Tuesday, July 21st, 2020
বন্যায় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তৎপরতার নির্দেশ
July 21st, 2020 at 3:34 am
রিলিফ বিতরণ কীভাবে হচ্ছে, এ বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করা হয়েছে
বন্যায় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তৎপরতার নির্দেশ

বিশেষ প্রতিনিধি,

ঢাকাঃ দেশের বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় মাঠ প্রশাসনের সবাইকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, বন্যায় দেশের মানুষের যেন কোনো ক্ষতি বা দুর্ভোগ না হয় সেজন্য নজর রাখতে হবে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকতে হবে। যথাযথভাবে সরকারি সহায়তা প্রদান ও উদ্ধার তৎপরতা চালাতে হবে।

গতকাল সোমবার মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠকে অনানুষ্ঠানিক আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী এ নির্দেশনা দিয়েছেন। তিনি গণভবন থেকে বৈঠকে অংশ নেন। বন্যায় ত্রাণ তৎপরতাসহ অন্যান্য কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন সরকারপ্রধান। বৈঠকে ব্যবসা ও বিনিয়োগ বাড়াতে এক ব্যক্তির কোম্পানি ব্যবস্থার বিধান রেখে কোম্পানি (দ্বিতীয় সংশোধন) আইন, ২০২০ এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে বিকেলে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মূলত বন্যা নিয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। বন্যা মোকাবিলায় সবাইকে প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, উজান থেকে পানি এখন ধীরে ধীরে নিচের দিকে নামছে। মন্ত্রিসভায় এসব নিয়ে অনানুষ্ঠানিক আলোচনা হয়েছে। রিলিফ বিতরণ কীভাবে হচ্ছে, এ বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এখন যমুনা ও পদ্মার পানি আসছে। মেঘনার পানি নেমে গেছে। জেলা প্রশাসন, পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ সংশ্নিষ্ট সবাই এ বিষয়ে প্রস্তুত আছে। এটা প্রতিদিন মনিটর করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে কী নির্দেশনা দিয়েছেন জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, বন্যার সময় চরাঞ্চলের মানুষ বাঁধের দিকে চলে আসে। এসব মানুষের যাতে কোনো ক্ষতি না হয় বা যাতে ত্রাণের কোনো ঘাটতি, জীবন-জীবিকার কোনো অসুবিধা না হয় সে বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি টয়লেট সুবিধা, পানি শোধনাগার, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট পর্যাপ্ত রাখতে সংশ্নিষ্টদের বলা হয়েছে। ইউনিয়ন পর্যায়ে কর্মরতদের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকার নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি।

এক ব্যক্তির কোম্পানি আইনের খসড়া অনুমোদন : মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ব্যবসা ও বিনিয়োগ বাড়াতে এক ব্যক্তির কোম্পানি ব্যবস্থার বিধান রেখে কোম্পানি (দ্বিতীয় সংশোধন) আইন, ২০২০-এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সংশোধিত আইনে এক ব্যক্তির কোম্পানি নিবন্ধন ব্যবস্থাপনার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। শেয়ার হস্তান্তরের ক্ষেত্রে শেয়ারহোল্ডারধারী পাওয়ার অফ অ্যাটর্নির মাধ্যমে শেয়ার হস্তান্তর করতে পারবেন।

তিনি বলেন, সংশোধিত আইনে অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করার বিধান অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এখনকার বিধান অনুযায়ী ১৪ দিনের নোটিশে বোর্ড মিটিং হয়, কিন্তু বিনিয়োগকারীদের অনুরোধে সেটি বাড়িয়ে ২১ দিন করা হয়েছে। কারণ অনেকে দেশের বাইরে থাকেন, তাদের ভিসাসহ নানা বিষয় রয়েছে। বিদেশি বিনিয়োগকারীদের দাবির প্রেক্ষিতেই মূলত এটি করা হয়েছে। এক ব্যক্তির কোম্পানির বিষয়টি যুক্ত হওয়ার ফলে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়বে বলে আশা করছে সরকার।

ভিসার কাজ করতে পারবে না ট্রাভেল এজেন্সি : মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, বাংলাদেশ ট্রাভেল এজেন্সি (নিবন্ধন ও নিয়ন্ত্রণ) সংশোধন আইন ২০২০-এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। আগে ট্রাভেল এজেন্সি হস্তান্তরের সুযোগ ছিল না। এখন নিবন্ধন সনদ হস্তান্তর এবং শাখা কার্যালয় স্থাপনের বিধান অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। কোনো আইন বা বিধিমালা লঙ্ঘন করলে সর্বোচ্চ ৬ মাস কারাদণ্ড অথবা অনধিক ৫ লাখ টাকা অথবা উভয় দণ্ডের বিধান রয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, অনেক ট্রাভেল এজেন্সি রিক্রুটিং এজেন্সি হিসেবে কাজ করে। সেটি এখন তারা আর করতে পারবে না। করলে তাদের জরিমানা হবে। কারণ তার কাজ টিকিট করে দেওয়া। কিন্তু অনেক ট্রাভেল এজেন্সি ভিসার বিষয়টিও দেখে। এখন থেকে ট্রাভেল এজেন্সি আর ভিসার কাজ করতে পারবে না। আর নির্ধারিত সময়ের পর জরিমানা দিয়ে ট্রাভেল এজেন্সি নবায়নের সুযোগ রাখা হয়েছে। এখন থেকে ট্রাভেল এজেন্সি অনুমোদন সাপেক্ষে দেশে ও বিদেশে শাখা অফিস খুলতে পারবে।

ফ্রান্স থেকে রাডার কিনবে সরকার : ফ্রান্সের কাছ থেকে রাডার সিস্টেম কিনবে সরকার। এই প্রযুক্তি দিয়ে বাংলাদেশের সীমানা অতিক্রমকারী সব উড়োজাহাজকে শনাক্ত করা যাবে। গতকাল মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠকে এয়ার ফ্রান্স ও বাংলাদেশে বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের মধ্যে স্বাক্ষরের জন্য একটি চুক্তির খসড়া অনুমোদন দেওয়া হয়।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, বৈঠকে বিমান চলাচল সম্পর্কিত কারিগরি সহায়তা ও তথ্য আদান-প্রদানের জন্য ফ্রান্সের ডিরেক্টর জেনারেল অব সিভিল এভিয়েশন এবং বাংলাদেশ সিভিল এভিয়েশন অথরিটির মধ্যে কারিগরি সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষরের খসড়া অনুমোদন দেওয়া হয়। তিনি বলেন, এ চুক্তির ফলে বেসামরিক বিমানের উড্ডয়ন ও রক্ষণাবেক্ষণ পরিকল্পনা আরও উন্নত হবে। বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপনাও আরও উন্নত হবে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব আরও জানান, দেশের রাডার সিস্টেম উন্নত না থাকায় বর্তমানে দেশের আকাশের সব বিমান শনাক্ত করা সম্ভব হয় না।


সর্বশেষ

আরও খবর

সাম্প্রদায়িক নৈরাজ্যে আক্রান্ত ২৩ জেলা

সাম্প্রদায়িক নৈরাজ্যে আক্রান্ত ২৩ জেলা


ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে ইভ্যালি কর্তৃপক্ষ

ওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে ইভ্যালি কর্তৃপক্ষ


ময়মনসিংহে সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহে সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ জনের মৃত্যু


পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার করলো জাতীয় রাজস্ব বোর্ড

পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার করলো জাতীয় রাজস্ব বোর্ড


মিরপুরে খালে পড়ে নিখোঁজ ব্যক্তিকে ৬ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার

মিরপুরে খালে পড়ে নিখোঁজ ব্যক্তিকে ৬ ঘণ্টা পর জীবিত উদ্ধার


কুমিল্লার ঘটনায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: প্রধানমন্ত্রী

কুমিল্লার ঘটনায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: প্রধানমন্ত্রী


ফেসবুকে কিডনি বেচাকেনা, চক্রের ৫ সদস্য গ্রেপ্তার

ফেসবুকে কিডনি বেচাকেনা, চক্রের ৫ সদস্য গ্রেপ্তার


সেই ভুয়া অতিরিক্ত সচিবের বিরুদ্ধে মামলা করবেন মুসা বিন শমসের

সেই ভুয়া অতিরিক্ত সচিবের বিরুদ্ধে মামলা করবেন মুসা বিন শমসের


হাসপাতালে ভর্তি হলেন খালেদা জিয়া

হাসপাতালে ভর্তি হলেন খালেদা জিয়া


শান্তিতে নোবেল পেলেন দুই সাংবাদিক

শান্তিতে নোবেল পেলেন দুই সাংবাদিক