Wednesday, September 28th, 2016
ফুলে ফুলে সিক্ত কবির কফিন
September 28th, 2016 at 1:26 pm
ফুলে ফুলে সিক্ত কবির কফিন

ঢাকা: প্রিয় কবিকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে উপস্থিত হয়েছে হাজারো মানুষ। এসেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ; এসেছিলেন সরকারের মন্ত্রীরা, আমলারা, রাজনীতিবিদরা। বহু যুগের কলমযুদ্ধের সহযোদ্ধা, শিল্প-সাহিত্য-সাংস্কৃতিক অঙ্গনের প্রতিনিধি, আর ভক্ত, পাঠক, সবার হাতে ছিল শ্রদ্ধার ফুল।

samsul-hok-2

ছবি: জীবন আহমেদ, নিউজনেক্সটবিডি ডটকম

শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে রাষ্ট্রপতি হামিদ প্রথম লেখকের কফিনে ফুল দিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানান। এরপর প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়। সৈয়দ হকের স্ত্রী আনোয়ারা সৈয়দ হকের সঙ্গে কথা বলেন রাষ্ট্রপতি, সান্ত্বনা দেন। তারপর বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন সহ সর্বস্তরের মানুষ কবির মরদেহে ফুল নিবেদন করে শ্রদ্ধা জানায়।

samsul-hok-3

ছবি: জীবন আহমেদ, নিউজনেক্সটবিডি ডটকম

জনপ্রশাসন সচিব কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী, সংস্কৃতি সচিব আখতার ইমাম, বাংলা একাডেমির সভাপতি আনিসুজ্জামান, সোনারগাঁ লোকশিল্প জাদুঘরের পরিচালক কবি রবীন্দ্র গোপ, চিত্রশিল্পী হাশেম খান, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক হাসান আরিফও শহীদ মিনারে এসেছিলেন সৈয়দ শামসুল হকের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে।

samsul-hok-4

ছবি: জীবন আহমেদ, নিউজনেক্সটবিডি ডটকম

এসময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক বিশ্বজিত ঘোষ বলেন, ‘রবীন্দ্রনাথের পরে বাংলা সাহিত্যের সর্বক্ষেত্রে বিচরণ করা সৈয়দ শামসুল হকের মতো লেখক আমরা আর পাইনি।… তাকে বুঝতে হলে তার লেখা পাঠ করতে হবে।’

samsul-hok-5

ছবি: জীবন আহমেদ, নিউজনেক্সটবিডি ডটকম

ফুসফুসের ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মঙ্গলবার রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সৈয়দ হকের মৃত্যু্ হয়। রাতে গুলশান ৬ নম্বর রোডে তার বাড়ি ‘মঞ্জুবাড়িতে’ শেষ গোসলের পর কফিন রাখা হয় ইউনাইটেড হাসপাতালের হিমঘরে।

সেখান থেকে বুধবার সকালে লেখকের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় তেজগাঁওয়ে চ্যানেল আই কার্যালয়ে। সেখানে জানাজার পর বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে সৈয়দ হকের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। তারপর কফিন নিয়ে যাওয়া হয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে।

জোহরের নামাজের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদে জানাজা শেষে সৈয়দ শামসুল হকের মরদেহ হেলিকপ্টারে করে নিয়ে যাওয়া হবে কুড়িগ্রামে। ১৯৩৫ সালের ২৭ ডিসেম্বর এই কুড়িগ্রাম শহরের থানা পাড়ায় তার জন্ম। শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ প্রাঙ্গণে তার কবর হবে।

