Thursday, June 30th, 2022
বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলের রহস্য উন্মোচন? 
October 28th, 2016 at 11:00 pm
বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলের রহস্য উন্মোচন? 

ফারহানা করিম চৌধুরী, ডেস্ক: বারমুডা ট্রায়াঙ্গেল নিয়ে রহস্যের যেমন শেষ নেই, তেমনি এটি নিয়ে বিশ্ববাসীর কৌতুহলেরও শেষ নেই। বিষয়টি নিয়ে অসংখ্যবার লেখালেখি হয়েছে। কখনো কখনো এই রহস্য সমাধানের খবরও প্রকাশিত হয়েছে। সর্বশেষ ব্রিটিশ প্রভাবশালী পত্রিকা ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলের রহস্য সমাধানের দাবি করা হয়েছে। বিজ্ঞানীদের বিশ্বাস, প্রতি ঘন্টায় ১৭০ মাইল বেগে প্রবাহিত বায়ু ষড়ভুজাকার মেঘের সঙ্গে মিলে আতংক সৃষ্টি করা বায়ু বোমা তৈরি করে। বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলের রহস্যের পিছনে এই বিষয়টিই কাজ করছে বলে ধারণা করেন তারা।

বিজ্ঞানীদের দাবি, এই ঝড়ো বিস্ফোরণের কারণে উক্ত এলাকা দিয়ে চলাচল করা জাহাজ উল্টে গিয়ে সাগরের তলদেশে হারিয়ে যায় এবং উপর দিয়ে যাওয়া প্লেন সমুদ্রে বিধ্বস্ত হয়।

barmuda-triangle-solve-3শতাব্দীব্যাপী উত্তর আটলান্টিক মহাসাগরের ৫ লাখ বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে অন্তত ৭৫টি বিমান এবং শত শত জাহাজ হঠাৎ করে উধাও হয়ে যাওয়ার ঘটনা প্রকাশিত হওয়ার পরেই, এই অঞ্চলটি রহস্যময় এলাকা হিসেবে পরিচিতি লাভ করে। দীর্ঘদিন ধরে বিজ্ঞানীরা এই রহস্যের সমাধানে কাজ করে যাচ্ছেন। বর্তমানে তারা ধারণা করছেন, বিমান এবং জাহাজ নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার পিছনে অদ্ভুত আকৃতির এই মেঘটিই দায়ী।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তথাকথিত এই বায়ু বোমা ৪৫ ফুট উচ্চতার ঢেউ তৈরি করতে পারে।

অ্যারিজোনা স্টেট ইউনিভার্সিটির আবহাওয়া বিভাগের পরিচালক র‍্যান্ডি কারভেনি জানান, ওই অঞ্চলের সাগরজুড়ে ষড়ভুজাকৃতির মেঘের মধ্যেই রয়েছে বায়ু বোমার অস্তিত্ব।

তিনি বলেন, ‘বায়ু বোমাগুলি মাইক্রোবার্স্ট(আকস্মিক,শক্তিশালী, নিম্নগামী স্থানীয় বায়ুপ্রবাহ) দ্বারা গঠিত। এগুলো মেঘের নীচের দিকে নেমে এসে বায়ুর বিস্ফোরণ ঘটায়, এরপর সমুদ্রে আঘাত হানে এবং তরঙ্গ সৃষ্টি করে। এসব তরঙ্গ যখন পরস্পরের সঙ্গে ক্রিয়া করে তখন মাঝে মাঝে বিশাল আকারের ঢেউয়ের সৃষ্টি হয়।’

গবেষকরা জানান, বারমুডা দ্বীপের পশ্চিম প্রান্তের ২২ থেকে ২৫ মাইল এলাকাজুড়ে বিশাল মেঘের অস্তিত্ব রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডো স্টেট ইউনিভার্সিটির স্যাটেলাইট আবহাওয়াবিদ ডক্টর স্টিভ মিলার সায়েন্স চ্যানেলের ‘হোয়াট অন আর্থ’ অনুষ্ঠানে জানান, সাধারণত মেঘের প্রান্ত দেখা যায় না। বেশিরভাগ সময় এদের বিন্যাস এলোমেলো হয়ে থাকে।

