচনকালীন সরকারে নিবেন বলে মনে করেন তাদের নিয়েই নির্বাচন পরিচালিত হবে। এটা সংবিধানে আছে এবং পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে এর প্রচলনও আছে।’

সম্পাদনা: সজিব ঘোষ


সর্বশেষ

আরও খবর

উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে শাবি শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশন

উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে শাবি শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশন


দেশে আরও ৯৫০০ জনের করোনা শনাক্ত, হার ২৫ ছাড়াল

দেশে আরও ৯৫০০ জনের করোনা শনাক্ত, হার ২৫ ছাড়াল


টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী


অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন

অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন


আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর

আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর


এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী

এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী


কমলো এলপিজির দাম

কমলো এলপিজির দাম


উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন


ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব

ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব