Saturday, January 18th, 2020
বঙ্গবন্ধু বিপিএলে চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী
January 18th, 2020 at 8:13 am
বিপিএলের ফাইনালে খুলনাকে ২১ রানে হারিয়ে প্রথমবারের মতো বিপিএলের শিরোপা জয়ের আনন্দে ভাসে রাজশাহী
বঙ্গবন্ধু বিপিএলে চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকাঃ

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)-এর ফাইনালে খুলনা টাইগার্সকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রাজশাহী রয়্যালস। শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) বিপিএলের ফাইনালে খুলনাকে ২১ রানে হারিয়ে প্রথমবারের মতো বিপিএলের শিরোপা জয়ের আনন্দে ভাসে রাজশাহী।

মিরপুর শের-ই-বাংলা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৭০ রান করে রাজশাহী। জবাবে পুরো কুড়ি ওভার খেলে ৮ উইকেটে ১৪৯ রান করতে সক্ষম হয় খুলনা।

১৭১ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি খুলনার। প্রথম ওভারের দ্বিতীয় বলেই নাজমুল হোসেন শান্ত মোহাম্মদ ইরফানের বলে লিটন দাসের দুর্দান্ত ক্যাচে পরিণত হন। পরের ওভারেই মেহেদী হাসান মিরাজ আউট হন রাহির বলে ১১ রানে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় খুলনা। তৃতীয় উইকেট জুটিতে শুরু চাপ সামাল দেন রুশো ও শামসুর রহমান শুভ। এই দুইজনের ব্যাটেই জয়ের স্বপ্ন দেখতে থাকে খুলনা। তবে দলীয় ৮৫ রানের মাথায় রুশো ৩৭ রান করে আউট হন। ভাঙে ৭৪ রানের জুটি। ৪৩ বলে ৫২ রান করে শুভ বিদায় নেন কামরুল ইসলাম রাব্বির বলে। একই ওভারে নাজিবউল্লাহ জাদরানও (৪) সাজঘরে ফেরত যান। দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে ফের চাপে পড়ে যায় খুলনা। এক প্রান্ত আগলে ছিলেন অধিনায়ক মুশফিক। তবে রাজশাহীর নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সামনে সুবিধা করতে পারেননি মুশি। ২১ রান করে ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেলের বলে মুশফিক বোল্ড হলে রাজশাহীর জয়ের আশা ক্ষীণ হয়ে আসে। শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেটে ১৪৯ রানে থেমে যায় খুলনার ইনিংস। ২১ রানে জয়ে শিরোপা ঘরে তোলে রাজশাহী। রাজশাহীর রাব্বি, ইরফান ও আন্দ্রে রাসেল দু’টি এবং আবু জায়েদ ও মোহাম্মদ নওয়াজ একটি করে উইকেট নেন।

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে রাজশাহীর স্কোরবোর্ডে ১৪ রান যোগ হতেই বিদায় নেন ওপেনার আফিফ হোসেন (১০)। চাপটা সামাল দিয়ে দলের রানের চাকা সচল রাখেন আরেক ওপেনার লিটন দাস ও ইরফান শুকুর। দুজনে গড়েন ৪৯ রানের জুটি। তাদের এ জুটি ভাঙেন শহিদুল ইসলাম। ব্যক্তিগত ২৫ রানে সাজঘরে ফেরেন ধীর-গতির ব্যাট করতে থাকা লিটন। সতীর্থকে হারালেও ব্যাটে ঝড় অব্যাহত রেখে ফিফটি তুলে নেন শুকুর। দলীয় ৯৯ রানে মোহাম্মদ আমিরের দ্বিতীয় শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরার আগে তিনি ৩৫ বলে ৬ চার ও ২ ছক্কায় ৫২ রান করেন তিনি। তার আগে ব্যক্তিগত ৯ রানে রবি ফ্রাইলিংকে উইকেট উপহার দেন শোয়েব মালিক। তবে শেষদিকে ঝড় তুলেন আন্দ্রে রাসেল ও মোহাম্মদ নওয়াজ। দুজনে শেষ ৩২ বলে করেন ৭০ রান। রাজশাহী অধিনায়ক রাসেল ১৬ বলে ৩ ছক্কায় অপরাজিত ছিলেন ২৭ রানে। ২০ বলে ৪১ রানে অপরাজিত ছিলেন নওয়াজ। পাকিস্তানি অলরাউন্ডারের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৬ চার ও ২ ছক্কায়।

খুলনার মোহাম্মদ আমির দু’টি এবং রবি ফ্রাইলিংক ও শহিদুল ইসলাম একটি করে উইকেটে নিয়েছেন।


সর্বশেষ

আরও খবর

সাগরপথে ইতালি পৌঁছালেন ৩৬২ বাংলাদেশি

সাগরপথে ইতালি পৌঁছালেন ৩৬২ বাংলাদেশি


করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৩৬০

করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৩৬০


দুর্নীতিবাজ যেই হোক ব্যবস্থা নেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

দুর্নীতিবাজ যেই হোক ব্যবস্থা নেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী


৫ অক্টোবর পর্যন্ত ইতালিতে বাংলাদেশিদের প্রবেশ নিষেধ

৫ অক্টোবর পর্যন্ত ইতালিতে বাংলাদেশিদের প্রবেশ নিষেধ


করোনায় আরও ৪৬ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩৪৮৯

করোনায় আরও ৪৬ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩৪৮৯


রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যানকে খুঁজছে র‌্যাব

রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যানকে খুঁজছে র‌্যাব


রিজেন্টের মিরপুর শাখাও সিলগালা, আটক সাতজনের ৫ দিনের রিমান্ড

রিজেন্টের মিরপুর শাখাও সিলগালা, আটক সাতজনের ৫ দিনের রিমান্ড


টেস্ট না করেই করোনার রিপোর্ট দিতো রিজেন্ট হাসপাতাল

টেস্ট না করেই করোনার রিপোর্ট দিতো রিজেন্ট হাসপাতাল


চলে গেলেন এন্ড্রু কিশোর, রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক

চলে গেলেন এন্ড্রু কিশোর, রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক


এবারের হজে স্পর্শ করা যাবে না কাবা শরীফ

এবারের হজে স্পর্শ করা যাবে না কাবা শরীফ