Saturday, October 29th, 2016
বরিশালে মহাশশ্মান দিপালী উৎসব
October 29th, 2016 at 4:11 pm
বরিশালে মহাশশ্মান দিপালী উৎসব

বরিশাল: নগরীর কাউনিয়া মহাশশ্মানে শুক্রবার ও শনিবার অনুষ্ঠিত হলো ১৬৬-বছরের ঐতিহ্যের স্মারক উপ-মহাদেশের সবচেয়ে বড় মহাশ্মশান দিপালী উৎসব।

প্রতি বছর ভূত চতুর্দশী পুণ্য তিথিতে বরিশালের এ উৎসবকে ঘিরে ৫ একর ৪১ শতাংশ আয়তনের এ মহাশ্মশান রাতের বেলায় সমাধির ওপর জ্বালানো হয় হাজার হাজার মোমবাতি। একই সঙ্গে পালিত হয় কালিপূজা।

প্রিয়জনের স্মৃতির উদ্দেশ্যে এই দিনে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা মহাশ্মশানে সমবেত হয়ে তাদের প্রয়াত পূর্বপুরুষ ও স্বজনদের স্মরণ ও স্মৃতিচারণ করে সমাধিতে দীপ জ্বালিয়ে দিতে সমবেত হন।

এই প্রথা ১৮৫০ খ্রীষ্টাব্দ থেকে এখানে মহাশ্মশান দিপালী উৎসব নামে পালিত হয়ে আসছে বলে জানিয়েছেন হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা।

বরিশাল মহাশ্মশানের রক্ষা সমিতির সাধারণ সম্পাদক কিশোর কুমার দে  জানান, শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে শনিবার রাত ৮টা ৫ মিনিট পর্যন্ত ভূত চতুর্দ্দশী পুণ্য তিথিতে দু’দিনব্যাপী উপমহাদেশের সর্ববৃহৎ ঐতিহ্যবাহী ‘মহাশ্মশান দিপালী’ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

শনিবার রাত ১২টা ১ মিনিটে কাউনিয়া মহাশ্মশানে ও নতুন বাজার অমৃতাঙ্গনে (আদি শ্মশানে) শ্রীশ্রী কালীপূজা অনুষ্ঠিত হবে।

এ উপলক্ষে সমাধি সৌঁধে শুধু দীপ জ্বালানোই হয়না, মৃত ব্যক্তির ছবি ফুল চন্দন দিয়ে সাজিয়ে রাখা হয় সমাধির উপর। প্রিয়জনের উদ্দেশ্যে খাবার-দাবারও দেয়া হয়ে থাকে। সেই সাথে ধূপ, ধুপকাঠি জ্বালানো হয়।

কেউ কেউ আবার ধর্মীয় গান ও খোল বাদ্য সহকারে কীর্তণ করেন প্রিয়জনের আত্মার সন্তুষ্টির জন্য।

এই উৎসব দেখতে দেশ-বিদেশ থেকে বহু পর্যটকও এসময় বরিশালে আসেন। তাদের কেউ কেউ আত্মীয়-স্বজন ও পরিচিত বন্ধুবান্ধবদের স্মৃতির উদ্দেশ্যেও দীপ জ্বেলে দেয়।

বরিশাল মহাশ্মশানের রক্ষা সমিতির সভাপতি মানিক মুখার্জি জানান, বরিশাল মহাশ্মশান রক্ষা সমিতির পরিচালনায়, সিটি কর্পোরেশনের সহযোগিতায় শ্মশানের যাবতীয় উন্নয়ন কার্যক্রম সৌন্দর্যবর্ধন ও ঐতিহ্যবাহী শ্মশান দিপালী উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতারা আশা করছেন ১৬৬ বছরের পুরোনো মহাশ্মশান দিপালীতে এবার হাজার হাজার লোকের সমাগম ঘটবে।

দিপালী উৎসবে মহাশ্মশান রক্ষা সমিতি দুদিনব্যাপী ধর্মীয় অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক নারায়ন চন্দ্র নারু জানিয়েছেন, এ শ্মশানে প্রতি বছরে প্রায় ৩ শত মৃতদেহ দাহ করা হয়। এখানে পাকা সমাধি রয়েছে ৫ হাজারেরও বেশি। এর মধ্যে নয় শতের বেশী সমাধি রয়েছে যাদের কোনো স্বজন নেই। এ ধরনের শ্মশানকে নির্দিষ্ট রং দিয়ে আলাদা করে চিহ্নিত করা হয়েছে। এ সব সমাধিতে হয়তো কোনো দিন কেউ ফুল দেবে না। তবুও শ্মশান দিপালী উৎসবে দীপ জ্বেলে দেয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে শ্মশানের রক্ষা সমিতির পক্ষ থেকে। মানুষ মরে গেলে স্মৃতি ধরে রাখার এই চেষ্টার মধ্য দিয়েই রয়েছে পূর্বসূরীর প্রতি উত্তর প্রজন্মের বিনম্র শ্রদ্ধা।

শ্মশান সমিতির নেতৃবৃন্দ জানান মৃত্যুর ৮০ বছর পর ২০১৩ সালে ভারতের কেওড়াতলা মহাশ্মশান থেকে মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তের চিতাভস্ম এনে এ মহামশ্মশানে স্থাপন করা হয়েছে।

এছাড়াও এ মহাশ্মশানে রয়েছে ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের অগ্নিপুরুষ বিপ্লবী দেবেন্দ্র নাথ ঘোষ, মনোরমা বসু মাসিমা, রাজনীতিবিদ শরৎচন্দ্র গুহ, শিক্ষাবিদ কালি চন্দ্র ঘোষ, ভাষা সৈনিক রাণী ভট্টাচার্য, জঙ্গি হামলায় নিহত জজ জগন্নাথ পাঁড়ে, চারুশিল্পী বলহরি সাহা, শ্যামপুরের জমিদার কুমুদ বন্ধু রায় চৌধুরী (নাটু বাবু), কবি রবীন সমদ্দার, সাংবাদিক আইনজীবী মিহির লাল দত্ত, রূপসী বাংলার কবি জীবনানন্দ দাশের পিতা সত্যানন্দ দাশ ও পিতামহ সর্বানন্দ দাশসহ বিভিন্ন খ্যাতনামা ব্যক্তিবগের্র সমাধি।

এদিকে এ উৎসবকে ঘিরে কিছুটা বাণিজ্য মুখর হয়ে পড়বে বরিশাল। দেশ-বিদেশের মানুষ আসতে শুরু করায় ইতিমধ্যে হোটলগুলো কক্ষ বুকিং হয়ে গেছে।

শ্মশান ও এর আশপাশের এলাকায় বাড়ছে মানুষের পদচারণা। বসানো হয়েছে শ্মশান ঘাট এলাকায় মেলা। সেখানে এবারেও থাকছে ২৫ টির মতো স্টল।

স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতারা আশা করছেন এবার মহাশ্মশানে দিপালীতে হাজার হাজার লোকের সমাগম ঘটবে।

গত ৭ দিন ধরে চলা রং, মাটি দেয়া ও ইট-পাথরের খুটিনাটি মেরামত এবং সমাধি পরিস্কার-পরিচ্ছন্নের পাশাপাশি শ্মশান এলাকাজুড়ে আলোকসজ্জার কাজ ব্যবস্থা করা হয়েছে। এবারে প্রথম বারের মতো ২৫ টি লাইটপোষ্ট বসিয়ে আলোকসজ্জায় নতুনত্ব আনার কাজ করেছে সিটি কর্পোরেশন।

শ্মশানে আগতদের সেবা প্রদানে নিয়োজিত থাকছেন দেড়শ’ স্বেচ্ছাসেবক।                                                                           এদিকে শ্মশান-দিপালী উৎসবের সার্বিক নিরাপত্তা রক্ষায় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ। নিরাপত্তার দায়িত্বে পোশাকধারী র‌্যাব-পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উৎসব এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বরিশাল মেট্রপলিটান পুলিশ কমিশনার এস এম রুহুল আমিন।

প্রতিনিধি, সম্পাদনা: জাহিদ

 


সর্বশেষ

আরও খবর

ছেলেকে উদ্ধারে সেপটিক ট্যাংক নেমে বাবারও মৃত্যু

ছেলেকে উদ্ধারে সেপটিক ট্যাংক নেমে বাবারও মৃত্যু


যুবলীগের এক নেতাকে কোপাল আরেক যুবলীগে নেতা

যুবলীগের এক নেতাকে কোপাল আরেক যুবলীগে নেতা


কুমিল্লায় বাসে লাগা আগুনে ১৪ জন বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি

কুমিল্লায় বাসে লাগা আগুনে ১৪ জন বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি


নোয়াখালীর বসুরহাটে ১৪৪ ধারা জারি

নোয়াখালীর বসুরহাটে ১৪৪ ধারা জারি


শিক্ষার্থীকে নির্মম নির্যাতন; শিক্ষককে ছাড়িয়ে নিল শিক্ষার্থীর বাবা-মা

শিক্ষার্থীকে নির্মম নির্যাতন; শিক্ষককে ছাড়িয়ে নিল শিক্ষার্থীর বাবা-মা


একদিনেই সড়কে ঝড়ল ১৯ প্রাণ

একদিনেই সড়কে ঝড়ল ১৯ প্রাণ


নামাজ পড়ানোর সময় সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু

নামাজ পড়ানোর সময় সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু


ডুবে যাওয়ার ২৫ ঘণ্টা পর মিলল লাশ

ডুবে যাওয়ার ২৫ ঘণ্টা পর মিলল লাশ


সোনারগাঁয়ে দুই বাসের রেষারেষিতে প্রাণ গেল ৩ পথচারীর

সোনারগাঁয়ে দুই বাসের রেষারেষিতে প্রাণ গেল ৩ পথচারীর


করোনা নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশের সুনাম বেড়েছে, দাবি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

করোনা নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশের সুনাম বেড়েছে, দাবি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর