Wednesday, July 6th, 2022
ফটোগ্রাফিক এসোসিয়েশনে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনের আহ্ববান
February 28th, 2021 at 1:14 pm
ফটোগ্রাফিক এসোসিয়েশনে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনের আহ্ববান

কোভিড-১৯ কালীন ফটোগ্রাফিক ব্যবসা ও আপনার ভাবনা শীর্ষক এক সেমিনার ও সংগঠনের আগামী নির্বাচন নিয়ে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করেন ফটোগ্রাফিক সমিতির সদস্যরা।
বৃহস্প্রতিবার (২৫ ফেব্রয়ারী ২০২১) ঢাকায় বাংলাদেশ ফটোগ্রাফিক এসোসিয়েশনের সিনিয়র সদস্য ও সাবেক উর্ধ্বতন সহ সভাপতি জনাব সাজিদুল হাসান নান্নুর সভাপতিত্বে অনুস্ঠিত হয় এ আলোচনা সভা।
এফবিসিসিআই’র জিবি মেম্বার ও বিপিএর সাবেক সহ সভাপতি বশির আহমেদ বকুলের সঞ্চালনায় এ সেমিনারের প্রধানবক্তা বিপিএর সহ সভাপতি(ফিনান্স) মোহাম্মদ জাহাংগীর আলম বলেন কোভিড-১৯ বিশ্বমহামারিতে ফটোগ্রাফি বাণিজ্যে বিপুল ধস নামে এবং এই শিল্পের ব্যবসায়ীরা বিশাল লোকসানের সম্মুখীন হন। অনেক পরিবার মানবেতর জীবন যাপন করেন এবং অনেক স্টুডিও , কালার ল্যাব, এবং ট্রেডাস বন্ধ হয়ে যায় বলে তিনি উল্লেখ করেন। তিনি ক্ষতিগ্রস্থ সকলের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বলেন বিপিএর আসন্ন নির্বাচনে নতুন ও তরুন নেতৃত্ব নির্বাচনের মাধ্যমে সংগঠনকে শক্তিশালী করে ফটোগ্রাফিক ব্যবসায় যে সকল পরিবার মানবেতর জীবন যাপন করছেন সে সকল পরিবারকে সংগঠনের মাধ্যমে অর্থনৈতিক সহযোগিতা দেওয়া হবে।
তিনি সংগঠন পরিচালনায় সাবেক সভাপতিদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন আমি সাবেক সফল সভাপতি আককাস মাহমুদের হাত ধরে বিপিএ’র সদস্য হই, তার নেতৃত্বে দেশে ও বিদেশে বিপিএ’র ভাবমু্র্তি উজ্জল হয়।
পরবর্তিতে জহিরুল ইসলাম সুনিপুন ভাবে সংগঠন পরিচালনা করেন এবং আমি তাদের পাশে থেকে কাজ শেখার সুযোগ রপ্ত করি!
বর্তমান কমিটিতে আমি সহ-সভাপতির পদের পাশে ট্রেজারের দ্বায়িত্ব পালন করি।
বিপিএতে নতুন নেতৃত্ব সময়ের দাবী!
সিন্ডিকেট কমিটি বা নেতৃত্ব সাধারন সদস্যরা মেনে নিবেনা। বিপিএর সাধারন সদস্যরা পরিবর্তন চান, সুযোগ্য নেতৃত্ব চান, তরুন ও নতুন নেতৃত্ব প্রত্যাশা করেন।
পৃথিবীব্যাপি নতুন নেতৃত্বের জয়জয়কার। এবার তরুন ও নতুন নেতৃত্বের হাত ধরেই একটি আধুনিক ও ডিজিটালাইজড বিপিএ প্রতিষ্ঠিত হবে ইনশাআল্লাহ।

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে গুরুত্বপূর্ণ কাজ করে চলেছেন বিপিএর স্বপ্নবাজ তরুন সদস্য জসিম উদ্দিন জয়। তিনি বলেন একটি আধুনিক , মেধাভিত্তিক বিপিএ গঠনে তারুন্যের বিকল্প নাই। তিনি আরো বলেন একমাত্র তরুন ও নতুন নেতৃত্বই পারে একটি ঐক্যবদ্ধ্ বিপিএ উপহার দিতে।

বিপিএর সহ সভাপতি মো: জহিরুল ইসলাম জগলু বলেন বিপিএতে পরিবর্তন আনতেই সিন্ডিকেট নেতৃত্ব ভাংতে হবে। সদস্য ভোটার ভাইদের মধ্যে শ্লোগান উঠেছে তরুন ও নতুনরাই গড়বে এমন বিপিএ যেখানে সাবেক নেতাদের সঠিক মূল্যায়ন হবে।

বিপিএর সদস্য ও ব্যবসায়ী কামরুল ইসলাম চোকদার বলেন বিপিএ শুধু পিকনিক সর্বস্ব সংগঠন নয়! এটা এক সময় মর্যাদাপূর্ণ সংগঠন ছিলো, আমরা চাই পরিবর্তন, পরিবর্তন হলেই আমাদের প্রিয় সংগঠন তার হারানো গৌরব ফিরে পাবে। আগামীতে তরুন নেতৃত্ব বিজয়ী হলে তারা সদস্যদের বিভিন্ন সুবিধার জন্য কাজ করবো! তারা কাজ করবে দেশের তাঁরকা হোটেল রিসোর্ট, হসপিটাল, সুপারসপ, ব্রান্ডের শোরুম ইত্যাদিতে কেনা কাটা বা সেবা গ্রহনে বিপিএর সদস্যরা সুবিধা ও সম্মান ভোগ করবে। আর তরুন ও সৃষ্টিশীল নেতৃত্ব পারবে বিপিএর সদস্যদের সম্মানের জন্য কাজ করতে।

বিপিএর সাবেক সহ সভাপতি আক্তারউজ্জামান টিটু বলেন যারা শুধু ট্রেড লাইসেন্সধারী সদস্য মানে নিজের ব্যবসা নাই শুধু ট্রেড লাইসেন্স রিনিউ করে বিপিএতে নেতা হন তাদেরকে না বলার এখনই সময়।প্রকৃত ফটোগ্রাফি ব্যবসায়ীরাই হবেন বিপিএর নেতা।
আমি দায়িত্ব নিয়ে বলতে চাই যদি আমরা সবাই তরুন ও নতুন নেতৃত্বের প্যানেলকে বিজয়ী করতে পারি তবে অবশ্যই অভিজ্ঞদের সমন্নয়ে একটি শক্তিশালী বিপিএ গঠিত হবে।

সভায় বিপিএর সবেক তিন প্রতিস্ঠাতা সভাপতি প্রয়াত ইদ্রিস মিয়া, প্রয়াত মনোয়ার হোসেন মানিক ও শেখ হামিদুল হক কচি সহ সকল প্রয়াত সদস্যদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও শোক জানানো হয়।


সর্বশেষ

আরও খবর

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব


আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন

আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন


চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ

চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ


ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার

ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার


তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন

তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন


অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?

অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?


যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার

যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার


আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০

আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০


সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি

সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি


চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার