Sunday, October 28th, 2018
পরিবহন ধর্মঘটে চরম ভোগান্তিতে নগরবাসী
October 28th, 2018 at 11:41 am
পরিবহন ধর্মঘটে চরম ভোগান্তিতে নগরবাসী

ঢাকা: রাজধানীজুড়ে সড়কে সড়কে হাজারও মানুষের ভিড়। সকাল থেকে পরিবহন না পেয়ে দিশেহারা রাজধানীবাসী। গণপরিবহনের জন্য হাহাকার বইছে রাজধানীর সড়কগুলোতে। দীর্ঘ অপেক্ষার পরও গন্তব্যে পৌঁছাতে পারছেন না সাধারণ মানুষ। শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে ঢাকাসহ গোটা দেশ।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের ডাকে আজ সকাল ছয়টা থেকে এই ধর্মঘট শুরু হয়। চলবে মঙ্গলবার সকাল ছয়টা পর্যন্ত। সড়ক পরিবহন খাতের শ্রমিকদের এই সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান। দাবি আদায় না হলে ৩০ অক্টোবর থেকে লাগাতার ধর্মঘটের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন সংগঠনটির নেতারা।

সংসদে সদ্য পাস হওয়া ‘সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮’ এর কয়েকটি ধারা সংশোধনসহ আট দফা দাবি আদায়ে সারাদেশে ডাকা ৪৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘটে এমন অবস্থা রাজধানীর সড়কগুলোতে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, কেউ কেউ পিকআপে চেপে বসেছেন গন্তব্যে যেতে। কেউ মোটরসাইকেল, আবার কেউ রিকশায় চেপে বসেছেন। রোগীদেরও ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। তবে বেশিরভাগ যাত্রীই পায়ে হেঁটে রওনা দিচ্ছেন।

শনিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন। ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা কয়েক হাজার পরিবহন শ্রমিক সমাবেশে অংশ নেন। সেখানে সংসদে পাস হওয়া ‘সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ এর কয়েকটি ধারা সংশোধন এবং আট দফা দাবি পূরণের আহ্বান জানানো হয়। ঘোষণা করা হয় ৪৮ ঘণ্টার ধর্মঘট কর্মসূচি।

পরিবহন শ্রমিকদের আট দফা দাবি হলো :

১. সড়ক দুর্ঘটনায় মামলা জামিনযোগ্য করতে হবে;

২. শ্রমিকদের অর্থদণ্ড ৫ লাখ টাকা করা যাবে না;

৩. সড়ক দুর্ঘটনা তদন্ত কমিটিতে শ্রমিক প্রতিনিধি রাখতে হবে;

৪. ড্রাইভিং লাইসেন্সে শিক্ষাগত যোগ্যতা পঞ্চম শ্রেণি করতে হবে;

৫. ওয়েটস্কেলে (ট্রাক ওজন স্কেল) জরিমানা কমানোসহ শাস্তি বাতিল করতে হবে;

৬. সড়কে পুলিশের হয়রানি বন্ধ করতে হবে;

৭. গাড়ির রেজিস্ট্রেশনের সময় শ্রমিকদের নিয়োগপত্র সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সত্যায়িত স্বাক্ষর থাকার ব্যবস্থা করতে হবে;

৮. সব জেলায় শ্রমিকদের ব্যাপকহারে প্রশিক্ষণ দিয়ে ড্রাইভিং লাইসেন্স ইস্যু করতে হবে এবং লাইসেন্স ইস্যুর ক্ষেত্রে দুর্নীতি ও অনিয়ম বন্ধ করতে হবে।

নিজস্ব প্রতিবেদক, সম্পাদনা: এম কে রায়হান


সর্বশেষ

আরও খবর

টেকনাফে ২ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

টেকনাফে ২ মাদক ব্যবসায়ী নিহত


বাংলাদেশ কারও পৈত্রিক সম্পত্তি নয়: ড. কামাল

বাংলাদেশ কারও পৈত্রিক সম্পত্তি নয়: ড. কামাল


কেন্দ্র ও ব্যালট বাক্স পাহারা দেয়ার প্রয়োজন হবে না: সিইসি

কেন্দ্র ও ব্যালট বাক্স পাহারা দেয়ার প্রয়োজন হবে না: সিইসি


চট্টগ্রামে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভা চলছে

চট্টগ্রামে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভা চলছে


নৌকায় ভোট দিলে উন্নয়ন ও লোকজনের কর্মসংস্থান হবে: প্রধানমন্ত্রী

নৌকায় ভোট দিলে উন্নয়ন ও লোকজনের কর্মসংস্থান হবে: প্রধানমন্ত্রী


শাহবাগে সাধারণ শিক্ষার্থীদের অবরোধ

শাহবাগে সাধারণ শিক্ষার্থীদের অবরোধ


সৌম্য-ইমরুলের সেঞ্চুরিতে ‘বাংলাওয়াশ’ জিম্বাবুয়ে

সৌম্য-ইমরুলের সেঞ্চুরিতে ‘বাংলাওয়াশ’ জিম্বাবুয়ে


চাঁদপুরে মেম্বারের বাড়ি থেকে ৭৫০ মণ ইলিশ জব্দ

চাঁদপুরে মেম্বারের বাড়ি থেকে ৭৫০ মণ ইলিশ জব্দ


বিকল্পধারায় শমসের মবিন, গোলাম সারোয়ার ও নাজিম উদ্দিন

বিকল্পধারায় শমসের মবিন, গোলাম সারোয়ার ও নাজিম উদ্দিন


বাচ্চু যখন রেওয়াজ করতেন, পাশের বাসা থেকে পানি, ঢিল মারতো

বাচ্চু যখন রেওয়াজ করতেন, পাশের বাসা থেকে পানি, ঢিল মারতো