6

‘বৈশাখে রচিত পংক্তিমালা’, ‘পরাণের গহীন ভেতর’, ‘নাভিমূলে ভস্মাধার’, ‘আমার শহর ঢাকা’, ‘বেজান শহরের জন্য কেরাম’, ‘বৃষ্টি ও জলের কবিতা’- এসব কাব্য গ্রন্থের অজস্র কবিতায় তার নানা নীরিক্ষা জনপ্রিয়তাও এনে দেয় তাকে। কাব্যনাট্য রচনায় ঈর্ষণীয় সফলতা পাওয়া সৈয়দ হক ‘নূরলদীনের সারাজীবন’, ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’, ‘গণনায়ক’, ‘ঈর্ষা’ ইত্যাদি নাটকে রেখেছেন মুন্সীয়ানার স্বাক্ষর। ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’ ও ‘নুরলদীনের সারাজীবন’ বাংলাদেশের মঞ্চনাটকের ইতিহাসে মাইলফলক হয়ে আছে। সৈয়দ হক মহাকাব্যিক পটভূমিকায় বৃষ্টি ও বিদ্রোহীগণ নামে দীর্ঘ উপন্যাস যেমন লিখেছেন, তেমনি ছোট আকারের উপন্যাস লিখেছেন সমান তালে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধকে তাৎপর্যময় হয়ে উঠেছে তার ‘নিষিদ্ধ লোবান’সহ নানা উপন্যাসে।

img_7489

ছবি: জীবন আহমেদ, নিউজনেক্সটবিডি ডটকম

‘খেলারাম খেলে যা’, ‘নীল দংশন’, ‘মৃগয়া’, ‘সীমানা ছাড়িয়ে’, ‘এক মহিলার ছবি’, ‘দেয়ালের দেশ’, ‘স্তব্দতার অনুবাদ’, ‘এক যুবকের ছায়াপথ’, ‘মহাশূন্যে পরানমাস্টার’, ‘তুমি সেই তরবারী’, ‘দ্বিতীয় দিনের কাহিনী’, ‘অন্তর্গত’, ‘এক মুঠো জন্মভূমি’, ‘শঙ্খলাগা যুবতী ও চাঁদ’, ‘বাস্তবতার দাঁত ও করাত’, ‘বৃষ্টি ও বিদ্রোহীগণ’।

গত শতকের ষাট, সত্তর ও আশির দশকে অনেক চলচ্চিত্রের চিত্রনাট্যের সঙ্গে এবং চলচ্চিত্রের জন্য গানও লিখেছেন সৈয়দ হক। তার লেখা গান ‘হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস’, ‘তোরা দেখ দেখ দেখরে চাহিয়া’, ‘চাঁদের সাথে আমি দেব না তোমার তুলনা’র মতো বহু গান এখন মানুষের মুখে ফেরে।

এপিটাফ কবিতায় তিনি লিখে গেছেন-

আমি কে তা নাইবা জানলে।
আমাকে মনে রাখবার দরকার কি আছে?
আমাকে মনে রাখবার?
বরং মনে রেখো নকল দাঁতের পাটি,
সন্ধ্যার চলচ্চিত্র আর জন্মহর জেলি।
আমি এসেছি, দেখেছি, কিন্তু জয় করতে পারিনি।
যে কোনো কাকতাড়ুয়ার আন্দোলনে,
পথিক, বাংলায় যদি জন্ম তোমার,
আমার দীর্ঘশ্বাস শুনতে পাবে।

গ্রন্থনা: প্রণব আচার্য্য, সম্পাদনা: ইয়াসিন ও তুসা


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় ৩৭ জনের মৃত্যু

করোনায় ৩৭ জনের মৃত্যু


শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি


দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির

দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির


ভারতে আবার সংক্রমণের রেকর্ড, একদিনে মৃত্যু প্রায় ৪০০০

ভারতে আবার সংক্রমণের রেকর্ড, একদিনে মৃত্যু প্রায় ৪০০০


দেশে করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৮২২

দেশে করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৮২২


খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী

খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী


যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


ছিনতাইকারীর টানে রিকশা থেকে পড়ে নারীর মৃত্যু

ছিনতাইকারীর টানে রিকশা থেকে পড়ে নারীর মৃত্যু


করোনায় কমলো মৃত্যু ও শনাক্তের হার; মৃত্যু ৫০ আর শনাক্ত ১ হাজার ৭৪২

করোনায় কমলো মৃত্যু ও শনাক্তের হার; মৃত্যু ৫০ আর শনাক্ত ১ হাজার ৭৪২


১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি

১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি