Sunday, October 9th, 2016
দুর্দান্ত জয়ে সিরিজে সমতা আনলো বাংলাদেশ
October 9th, 2016 at 3:52 pm
দুর্দান্ত জয়ে সিরিজে সমতা আনলো বাংলাদেশ

ঢাকা: ইংল্যান্ডের সাথে সিরিজে টিকে থাকতে হলে এই ম্যাচে জয় ছাড়া কোনও পথ নেই। হয়তো এই চাপ সামলাতে না পেরেই টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ভেঙে পরে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন আপ। তবে শেষ পর্যন্ত মাশরাফি-মাহমুদউল্লার কাঁধে ভর দিয়ে ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ২৩৮ রান করে বাংলাদেশ। দলের পক্ষে মাহমুদউল্লাহর ৭৫ রানের সঙ্গে শেষ দিকে মাশরাফি বিন মর্তুজা খেলেন ২৯ বলে ৪৪ রানের ইনিংস। আর সেই সাথে মাশরাফিকে সংগ দেয়া নাসির দায়িত্বশীল ব্যাটিং করে করেন ২৭ বলে ২৭ রান।

জবাবে খেলতে নেমে ইনিংসের শুরুতেই ইংল্যান্ডকে চেপে ধরার চেষ্টা করে বাংলাদেশ। সাকিবের প্রথম বলেই দারুণ আবেদন করেও আম্পায়ার আলীম দারের ‘না’ সিদ্ধান্ত বদলাতে পারে নি।  তবে সাফল্য পেতে বেশি দেরী হয় নি টাইগারদের, আর প্রথম সাফল্য আসে অধিনায়ক মাশরাফির বল থেকে। ওপেনার জেমস ভিন্সকে মোসাদ্দেকের তালুবন্দী করে ফেরান তিনি। ভিন্স ১০ বল খেলে করেন ৫ রান। এরপরের ওভারেই আঘাত হানেন সাকিব আল হাসান। সরাসরি বোল্ড আউট করেন ০ রান করা বেন ডাকেটকে।

এরপর বেয়ারস্টোকে সাথে নিয়ে ক্রিজে কিছুটা সময় জমে থাকার চেষ্টা করেন জেসন রয়। টাইগার ফিল্ডাররাও এসময় ইংলিশদের চারপাশ থেকে জালের মতো জড়িয়ে ধরে। ফলে খুব একটা সুবিধা করে উঠার আগেই আবার আঘাত হানেন মাশরফি। এবার এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে রয়কে ফেরান এই রয়েল বেঙ্গল টাইগার। আউট হওয়ার আগে ২১ বলে ১৩ রান করেন রয়। তবে মাশরাফির ঝুলিতে তখনো অনেক যাদু দেখানোর বাকী। ক্রিজে তখন গত ম্যাচে সেঞ্চুরিয়ান বেন স্টোকস। কিন্তু ‘আহত বাঘ’ মাশরাফিকে ঠেকাবেন এমন সাধ্য কার। ফলাফল সরাসরি বোল্ড। এই ম্যাচে রানের খাতা খোলার আগেই ফিরতে হয়েছে স্টোকসকে।

তারপরই টাইগারদের গলায় কাঁটা হয়ে বিধতে থাকেন বেয়ারস্টো আর বাটলার। তাসকিন-শফিউলদের ঠান্ডা মাথায় খেলে সচল করতে থাকেন ইংলিশদের রানের চাকা।  এই দুইজন মিলে গড়ে তুলেন ৭৯ রানের জুটি। এক পর্যায়ে এই দুইজনের ব্যাটে পথ হারাতে শুরু করেছিল টাইগাররা। তবে এবার বাংলাদেশের ত্রাতা হয়ে আভির্ভুত হয় তাসকিন আহমেদ আর নাসির হুসেন। বেয়ারস্টোকে মুশফিকের ক্যাচ বানিয়ে ফেরান তাসকিন। আউট হওয়ার আগে এই ইংলিশ ৫৩ বলে ৩৫ করেন।

এর পর ক্রিজে আসা মঈন আলীকে সাকিব আল হাসানের দুর্দান্ত ক্যাচে পরিণতি দিয়ে মাঠের বাইরে পাঠান নাসির। মঈন করেন ৪ রান। তবে অধিনায়ক বাটলার তখনো কাঁটা হয়ে বিঁধে আছেন টাইগারদের গলায়। কোন ভাবেই একে পরাস্ত করতে পারছিল না বোলাররা। আবারো বল হাতে এগিয়ে আসেন ওই তাসকিনই। তবে এবার তার এলবিডব্লিউর আবেদনে সাড়া না দেয়ায় আম্পায়ার সৈকতকে চ্যালেঞ্জ জানান অধিনায়ক মাশরাফি। আর টিভি আম্পায়ার রিপ্লে দেখে বাটলারের ‘মৃত্যু’ ঘোষণা করতে সামান্যতম দ্বিধাবোধ করেননি।

তবে তাসকিনের বিষাক্ত শর তখনো অনেক বাকী। ইংলিশ টেল এন্ডার ক্রিস ওকস আর আদিল রাশিদ ওইকেটের সামনে দাঁড়িয়ে সে শর একটার পর একটা কেবল ফিরিয়ে যাচ্ছিলেন তারা। তাসকিন কতক্ষণ টেকানো সম্ভব? ফলে কিছু সময় পর আবার আঘাত হানেন তাসকিন। এবার তার শিকারে পরিণত হন ক্রিস ওকস। মুশফিকের হাতে ক্যাচ হওয়ার আগে করেন ৭ রান।

 এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ইংলিশদের স্কোর ২৯.১ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৩২ রান। 

এর আগে শুরুতে তামিম-ইমরুলের ২৫ রানের জুটি বাংলাদেশকে বড় সংগ্রহের স্বপ্ন দেখালেও, সেই স্বপ্ন ভাঙতে বেশি দেরি হয়নি ক্রিকেট ভক্তদের। দলীয় ২৫ ও ২৬ রানে ক্রিস ওকস আউট করে সাজঘরে ফেরান এই দুই ব্যাটসম্যানকে। ১৮ বলে দুটি বাউন্ডারিতে ১১ রান করেন ইমরুল। ৩১ বলে ১৪ রান করেন আরেক ওপেনার তামিমও।

তামিম ইমরুল ফিরে যাওয়ার পর ফিরে যান সাব্বির রহমানও। জ্যাক বালের অফসাইড দিয়ে বের হয়ে যাওয়া একটি বলকে টেনে এনে বোল্ড হন তিনি। এর আগে নিজেকে খোলসে বন্দী রেখে ২১ বল খেলে করেন ৩ রান। এরপর মুশফিক-মাহমুদউল্লাহর ব্যাটে মোটামুটি সম্মানজনক রানের স্বপ্ন দেখছিল বাংলাদেশ। তবে পঞ্চাশ রানের জুটি গড়ার পর মুশফিকও জ্যাক বালের ফাঁদে পড়েন। দলীয় ৮৯ রানের মাথায় ব্যাক্তিগত ২১ রান করে ফিরে যান মুশফিক।

মুশির পর মাহমুদউল্লার সাথে জুটি বাঁধেন সাকিব আল হাসান। আগের ম্যাচেই অর্ধশতক করা এই ব্যাটসম্যান এই ম্যাচে নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে পারননি। স্টোকসের বলে উ্‌কেটের পেছনে দাঁড়ানো বাটলারের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন তিনি। ১৪ বলে ৩ রান করা এই ব্যাটসম্যান যখন মাথা নীচু করে মাঠ ছাড়ছেন বাংলাদেশের স্কোর তখন ৫ উইকেটে ১১৩ রান।

এরপরই রিয়াদকে সংগ দিতে মাঠে নামেন মোসাদ্দেক সৈকত। রিয়াদ-সৈকত জুটি স্কোর বোর্ডে ৪৮ রান যোগ করার পর আদিল রাশিদের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে রিয়াদ আউট হন। বাংলাদেশের স্কোর তখন ৬ উইকেটে ১৬১ রান। এর ৮ রান পর মোসাদ্দেকও আউট হয়ে গেলে বাংলাদেশের স্কোর ২০০ হবে কিনা তা নিয়ে দেখা দেয় সংশয়।

সেখান থেকে দলকে এত দূর পর্যন্ত নিয়ে গেছেন মাশরাফি। লোয়ার অর্ডারের থাকা ব্যাটসম্যানরা রান পান না, এ নিয়ে আগের ম্যাচে আলোচনা হয়েছিল খুব। বাংলাদেশ অধিনায়ক নিজেও জানিয়েছিলেন, নিচ দিকের ব্যাটসম্যানরা সাহায্য না করলে জেতা কঠিন হয়ে যাবে। দায়িত্বটা তাই নিজের কাঁধেই নিলেন মাশরাফি। ইংলিশ বোলারদের ওপর দিয়ে ঝড় বইয়ে দিয়ে ২৯ বলে ২ চার ও ৩ ছ্ক্কায় করেছেন ৪৪ রান। যোগ্য সঙ্গ দিয়েছেন নাসির। দীর্ঘদিন পর একাদশে জায়গা পাওয়া নাসির অপরাজিত ছিলেন ২৭ রানে।

ইংল্যান্ডের পক্ষে ২ টি করে উইকেট দখল করেন জ্যাক বাল, ওকস ও আদিল রাশিদ। আর একটি উইকেট দখল করেন বেন স্টোকস।

গ্রন্থনা: তুসা


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় ৩৭ জনের মৃত্যু

করোনায় ৩৭ জনের মৃত্যু


শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি


দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির

দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির


ভারতে আবার সংক্রমণের রেকর্ড, একদিনে মৃত্যু প্রায় ৪০০০

ভারতে আবার সংক্রমণের রেকর্ড, একদিনে মৃত্যু প্রায় ৪০০০


দেশে করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৮২২

দেশে করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৮২২


খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী

খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী


যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


করোনায় কমলো মৃত্যু ও শনাক্তের হার; মৃত্যু ৫০ আর শনাক্ত ১ হাজার ৭৪২

করোনায় কমলো মৃত্যু ও শনাক্তের হার; মৃত্যু ৫০ আর শনাক্ত ১ হাজার ৭৪২


১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি

১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি


২১ দিন পর বৃহস্পতিবার থেকে সড়কে গণপরিবহন

২১ দিন পর বৃহস্পতিবার থেকে সড়কে গণপরিবহন