Tuesday, October 18th, 2016
‘সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আনন্দ আয়োজন
October 18th, 2016 at 9:02 am
‘সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আনন্দ আয়োজন

ঢাকা: ‘আনন্দময় চর্চায় সম্পন্ন মানুষ’ স্লোগান নিয়ে ১৯৯১ সালে যাত্রা শুরু করে ‘সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র’। নিয়মিত পাঠচক্র, আলোচনা, লাইব্রেরি এবং অন্যান্য অনুষ্ঠান ও কার্যক্রমের মাধ্যমে জ্ঞান, মূল্যবোধ, রুচি ও হৃদয়ের প্রসারতার লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। সময়ের বহমানতায় এই প্রতিষ্ঠানটি অতিক্রম করল প্রতিষ্ঠার ২৫ বছর।

এ উপলক্ষে সোমবার বিকেলে রাজধানীর পরিবাগে অবস্থিত ‘সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র’ প্রাঙ্গণে শুরু হয়েছে পাঁচদিনের আনন্দ আয়োজন।

বিকেল থেকেই অনুষ্ঠান প্রাঙ্গণে সাজসাজ রব পড়ে যায়। বিকেল গড়িয়ে সন্ধ্যা নামতেই শুরু হয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনের আনুষ্ঠানিকতা। সংগঠনের সংশ্লিষ্টদের প্রীতি সমাবেশ, বুদ্ধিবৃত্তিক সেমিনার/সিম্পোজিয়াম, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, স্মৃতিচারণ, আড্ডা এবং কবিতা পাঠের আসর ও রাতব্যাপী ধ্রুপদী গানের পরিবেশনায় বর্ণিল হয়ে ওঠে এ আয়োজন। প্রথমদিনের এই আয়োজনের পুরো সময় দেশের অনেক শিল্পী-সাহিত্যিক-সাংবাদিক-সমাজ ও সংস্কৃতিকর্মী এবং পেশাজীবীদের পদভারে মুখরিত হয়ে ওঠে কেন্দ্র প্রাঙ্গণ।

আয়োজনের শুরুতেই ছিল আবৃত্তি সংগঠনের কল্পরেখা’র শিশু আবৃত্তিশিল্পীদের দুইটি প্রযোজনা। এর প্রথমটি ‘তামান্না তিথি’র নির্দেশনায় প্রথম প্রযোজনা ‘ধানসুপাড়ি পানসুপাড়ি’ এবং দ্বিতীয় প্রযোজনা ছিল মীর বরকতের নির্দেশনায় ‘রাণী যাবেন বাপের বাড়ি’।

এর পরেই ছিল উদ্বোধনী আনুষ্ঠানিকতা। এই আয়োজনের উদ্বোধন করেন কবি আসাদ চৌধুরী। কথনে অংশ নেন সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রের উপদেষ্টা অধ্যাপক রোকেয়া আলম ও চলচ্চিত্রকার মসিহ্উদ্দিন শাকের। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক লিয়াকত আলী ও ব্যবস্থাপনা পর্ষদের আহ্বায়ক ড. আসমা চৌধুরী।

কবি আসাদ চৌধুরী বলেন, ‘মন খুলে নির্ভেজাল আড্ডার ক্ষেত্র সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র। যখনই ভিন্নচিন্তাকে আটকে রাখার চেষ্টা করা হয়েছে, তখন এখানে মন খুলে কথা বলা যায়। যেকোন দলমত এখানে এসে মনের আনন্দে আড্ডা দিতে পারেন।’

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক লিয়াকত আলী বলেন, সময়ের পরিক্রমায় আজ যৌবনের চুড়ান্ত জায়গায় পৌঁছেছে ‘সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র’। আর বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে কেন্দ্রের দায়িত্বও বেড়েছে-অনেক। শুধু চরমপন্থী চিন্তাধারা বা কার্যক্রমের বাইরের সব মত ও পথের মানুষকে নিয়েই এগিয়ে যাবে এ কেন্দ্র।

মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনের আয়োজনে ‘একাদেমিয়া’র আয়োজনে থাকছে সেমিনার ও সূর্য দিগন্ত শিল্পীগোষ্ঠীর গম্ভীরা। বুধবার তৃতীয় দিনের আয়োজনে সেমিনারের আয়োজন করবে ‘দর্শন ক্লাব’। আরও থাকবে দলীয় আবৃত্তি। বৃহস্পতিবার থাকছে লেখক-সম্প্রীতির আয়োজনে সৈয়দ শামসুল হক, শহীদ কাদরী ও রফিক আজাদ স্মরণে ‘প্রসঙ্গ বাংলা কবিতা’ শীর্ষক সাহিত্য আড্ডা। আরও থাকছে ধ্রুপদী সঙ্গীত রজনী। শুক্রবার আয়োজনের শেষ দিনে প্রীতি সমাবেশ।

প্রতিবেদক: প্রতিনিধি, সম্পাদনা: শিপন আলী

 


সর্বশেষ

আরও খবর

দ্য ডেইলি হিলারিয়াস বাস্টার্ডস

দ্য ডেইলি হিলারিয়াস বাস্টার্ডস


করোনা নিয়ে ওবায়দুল কাদেরের কবিতা

করোনা নিয়ে ওবায়দুল কাদেরের কবিতা


পাথর সময় ও অচেনা বৈশাখ

পাথর সময় ও অচেনা বৈশাখ


৭২-এর ঝর্ণাধারা

৭২-এর ঝর্ণাধারা


বইমেলায় আলতামিশ নাবিলের ‘লেট দেয়ার বি লাইট’

বইমেলায় আলতামিশ নাবিলের ‘লেট দেয়ার বি লাইট’


নাচ ধারাপাত নাচ!

নাচ ধারাপাত নাচ!


ক্রোকোডাইল ফার্ম

ক্রোকোডাইল ফার্ম


সামার অফ সানশাইন

সামার অফ সানশাইন


মুক্তিযুদ্ধে যোগদান

মুক্তিযুদ্ধে যোগদান


স্বাধীনতার ঘোষণা ও অস্থায়ী সরকার গঠন

স্বাধীনতার ঘোষণা ও অস্থায়ী সরকার গঠন