Wednesday, March 28th, 2018
ফ্রিজের মাছে সয়লাব মাওয়া!
March 28th, 2018 at 7:36 pm
ফ্রিজের মাছে সয়লাব মাওয়া!

সৈয়দ ইফতেখার আলম, মুন্সীগঞ্জ ঘুরে: পদ্মাপাড়ের ইলিশের একটা আলাদাই কদর বা খ্যাতি অাছে। মুন্সীগঞ্জের মাওয়া সংলগ্ন পদ্মার ইলিশের ক্ষেত্রেও বিষয়টি তাই। তবে এই খ্যাতিকে কাজে লাগিয়ে অতিরিক্ত দাম নেওয়া ও বাসি ইলিশ খাওয়ানোর অভিযোগের কথা জানান অনেক ক্রেতা।

মাওয়া ঘাট পার হয়েছেন অথচ ইলিশ ভাজা দিয়ে ভাত খাননি এমন লোক খুব কমই আছেন। এই সুযোগকেই বিক্রেতারা কাজে লাগান বলে আমিনুল ইসলাম নামে এক বয়স্ক ক্রেতা অভিযোগ করেন। তার ভাষায়, একে তো দাম বেশি নেওয়া হয়। তার ওপর আবার ফ্রিজে রাখা ইলিশ ভেজে খাওয়ানো হয়। এছাড়া আলাদা সন্দেহ তো থেকেই যায়, সেটি আসলেই ইলিশ কিনা। কারণ ইলিশের মতো দেখতে কয়েক পদের মাছও এখন ইলিশ বলেই চালানো হচ্ছে! যেগুলোর দাম তুলনামূলক কম।

মাওয়া সি-বোট ঘাটের মায়ের দোয়া স্টোরের মহাজন মোশাররফ হোসেন বলেন, কম দামে ইলিশ যদি চান, সেটাও দেওয়া যাবে। তবে সেগুলো ইলিশ নয়, ইলিশের ভাই। অার খাঁটি ইলিশ খেতে গেলে দাম পড়বে বেশি।

দাম আগের চেয়ে বেড়েছে বলেও জানান তিনি। সরেজমিন ঘুরে জানা যায়, প্রতি পিস ইলিশের গড় মূল্য এখানে ৭০ থেকে ১০০-এর মধ্যে। যা আগে ৫০ টাকায় মিলতো।

তবে ফ্রিজে রাখা ইলিশ প্রসঙ্গে মোশাররফ জানান তার ভিন্ন মতের কথা। ”কিছু কিছু দোকানে পাওয়া যায় এ কথা সত্য। তবে সবাই করে না এমন।” এছাড়া তিনি নিজেও এমন ব্যবসা করেন না বলেও জানান।

ফ্রিজে রাখা ইলিশ খাওয়ানো বিষয়ে পাশের নিরালা হোটেলের মলিক মোহাম্মাদ মাসুদ বলেন, সব সময়ই মাছ পাওয়া যায় তাই মাছ ফ্রিজে রেখে বিক্রির প্রশ্নই ওঠে না।

কিন্তু বেশ কয়েকজন ক্রেতার সঙ্গে কথা বলে পাওয়া যায় উল্টো প্রতিক্রিয়া। যখন মাছ ধরা নিষিদ্ধ থাকে তখনও মাছ পাওয়া যায় এসব ঘাটে। সেসময় ফ্রিজের মাছই বিক্রেতাদের মূল ভরসা। কারণ নিষিদ্ধের সময় টাটকা মাছ খাওয়ালে জেল-জরিমানার হবে তা আইনেই আছে। মার্চ-এপ্রিল এবং সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে ডিমের মৌসুম হওয়ায়- মা ইলিশ আর অপ্রাপ্তবয়স্ক জাটকা নিধন নিষেধ।

সম্পাদনা:  এম কে রায়হান


সর্বশেষ

আরও খবর

দেশে আরও ৯৫০০ জনের করোনা শনাক্ত, হার ২৫ ছাড়াল

দেশে আরও ৯৫০০ জনের করোনা শনাক্ত, হার ২৫ ছাড়াল


টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী


অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন

অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন


আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর

আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর


এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী

এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী


কমলো এলপিজির দাম

কমলো এলপিজির দাম


উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব

ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব


ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার


নির্বাচনী সহিংসতায় ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

নির্বাচনী সহিংসতায় ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু