Tuesday, October 18th, 2016
পুলিশি বাধায় মোদিকে চিঠি দেয়া হলো না তেল গ্যাস কমিটির
October 18th, 2016 at 3:36 pm
পুলিশি বাধায় মোদিকে চিঠি দেয়া হলো না তেল গ্যাস কমিটির

ঢাকা: রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্প বাতিলের দাবিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে লেখা খোলা চিঠি ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনারের কাছে পৌঁছে দিতে গিয়ে পুলিশি বাধার মুখ ফিরে এসেছে তেল-গ্যাস, খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি। এসময় আহত হয় ১৫ জন।

এ ঘটনার প্রতিবাদে ২০ অক্টোবর ঢাকাসহ সারা দেশে বিক্ষোভ করবে কমিটি। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে কমিটির নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন বাম সংগঠনের নেতাকর্মীরা জড়ো হন। সেখানে তারা সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন। এরপর সেখান থেকে দুপুর পৌনে ১২টার দিকে মিছিল নিয়ে তারা বিজয়নগর ও শান্তিনগর হয়ে গুলশানের দিকে এগিয়ে যান।

কিন্তু দুপুর ১টার পর মৌচাক মোড়ে মিছিলটি পৌঁছালে পুলিশ বাধা দেয়। একপর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে ধ্বস্তাধ্বস্তি হলে পুলিশ কাঁদানে গ্যাসের শেল ছোড়ে। ফলে ছত্রভঙ্গ হয়ে পড়ে নেতাকর্মীরা। এতে আহত হয় ১৫ জন।

জাতীয় কমিটির সদস্যসচিব আনু মুহাম্মদ বলেন, “পুলিশের এ বাধা অগণতান্ত্রিক। চিঠি দিতে যাওয়া স্বাভাবিক একটি ঘটনা। এটি গণতান্ত্রিক অধিকার। অত্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে আমরা দাবি তুলে ধরছি। পুলিশের এ বাধা বাড়াবাড়ি। রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্প বাতিলের দাবিতে আমাদের কর্মসূচি চলবে।”

ঘটনাস্থলে থাকা ঢাকা মহানগর পুলিশের পরিদর্শক জাহিদুল বলেন, “মিছিলটিকে মালিবাগে পৌঁছালে তাদের থামতে বলা হয়। আরো বলা হয়, চাইলে একটি প্রতিনিধি দল গিয়ে চিঠিটি দিয়ে আসতে পারে। এরপরও মিছিলটি পুলিশি অবরোধ পেরোতে চাইলে পুলিশ কাঁদানে গ্যাসের শেল ছোড়ে।”

এর আগে বেলা ১১টার দিকে প্রেসক্লাবের সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মোদির উদ্দেশ্যে লেখা খোলা চিঠিটি পাঠ করেন আনু মুহাম্মদ। চিঠিতে বলা হয়, কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বাংলাদেশেই যদি করতে হয়, তাহলে অন্য কোথাও করা হোক। সেখানে পরিবেশের এত বড় ক্ষতি হবে না। কিন্তু সুন্দরবন একটি। এটিকে ধ্বংস করা চলবে না।

এসময় আরো বক্তব্য দেন কমিটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী শেখ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক তানজিম আহমেদ।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: আবু তাহের


সর্বশেষ

আরও খবর

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি


দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির

দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির


খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী

খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী


যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি

১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি


২১ দিন পর বৃহস্পতিবার থেকে সড়কে গণপরিবহন

২১ দিন পর বৃহস্পতিবার থেকে সড়কে গণপরিবহন


করোনায় আরও ৬০ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৪৫২

করোনায় আরও ৬০ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৪৫২


ঈদের আগে চালু হতে পারে গণপরিবহন: কাদের

ঈদের আগে চালু হতে পারে গণপরিবহন: কাদের


করোনার ঝুঁকিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে ঈদ শপিংয়ে ছুটছেন রাজধানীবাসী

করোনার ঝুঁকিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে ঈদ শপিংয়ে ছুটছেন রাজধানীবাসী


করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩৫ লাখ পরিবার পাচ্ছে আড়াই হাজার টাকা করে সহায়তা

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩৫ লাখ পরিবার পাচ্ছে আড়াই হাজার টাকা করে সহায়তা