Friday, July 22nd, 2016
প্যারিচাঁদ মিত্র স্মরণে
July 22nd, 2016 at 7:57 pm
প্যারিচাঁদ মিত্র স্মরণে

ডেস্ক: বাংলা সাহিত্যের প্রথম ঔপন্যাসিক প্যারীচাঁদ মিত্রের ২০২ তম জন্মবার্ষিকী আজ। সাহিত্য জগতে তিনি টেকচাঁদ ঠাকুর ছদ্মনামে পরিচিত ছিলন। তৎকালীন ভারতবর্ষের কলকাতা শহরে ১৮১৪ সালের আজকের দিনে, অর্থাৎ ২২ শে জুলাই জন্মগ্রহণ করেন প্যারীচাঁদ মিত্র। তার পিতার নাম রামনারায়ণ।

১৮২৭ সালে তিনি হিন্দু কলেজে ভর্তি হবার পর খ্যাতিমান শিক্ষক হেনরি ডিরোজিওর তত্ত্বাবধানে থেকে শিক্ষাজীবন সম্পন্ন করেন। ডিরোজিও সে সময়কার হিন্দু কলেজে একজন বিখ্যাত অধ্যাপক ছিলেন। প্যারীচাঁদ মিত্র তার শিষ্যত্বও গ্রহণ করেন বলে জানা যায়। কলকাতা পাবলিক লাইব্রেরির ডেপুটি লাইব্রেরিয়ান হিসেবে ১৮৩৬ সালে কর্মজীবন শুরু করেন প্যারীচাঁদ। পরবর্তীতে তিনি লাইব্রেরিয়ান এবং ওই প্রতিষ্ঠানের সেক্রেটারি পদে অধিষ্ঠিত হন।

ফার্সি, বাংলা ও ইংরেজির দক্ষতা তাকে বিভিন্ন ভাষায় গ্রন্থ রচনা করার অনুপ্রেরণা যোগায়। ইংরেজি ভাষায় রচিত লেখাসমূহ ছাপা হত ইংলিশম্যান, ইন্ডিয়ান ফিল্ড, ক্যালকাটা রিভিউ, হিন্দু প্যাট্রিয়ট, ফ্রেন্ড অফ ইন্ডিয়া প্রভৃতি পত্রিকায়। তিনি স্ত্রী শিক্ষা প্রচারে যথেষ্ট সক্রিয়তার পরিচয় দেন। তিনি বিধবাবিবাহ সমর্থন করতেন। তিনি বাল্যবিবাহ এবং বহুবিবাহের বিরোধিতা করেন। মহিলাদের জন্য একটি মাসিক পত্রিকাও সম্পাদনা করতেন। তিনি কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটের সদস্য ছিলেন। তিনি পশু-ক্লেশ নিবারণী সভারও সদস্য ছিলেন। বেথুন সোসাইটি ও ব্রিটিশ ইন্ডিয়া সোসাইটির অন্যতম উদ্যোক্তা ছিলেন প্যারীচাঁদ মিত্র। জ্ঞানান্বেষণ সভার সদস্য হন তিনি ১৮৩৮ সালে। তিনি পুলিশি অত্যাচারিতার বিরুদ্ধে লড়েছিলেন এবং সফলকামও হয়েছিলেন।

বাঙালি সমাজের উন্নয়নের স্বার্থে তিনি বহু সংগঠন প্রতিষ্ঠা ও পরিচালনা করেন। জ্ঞানোপার্জিকা সভা, বেঙ্গল ব্রিটিশ ইন্ডিয়া সোসাইটি, ডেভিড হেয়ার মেমোরিয়াল সোসাইটি, রেস ক্লাব, অ্যাগ্রিকালচারাল অ্যান্ড হর্টিকালচারাল সোসাইটি, বেথুন সোসাইটি প্রভৃতি সেগুলোর মধ্যে অন্যতম। প্যারীচাঁদ মিত্র বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের সম্মানসূচক পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। জাস্টিস অব পিস, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেলো, জেল ও কিশোর অপরাধীদের সংশোধন কেন্দ্রের পরিদর্শক, কলকাতা হাইকোর্টের গ্র্যান্ড জুরি, বঙ্গীয় আইন পরিষদের সদস্য, কলকাতা মিউনিসিপ্যাল বোর্ডের অবৈতনিক ম্যাজিস্ট্রেট প্রভৃতি।

১৮৫৮ খ্রি. প্রকাশিত ‘আলালের ঘরের দুলাল’ প্যারীচাঁদ মিত্র রচিত বাংলা সাহিত্যের প্রথম উপন্যাস। এই উপন্যাসে প্যারীচাঁদ প্রথমবারের মতো বাংলা সাহিত্যের প্রচলিত গদ্যরীতির নিয়ম ভেঙে চলিত ভাষারীতি প্রযোগ করেন। গ্রন্থটি ইংরেজিতেও অনুবাদ করা হয়েছিলো ‘দি স্পয়েল্ড চাইন্ড’ নামে। চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত ব্যবস্থার বিরুদ্ধে লেখকের লেখনীসমৃদ্ধ The Zemindar and Ryots গ্রন্থটি সেসময় অনেক আলোড়ন সৃষ্টি করেছিলো। ১৮৫৯ সালে প্রকাশিত ‘মদ খাওয়া বড় দায়, জাত থাকার কি উপায়’ গ্রন্থে লেখকের উদ্ভট উদ্ভাবনী চিন্তাশক্তির প্রকাশ পায়। এছাড়াও অভেদী, আধ্যাত্মিকা, রামারঞ্জিকা, কৃষিপাঠ, ডেভিড হেয়ারের জীবনচরিত এবং বামাতোষিণী তার উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ।

১৮৮৩ সালের ২৩ নভেম্বর এই প্রখ্যাত সাহিত্যিকের মৃত্যু হয়।

নিউজনেক্সটবিডিডটকম/এসকেএস/টিএস


সর্বশেষ

আরও খবর

প্রয়াণের ২১ বছর…

প্রয়াণের ২১ বছর…


বীর উত্তম সি আর দত্ত আর নেই, রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক

বীর উত্তম সি আর দত্ত আর নেই, রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক


সংগীতের ভিনসেন্ট নার্গিস পারভীন

সংগীতের ভিনসেন্ট নার্গিস পারভীন


সিরাজগঞ্জে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে কামাল লোহানীকে

সিরাজগঞ্জে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে কামাল লোহানীকে


জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান আর নেই

জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান আর নেই


ওয়াজেদ মিয়ার ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ওয়াজেদ মিয়ার ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ


একুশে পদকপ্রাপ্তদের হাতে পুরষ্কার তুলে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

একুশে পদকপ্রাপ্তদের হাতে পুরষ্কার তুলে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী


প্রধানমন্ত্রীর হাতে রান্না করা খাবার সাকিবের বাসায়

প্রধানমন্ত্রীর হাতে রান্না করা খাবার সাকিবের বাসায়


জাতীয় কবির মৃত্যুবার্ষিকী আজ

জাতীয় কবির মৃত্যুবার্ষিকী আজ


জাপানে হেইসেই যুগের অবসান হচ্ছে আজ

জাপানে হেইসেই যুগের অবসান হচ্ছে আজ