Thursday, July 7th, 2022
পায়রার যাত্রা আজ
August 13th, 2016 at 10:32 am
পায়রার যাত্রা আজ

ঢাকা: বাংলাদেশের নিজস্ব অর্থায়নে নির্মাণাধীন পদ্মা সেতুর পণ্য খালাসের মাধ্যমে শনিবার আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হচ্ছে পায়রা সমুদ্র বন্দরের কার্যক্রম। এছাড়া যাত্রাবাড়ি থেকে কাঁচপুর পর্যন্ত দেশের প্রথম আটলেন বিশিষ্ট মহাসড়কসহ পাঁচটি উন্নয়ন প্রকল্পও উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার বেলা ১১টার দিকে প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে পায়রা সমুদ্র বন্দরসহ পাঁচটি উন্নয়ন প্রকল্পের কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন।

অপর তিনটি উন্নয়ন প্রকল্প হলো- পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের অধীন ছয়টি উপজেলার একশ’ভাগ বিদ্যুতায়ন, সারাদেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন এবং ধীরগতির যান চলাচলের জন্য যাত্রাবাড়ি থেকে মাওয়া এবং পাঁচচর থেকে ভাঙা পযর্ন্ত পৃথক সার্ভিস লেনসহ চারলেন প্রকল্পের (পদ্মা সেতু সংযোগ সড়ক) আপগ্রেডেশন কাজ।

এদিকে পায়রা বন্দর উদ্বোধনকে ঘিরে কলাপাড়া পৌরশহরসহ বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে শোভা পাচ্ছে রঙ-বেরঙের ব্যানার, ফেস্টুন এবং পোস্টার। পায়রা বন্দরের প্রবেশ দ্বারে নির্মাণ করা হয়েছে বর্ণাঢ্য গেট।

গত ১ আগস্ট বিকেলের দিকে মাদার ভ্যাসেল এমভি ফরচুন বার্ড চিন থেকে সমুদ্র পথে ৫৩ হাজার টন পাথর পদ্মা সেতুর জন্য পায়রা সমুদ্র বন্দরের বহির্নোঙরে আসে। আনুষ্ঠানিকতার মধ্যদিয়ে পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে পণ্য আমদানি ও রপ্তানি নৌপথে শুরু হবে বলে বন্দর কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছে।

বন্দর কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, অর্থনীতির প্রবৃদ্ধির সাথে সঙ্গতি রেখে সমুদ্রবন্দর কার্যক্রমকে আরও গতিশীল করতে পটুয়াখালীর কলাপাড়ার রামনাবাদ চ্যানেলের তীরে নির্মিত হয়েছে দেশের তৃতীয় সমুদ্র বন্দর পায়রা। বিদ্যমান দুটি বন্দরের পাশাপাশি তৃতীয় একটি বন্দর নির্মাণের মাধ্যমে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলতে নেওয়া হয়েছে দীর্ঘমেয়াদি ও চতুর্মুখী পরিকল্পনা। ১০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের মহা পরিকল্পনা নিয়ে ২০১৩ সালের ৫ নভেম্বর সংসদে পাস হয় পায়রা বন্দর অধ্যাদেশ-২০১৩। একই বছর ১৯ নভেম্বর বন্দরের ভিত্তি ফলক উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

২০২১ সালের মধ্যে দেশের প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়ার প্রচেষ্টার অংশ হিসাবে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের অধীন ৬টি উপজেলার একশ’ভাগ বিদ্যুতায়ন কর্মসূচির উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উপ-জেলাসমূহ হচ্ছে- গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া, নারায়ণগঞ্জের বন্দর, নরসিংদীর পলাশ, চট্টগ্রামের বোয়ালখালী, কুমিল্লার আদর্শ সদর এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাট। এছাড়া ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ট্রাফিক জ্যাম নিরসনের লক্ষ্যে সড়ক ও মহাসড়ক অধিদপ্তর যাত্রাবাড়ি থেকে কাচঁপুর পযর্ন্ত আটলেন বিশিষ্ট মহাসড়ক প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করে। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গত মঙ্গলবার সড়কটি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের বলেন, এই প্রকল্প বাস্তবায়নে ১৩২ কোটি টাকা ব্যায় হয়েছে।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/ওয়াইএ


সর্বশেষ

আরও খবর

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব


চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ

চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ


ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার

ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার


চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার


বাংলাদেশে তেল বেঁচতে চায় রাশিয়া

বাংলাদেশে তেল বেঁচতে চায় রাশিয়া


বাংলাদেশ মডেল অনুসরনের পরামর্শ শ্রীলঙ্কাকে

বাংলাদেশ মডেল অনুসরনের পরামর্শ শ্রীলঙ্কাকে


কমলো এলপিজির দাম

কমলো এলপিজির দাম


ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে ইভ্যালি কর্তৃপক্ষ

ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে ইভ্যালি কর্তৃপক্ষ


পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার করলো জাতীয় রাজস্ব বোর্ড

পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার করলো জাতীয় রাজস্ব বোর্ড


ই-কমার্সে প্রতারণার শাস্তি অবশ্যই হবে; হুঁশিয়ারি প্রধানমন্ত্রীর

ই-কমার্সে প্রতারণার শাস্তি অবশ্যই হবে; হুঁশিয়ারি প্রধানমন্ত্রীর