Sunday, August 21st, 2016
বঙ্গ-রাশিয়ান কন্যার স্বর্ণ জয়
August 21st, 2016 at 1:36 pm
বঙ্গ-রাশিয়ান কন্যার স্বর্ণ জয়

ডেস্ক: ১৯৮৩ সালে রাজশাহীর আবদুল্লাহ মামুন মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং পড়াশুনা করতে পাড়ি জমান তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়ন বা বর্তমান রাশিয়ায়। সেখানে বিয়ে করেন আনা রাশিয়ান নামের এক জিমন্যাষ্টকে এবং পাকাপোক্ত ভাবেই আবাস গড়েন রাশিয়ায়। ১লা নভেম্বর ১৯৯৫ সালে রাজধানী মস্কোতে এই দম্পতির কোলজুড়ে আসে এক কন্যা সন্তান মার্গারিটা মামুন। ডাক নাম রিটা।

অলিম্পিকে বাংলাদেশের উপস্থিতি এখনো জানান দেবার মত হয়ে ওঠেনি। এবারের রিও অলিম্পিকেও পূর্বের অবস্থারই পুনরাবৃত্তি করেছি আমরা। কিন্তু রিও অলিম্পিকে বাংলাদেশ নামটা বারবারই উচ্চারিত হচ্ছে যার নামে সেই ‘বাংলার বাঘিনী’ মেয়েটাকে নিয়েই কথা বলছিলাম। না উপাধিটা আমাদের দেয়া না, এই নাম রাশিয়ান মিডিয়ার দেয়া। রিদমিক জিমন্যাস্টিক্সে সোনা জয় করে এই উপাধির মান রেখেছেন বঙ্গ-রাশিয়ান কন্যা মার্গারিটা।

মার্গারিটা মামুন স্বর্ণ জয় করেন ৭৪.৩৮৩ পয়েন্ট নিয়ে। স্বদেশি কুদরাভসেভা রুপা জিতেছেন ৭৩.৯৯৮ পয়েন্ট নিয়ে। প্রতিযোগিতায় ব্রোঞ্জ জিতেছেন ইউক্রেনের গানা রিজাতদিনোভা ৭৩.৯৩২ পয়েন্ট করে।

Rio Olympics Rhythmic Gymnastics

রাশিয়ার বিখ্যাত ক্রীড়া ম্যাগাজিন ‘ইউরো স্পোর্টস’র প্রচ্ছদে আসেন কৃষ্ণকেশী বঙ্গ বংশোদ্ভুত মার্গারিটা মামুন (রিটা), সে বছর তিনেক আগের কথা। অনেক জল গড়িয়ে রিটা ‘ইউরো স্পোর্টস’র নজর কাড়েন। সেই নজর আর নামে নি। এই বঙ্গ-রাশিয়ান তরুনী পৃথিবীতে মাত্র ২১ টি বসন্ত উপভোগী অভিজ্ঞতার ঝুলিতে ইতিমধ্যেই লুকিয়ে ফেলেছেন, দুইবার(২০১৪,’১৫) ওয়াল্ড অল অ্যারাউন্ড সিলবার মেডেলিস্ট; ২০১৫ ইউরোপিয়ান গেমস অল অ্যারাউন্ড সিলবার মেডেলিস্ট; ২০১৬ ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশীপ অল অ্যারাউন্ড সিলবার মেডেলিস্ট; তিনবার( ২০১৩-১৫) গ্রান্ড ফ্রিক্স ফাইনাল অল অ্যারাউন্ড চ্যাম্পিয়ন এবং পর পর তিনবার ২০১১-১৩ রাশিয়ান ন্যাশনাল অল অ্যারাউন্ড চ্যাম্পিয়ান।

মার্গারিটা ইতিমধ্যেই দখল করে নিয়েছেন রিদমিক জিমন্যাস্টিকসের বিশ্ব রেকর্ড। ২০১৬ সালে আজারবাইজানের রাজধানী বাকুতে বিশ্বকাপের চারটি ইভেন্টে ৭৭.১৫০ পয়েন্ট তুলে এই খেতাব অর্জন করেন।

আন্তর্জাতিক ক্রীড়াঙ্গনে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে এই বঙ্গ-রাশান ‘বাংলার বাঘিনী’ মার্গারিটা’র নাম। বর্তমানে বিশ্বসেরা মিলেনিয়ামের বিচারে রিদমিক জিমন্যাস্টিকিসে বছরের ষষ্ঠ সেরা অনাবাসী বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্গারিটা। ২০১৫ সালে রাশীয়ান মিডিয়াকে দেয়া সাক্ষাৎকারে আধো আধো রাশিয়ান টানে বলেছিলেন, ‘বেশ কয়েকবার বাংলাদেশ গিয়েছি, আমার বাবার দেশ আমাকে টানে।’ সেই টান আমাদেরও আছে। মার্গারিটা মামুনের সাফল্যের সঙ্গে সঙ্গে উচ্চারিত হচ্ছে বাংলাদেশের নাম, জগতবাসী অদৃশ্যভাবেই দেখছে বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা।

প্রতিবেদনঃ বিধুনন জাঁ সিপাই, প্রকাশ: তুসা


সর্বশেষ

আরও খবর

৭ অক্টোবরের আগে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে না বাংলাদেশ

৭ অক্টোবরের আগে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে না বাংলাদেশ


শর্ত মেনে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে না বাংলাদেশ: পাপন

শর্ত মেনে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে না বাংলাদেশ: পাপন


বিসিবির নিরাপত্তা প্রধান মারা গেছেন

বিসিবির নিরাপত্তা প্রধান মারা গেছেন


দেশে ফিরলেন সাকিব

দেশে ফিরলেন সাকিব


হতাশ হলেও শিখেছেন বাবর আজম

হতাশ হলেও শিখেছেন বাবর আজম


জয়ের ধারায় থাকা ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সমতা ফেরানোর খোঁজে পাকিস্তান

জয়ের ধারায় থাকা ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সমতা ফেরানোর খোঁজে পাকিস্তান


কভিড-১৯: সময়মত আইপিএল শুরু অনিশ্চিত

কভিড-১৯: সময়মত আইপিএল শুরু অনিশ্চিত


বার্সার অনুশীলনে সোমবার মাঠে নামছেন মেসি

বার্সার অনুশীলনে সোমবার মাঠে নামছেন মেসি


মাঠে নামছেন তামিম ইকবাল

মাঠে নামছেন তামিম ইকবাল


২৪ অক্টোবর ক্রিকেটে ফিরছে বাংলাদেশ

২৪ অক্টোবর ক্রিকেটে ফিরছে বাংলাদেশ