Sunday, August 7th, 2016
‘পাট ক্রয়ে মানের ব্যত্যয় না ঘটে’
August 7th, 2016 at 8:46 pm
‘পাট ক্রয়ে মানের ব্যত্যয় না ঘটে’

ঢাকা: বেল আকারে পাট কিনলে গুণগত মান অটুট থাকে। আগে খোলা আকারে পাট কেনা হতো, তাতে গুণগত মান নিয়ে সন্দেহ থাকতো। তাই বেল আকারে পাট কিনতে হবে, যেন গুণগত মানের ব্যত্যয় না ঘটে।

রোববার রাজধানীর দিলকুশায় বাংলাদেশ জুট মিলস করপোরেশনের (বিজেএমসি) কার্যালয়ে পাটকলগুলোর প্রকল্প প্রধান, পাট ব্যবস্থাপক এবং হিসাব ব্যবস্থাপকদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম এসব কথা বলেন। মতবিনিময় সভার বিষয়বস্তু ছিলো- উৎপাদন, পাটক্রয় ও সার্বিক বিষয়।

এ সময় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিব এম এ কাদের সরকার, বাংলাদেশ জুটমিলস করপোরেশনের (বিজেএমসি) এর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এ কে নাজমুজ্জামান, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব মতিউর রহমানসহ  বিভিন্ন   বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় ও বিজেএমসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন।

পাট প্রতিমন্ত্রী বলেন, এবছর থেকে পাটকলগুলোতে ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশন  সম্পন্ন করা হয়েছে। যাতে বছর শেষে মিলগুলোর কী পরিমাণ সম্পদ আছে বা কি কি সম্পদ নষ্ট হচ্ছে বা কী পরিমাণ পাট মজুদ আছে তা জানা যাবে। আগে মিলগুলোর সম্পদের পরিমাণ পরিপূর্ণভাবে জানা সম্ভব হতো না। এ জন্য পাটকলগুলোতে ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশন চালু করা হয়েছে এবং তা অব্যাহত থাকবে।

তিনি বলেন, এখন থেকে প্রত্যেক পাটকলগুলোকে অর্থ-বছর শেষে আলাদা আলাদা ভাবে  তার লাভ-লোকসানের হিসাব বিজেএমসিতে জমা দিতে হবে। এ কাজটা আগে বিজেএমসি সামগ্রিক ভাবে করত। এতে সুনিদৃষ্টভাবে বোঝা যাবে কোন মিলের পারফরমেন্স কেমন।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে বিজেএমসির পাট ক্রয় কেন্দ্র ১৮০টি থেকে ৫৬টিতে নামিয়ে আনা হয়েছে। বিজেএমসির লোকসান কমাতে সবার সম্মতিক্রমে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আগে পাট ক্রয় কেন্দ্র বেশি থাকার কারণে সঠিকভাবে মনিটরিং করা সম্ভব হতো না। এ কারণে তা কমিয়ে আনা হয়েছে। পাশপাশি পাট ক্রয়ের ক্ষেত্রে সকল অনিয়ম হ্রাস করা সম্ভব হবে।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/ডিএম/জাই


সর্বশেষ

আরও খবর

ই-কমার্স বন্ধ না করে প্রতারণা ঠেকাতে আইন করার মতামত ৪ মন্ত্রীর

ই-কমার্স বন্ধ না করে প্রতারণা ঠেকাতে আইন করার মতামত ৪ মন্ত্রীর


ভারতে দুই হাজার টন ইলিশ রফতানির অনুমতি

ভারতে দুই হাজার টন ইলিশ রফতানির অনুমতি


ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জসহ ১০ ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থার সুপারিশ

ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জসহ ১০ ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থার সুপারিশ


সঞ্চয়পত্র কিনতে মিথ্যা তথ্য দিলে জেল-জরিমানা

সঞ্চয়পত্র কিনতে মিথ্যা তথ্য দিলে জেল-জরিমানা


কারখানা শ্রমিকদের আলাদা ভ্যাকসিন কর্মসূচি শুরু হবে

কারখানা শ্রমিকদের আলাদা ভ্যাকসিন কর্মসূচি শুরু হবে


জনছায়া ফাউন্ডেশনের  খাদ্য বিতরণ কর্মসূচী

জনছায়া ফাউন্ডেশনের খাদ্য বিতরণ কর্মসূচী


শিল্প কারখানা খুলছে ১ আগস্ট থেকে

শিল্প কারখানা খুলছে ১ আগস্ট থেকে


কোরবানির পশুর কাঁচা চামড়ার দাম নির্ধারণ

কোরবানির পশুর কাঁচা চামড়ার দাম নির্ধারণ


ইভ্যালির ৩৩৯ কোটি টাকার অনুসন্ধানে নেমেছে দুদক

ইভ্যালির ৩৩৯ কোটি টাকার অনুসন্ধানে নেমেছে দুদক


লকডাউনে ব্যাংকে লেনদেন করা যাবে ১০টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত

লকডাউনে ব্যাংকে লেনদেন করা যাবে ১০টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত