Saturday, July 13th, 2019
বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হওয়ার শঙ্কা
July 13th, 2019 at 10:47 am
বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হওয়ার শঙ্কা

ঢাকা: সারাদেশে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিতে যাচ্ছে। ভারী বর্ষণের কারণে ১০ জেলায় নদ-নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র বলছে, ভারত থেকে নেমে আসা ঢলের পাশাপাশি দেশের প্রায় সব জায়গায় ভারী বর্ষণ অব্যাহত থাকায় আগামী সপ্তাহে বন্যার বিস্তার দেশের মধ্যাঞ্চল পর্যন্ত ছড়াতে পারে।

এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মাঠ পর্যায়ের সঙ্গে সমন্বয় করে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলে  ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, দুর্গত জেলাগুলোতে সাড়ে ১৭ হাজার মেট্রিকটন চাল, ৫০ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার পাঠানোর পাশাপাশি দুই কোটি ৯৩ লাখ নগদ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া প্রতি জেলায় ৫০০টি করে তাঁবু এবং মেডিকেল টিম পাঠানো হচ্ছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, আগামি কয়েক দিন ভারী বর্ষণ অব্যাহত থাকতে পারে, তাতে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে পারে।

মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে নদী ভাঙন দেখা দিয়েছে। এছাড়া, জামালপুরে ভাঙনের প্রবণতা লক্ষ্য করা গেছে এবং লালমনিহাটে তিস্তা নদীতে ভাঙন দেখা দিয়েছে। পানিসম্পদ মন্ত্রণালয় দেশের নদ-নদীগুলোর ৬২৮টি ঝুঁকিপূর্ণ পয়েন্ট নির্ধারণ করেছে, এর মধ্যে ২৬টি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভুঁইয়া নিউজনেক্সটবিডিকে জানান, ইতোমধ্যেই নদীর ১৪টি পয়েন্টে পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তিস্তা নদীর পানি ডালিয়া পয়েন্টে বিপদসীমার ২৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। সুরমা নদীর পানি কানাইঘাট পয়েন্টে বিপদসীমার ১০০ সেন্টিমিটার ও সুনামগঞ্জ পয়েন্টে ৯০ সেন্টিমিটার, সিলেট পয়েন্টে ২৫ সেন্টিমিটার, হবিগঞ্চে খোয়াই নদীর পানি বল্লা পয়েন্টে ৬০ সেন্টিমিটার, সোমেশ্বরী নদীর পানি কমলাকান্দা পয়েন্টে ২৭ সেন্টিমিটার, কংস নদীর পানি জারিয়াজাজইল পয়েন্টে ৭০ সেন্টিমিটার, সাঙ্গু নদীর পানি দোহাজারি পয়েন্টে ৪৫ সেন্টিমিটার ও বান্দরবান পয়েন্টে ১৭৭ সেন্টিমিটার, কুশিয়ারা নদীর পানি অমলসিদ পয়েন্টে ৬০ সেন্টিমিটার, শেরপুর পয়েন্টে ৫৫ সেন্টিমিটার, শেওলা পয়েন্টে ৫৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এদিকে যমুনা নদীর পানি বাহাদুরাবাদ পয়েন্টে ১ সেন্টিমিটার ও চিলমারি পয়েন্টে ৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়াও, সুনামগঞ্জের চেলা নদীর পানি বিপদসীমার ৯০ সেন্টিমিটার, পিয়াইন নদীর পানি ১০০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ডাইকি, বটেরখাল ও বোকা নদীর পানিও ১০০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এম কে রায়হান


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় পুলিশের আরেক সদস্যের মৃত্যু

করোনায় পুলিশের আরেক সদস্যের মৃত্যু


৩১ মে থেকে চলবে বাস ট্রেন লঞ্চ, বন্ধ থাকছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

৩১ মে থেকে চলবে বাস ট্রেন লঞ্চ, বন্ধ থাকছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান


করোনায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্তের নতুন রেকর্ড; নতুন আক্রান্ত ২০২৯ জন

করোনায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্তের নতুন রেকর্ড; নতুন আক্রান্ত ২০২৯ জন


ইউনাইটেড হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আগুন, ৫ জনের মরদেহ উদ্ধার

ইউনাইটেড হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আগুন, ৫ জনের মরদেহ উদ্ধার


করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪১

করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪১


বছরের সবচেয়ে শক্তিশালী ঝড়ের হানা ঢাকায়, রেকর্ড বৃষ্টিপাত

বছরের সবচেয়ে শক্তিশালী ঝড়ের হানা ঢাকায়, রেকর্ড বৃষ্টিপাত


সৌদিতে মক্কা বাদে সব শহরে শিথিল হচ্ছে কারফিউ

সৌদিতে মক্কা বাদে সব শহরে শিথিল হচ্ছে কারফিউ


করোনায় সানবিমস স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা নিলুফার মঞ্জুরের মৃত্যু

করোনায় সানবিমস স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা নিলুফার মঞ্জুরের মৃত্যু


শেখ হাসিনাকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন নরেন্দ্র মোদী

শেখ হাসিনাকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন নরেন্দ্র মোদী


হাঁটুপানিতে দাঁড়িয়েই ঈদের জামাত আদায়

হাঁটুপানিতে দাঁড়িয়েই ঈদের জামাত আদায়