Wednesday, July 1st, 2020
প্রসঙ্গ:করোনা কালে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের অমানবিক আচরণ
July 1st, 2020 at 9:44 pm
প্রসঙ্গ:করোনা কালে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের অমানবিক আচরণ

নাসরিন মুন্নি;

শুরুতেই বলি,সন্তান ইংলিশ মিডিয়ামে পড়ে শুনলেই অনেকের ধারণা হয় অভিভাবক মনেহয় টাকার পাহাড়ে বসে থাকেন,কথাটা যে কতবড় ভুল তা এই করোনা এসে বুঝিয়ে দিলো হাড়ে হাড়ে-

সারাবিশ্ব করোনার ছোবলে বিপর্যস্ত, এখন সবার প্রয়োজন একে অন্যের প্রতি যতটুকু পারে সহানুভূতি ও সহমর্মিতা দেখানো –

যেখানে সরকারি / বেসরকারি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান টিউশন ফি তে ছাড় দিচ্ছে, এমনকি দেশের নামীদামী কিছু ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলও অনেক ছাড় দিয়েছেন, সেখানে উত্তরায় অবস্থিত বিখ্যাত DPS STS ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল বিন্দুমাত্র ছাড় দিতে নারাজ,এমনকি বর্তমানে স্কুল বাস বন্ধ থাকলেও তারা ট্রান্সপোর্ট ফি পর্যন্ত চাইছেন….!!

আজ ১লা জুলাই থেকে অনলাইনে নতুন সেশনের ক্লাস শুরু হলো; তিনদিন আগে স্কুলের একাউন্টস সেকশন থেকে আমার কাছে ফোন আসে টিউশন ফি দেবার জন্য,সাথে তারা এও বলেন ৩০শে জুনের ভেতর অর্ধেক আর জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে বাকি অর্ধেক দিলেই হবে,

কিন্তু তাঁরা একবারও বলেননি পুরো টিউশন ফি পরিশোধ না করলে আমার সন্তান অনলাইন ক্লাসে বসতে পারবেনা…!!

এটা কতবড় অমানবিক আচরণ বুঝতে পারছেন..??

আমি নিজে গত ২৯ জুন স্কুলে যাই,একাউন্টস সেকশনে কথা বলি,তাঁরা অনলাইনে বেতন দেবার জন্য প্রত্যেক শিক্ষার্থীর আলাদা একাউন্ট নম্বর করেছেন,আমি যতবার বলি আমি আমার ছেলের কোন একাউন্ট নম্বর পাইনি, তাঁরা মানতে নারাজ, পরে ছেলের নাম,আইডি নম্বর, ক্লাস,সেকশন চাইলেন এবং একাউন্ট নম্বর দিলেন-

আমি অনলাইনে টিউশন ফি দেবার জন্য ছেলের ভার্চুয়াল একাউন্টস নম্বরের মেইল পেলাম গতকাল…

কি পরিমাণ মিথ্যাচার তাঁরা করছেন,চিন্তা করুন..!!

আজ যখন আমার ছেলে ক্লাস জয়েন করতে যাচ্ছিলো,সে ইনভাইট পেয়েও রিজেক্টেট হচ্ছিলো, তখন সে ক্লাস শিক্ষককে মেইল করে,তিনি বলেন,তার টিউশন ফি কিছু বাকি থাকবার জন্যই সে ক্লাস জয়েন করতে পারছেনা.!! কতটা মনোকষ্ট। আর মানসিক চাপ সে পেলো চিন্তা করতে পারেন..??

তাহলে কি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এখন পুরোপুরি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হয়ে গেলো?

এই নিয়ে স্কুলের প্যারেন্টস ফোরাম বহুবার স্কুল কর্তৃপক্ষের সাথে বসেছেন,শিক্ষা মন্ত্রনালয়, প্রধানমন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়েছেন,এই করোনার ভেতরেও মানববন্ধন করেছেন,কোনই লাভ হয়নি….

প্রতিবছরই স্কুল টিউশন ফি,ট্রান্সপোর্ট ফি,বইয়ের দাম বাড়ায়,আমরা তাও মেনে নিই কারণ স্কুলের পরিবেশ, পাশাপাশি অন্যান্য কারিকুলাম এর জন্য আমরা এবং শিক্ষার্থীরাও সন্তুষ্ট, কিন্তু এই করোনার মহামারীতে যেখানে পুরো পৃথিবী থমকে গিয়েছে সেখানে স্কুলের এই অমানবিক আচরণ কতটা গ্রহণীয়?

আমার ফ্রেন্ডলিস্টে অনেক মিডিয়া কর্মী,সাংবাদিক রয়েছেন আমি আপনাদের দৃষ্টি আকর্ষন করছি…

https://www.facebook.com/nasrinaktat.munni?__tn__=%2CdlC-R-R&eid=ARD5VF3ad5UR4_9-vZ44p8nzsmDFt8fhFrLb2KGw5RYLsrSnOdA9rYRE1NGs-YAGyH4o2awRQmMmRaNO&hc_ref=ARSjbUrT4nS1ZjfamYFy0Wl6XsUIVfi35SCAQuOEqaYO_VBfFKyn-O4JYRaYMFkCgdU&ref=nf_target


সর্বশেষ

আরও খবর

সীমান্ত জটিলতায় চীন-ভারত  বন্ধুত্ব

সীমান্ত জটিলতায় চীন-ভারত বন্ধুত্ব


ভোটের ঈমান বনাম করোনার ঈমান

ভোটের ঈমান বনাম করোনার ঈমান


কালের হিরো খন্দকার খোরশেদ

কালের হিরো খন্দকার খোরশেদ


করোনাকালের খোলা চিঠি

করোনাকালের খোলা চিঠি


সিগেরেট স্মৃতি!

সিগেরেট স্মৃতি!


পাঠকের-জনতার ‘মিটেকড়া-ভীমরুল’ এবং একটি পর্ট্রেট

পাঠকের-জনতার ‘মিটেকড়া-ভীমরুল’ এবং একটি পর্ট্রেট


দাদন ব্যাবসায়ী ও মধ্যস্বত্ত্বভোগী ঠেকাও

দাদন ব্যাবসায়ী ও মধ্যস্বত্ত্বভোগী ঠেকাও


করোনায় ফসল কাটতে খেমজুরের সংকট নিরসনে করনীয়

করোনায় ফসল কাটতে খেমজুরের সংকট নিরসনে করনীয়


করোনায় যা যা করা যেতে পারে

করোনায় যা যা করা যেতে পারে


প্রানের জন্য ত্রান

প্রানের জন্য ত্রান