বিজ্ঞানীদের বিশ্বাস, বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলের রহস্যের পিছনে রয়েছে আবহাওয়ার এই বিস্ময়কর অস্বাভাবিক আচরণ। বিগত ১০০ বছরে এই অঞ্চলে অন্তত হাজারখানেক মানুষ নিখোঁজ হয়েছেন এবং প্রতি বছর গড়ে ৪টি বিমান এবং ২০টি জাহাজ হারিয়ে যায়।

এদিকে মার্কিন পত্রিকা ওয়াশিংটন পোস্ট এর আবহাওয়া বিষয়ক জনপ্রিয় ব্লগ ‘ক্যাপিটাল ওয়েদার গ্যাং’ বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলের রহস্য সমাধানের দাবির বিরুদ্ধে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এখানে বলা হয়, আবহাওয়াবিদ র‍্যান্ডি কারভেনিকে উল্লেখ করে বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলের রহস্য সমাধানের যে দাবি করা হয়েছে, তা সঠিক নয় বলে জানিয়েছেন স্বয়ং কারভেনি।

ক্যাপিটাল ওয়েদার গ্যাং এ ওয়াশিংটন পোস্টের আবহাওয়া বিষয়ক উপ সম্পাদক অ্যাঙ্গেলা ফ্রিটজ লিখেন, চলতি সপ্তাহে সায়েন্স চ্যানেলের একটি অনুষ্ঠানে বারমুডা ট্রায়াঙ্গেল নিয়ে যা প্রচারিত হয়েছে তা বেশ আলোড়ন ফেলে দিয়েছে। অনুষ্ঠানটিতে দাবি করা হয়েছে, এই অঞ্চলের রহস্যের সমাধান করা হয়েছে। ‘হোয়াট অন আর্থ’ অনুষ্ঠানে অ্যারিজোনা স্টেট ইউনিভার্সিটির আবহাওয়া বিভাগের পরিচালক র‍্যান্ডি কারভেনি বাহামা দ্বীপের পূর্বাঞ্চলে বিখ্যাত রহস্যময় বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলের রহস্য উদ্ঘাটনে সক্ষম হয়েছেন বলে দাবি করা হয়। অথচ বাস্তবে এই অঞ্চলের রহস্য নিয়ে তার কোন আগ্রহ নেই। তিনি ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেন, ‘এই অনুষ্ঠানের সম্পাদনা ভয়ংকর। অনুষ্ঠানটি দেখার পর সত্যিই দুঃখ পেয়েছিলাম।’

barmuda-triangle-solve-2
অনুষ্ঠানটি যুক্তরাজ্যে প্রচারিত হওয়ার সময় অনেক মানুষই এটি দেখেছেন। যুক্তরাজ্যভিত্তিক পত্রিকা সান তাদের অনলাইন সংস্করণে বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলের রহস্য উদঘাটনের দাবি জানিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এরপর নিউইয়র্ক পোস্ট পত্রিকায়ও এধরনের প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। পরবর্তীকালে ডেইলি মেইল, পপুলার মেকানিকস, আরটি, ইন্ডিয়া টাইমসে এই সংক্রান্ত খবর প্রকাশ করা হয়।

এই বিষয়ে কারভেনি জানান, বারমুডা ট্রায়াঙ্গেল অঞ্চলে জাহাজ, বিমানকে টেনে নীচে নামিয়ে অদৃশ্য করার পিছনে মাইক্রোবার্স্টের সম্ভাবনার কথা উল্লেখ করেছিলেন তিনি। তার পরিবর্তে ওই অনুষ্ঠানে এটিকেই যুক্তিসম্মত ব্যাখ্যা হিসেবে তুলে ধরা হয়।

তিনি জানান, অনুষ্ঠানটি প্রচারের আগে অর্থাৎ সম্পাদনার সময় তাকে দেখানো হয়নি। ফলে এখানে কোনো ত্রুটি থাকলে তা সংশোধনের সুযোগও পাননি। তিনি হেসে বলেন, ‘এটি বিস্ময়কর একটি ব্যাপার ছিল। অনুষ্ঠানটি দেখার আগ পর্যন্ত আমি জানতাম না কি ঘটতে চলেছে। আসলে বারমুডা ট্রায়াঙ্গেল নিয়ে গবেষণা করার কোনো আগ্রহ আমার নেই।’

আবহাওয়াবিদ র‍্যান্ডি কারভেনি কেবল অ্যারিজোনা স্টেট ইউনিভার্সিটির আবহাওয়া বিভাগের পরিচালকই নন বরং তিনি জাতিসংঘের বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার নেতৃস্থানীয় রাপোর্টিয়ার। চরম আবহাওয়া বিষয়ক কোনো রিপোর্ট প্রকৃতপক্ষে বিশ্ব রেকর্ড হবে কি না এই বিষয়ে তিনিই চূড়ান্ত মতামত দিয়ে থাকেন। সুতরাং তিনি যদি কোনো বিষয়ে দাবি করেন বলে প্রচার করা হয় তাহলে সেটির গুরুত্ব আছে বৈকি।

এই বিষয়ে কারভেনি বলেন, ‘চ্যানেল কর্তৃপক্ষ দর্শকদের চমকে দেয়ার জন্যই এধরনের তথ্য প্রকাশ করে। দুঃখজনকভাবে বিষয়টি তা নয়।’

এদিকে হোয়াট অন আর্থের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ওয়াগ টিভির স্টিভেন গ্রিন বলেন, ‘কোন রহস্যের মীমাংসার সম্ভাব্য উত্তর দর্শকদের সামনে তুলে ধরার আগে আমরা বিশেষজ্ঞদের মাধ্যমে প্রতিটি গল্পেরই বিভিন্ন তত্ত্ব এবং বিভিন্ন কারণ নিয়ে গবেষণা তুলে ধরার চেষ্টা করি।’     

হোয়াট অন আর্থ অনুষ্ঠানের কথক দর্শকদের উদ্দেশ্যে বর্ণনা করেন, বিজ্ঞানীদের বিশ্বাস উত্তর সাগরে রাডারে ধরা পড়া শক্তিশালী বায়ুপ্রবাহ, বাহামার উপর ভেসে বেড়ানো ষড়ভুজাকার মেঘের নীচেও অস্তিত্বশীল। এবং আবহাওয়াবিদ র‍্যান্ডি কারভেনির ধারণা, বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলের আতংকজনক বায়ুমন্ডলীয় বৈশিষ্ট্যের সঙ্গে এদের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

মূলত ক্যারিবীয় সাগরের এক কল্পিত ত্রিভুজ এলাকা  বারমুডা ট্রায়াঙ্গল। এই  ত্রিভুজের তিন বিন্দুতে আছে ফ্লোরিডা, বারমুডা আর পুয়ের্তো রিকো। তবে এই বিন্দু নির্ধারণ নিয়েও বিতর্ক রয়েছে। এই অঞ্চলে জাহাজ, বিমান অদৃশ্য হয়ে যাওয়ার খবর প্রচারিত হওয়ার পর থেকেই এটি বিশ্বের সবচেয়ে রহস্যময় একটি স্থানে পরিণত হয়েছে।সূত্র: ডেইলি মেইল, ওয়াশিংটন পোস্ট, ইউএসএ টুডে

সম্পাদনা: জাহিদ

 


সর্বশেষ

আরও খবর

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব


আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন

আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন


চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ

চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ


তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন

তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন


অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?

অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?


যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার

যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার


আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০

আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০


সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি

সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি


চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার


সাংবাদিকতা বিরোধী আইন হবে না: মন্ত্রী

সাংবাদিকতা বিরোধী আইন হবে না: মন্ত্রী