Monday, February 20th, 2017
বায়ান্ন’র একুশ
February 20th, 2017 at 10:40 pm
বায়ান্ন’র একুশ

ঢাকা: ছবি যে সত্যিই কথা বলে তা আরেকবার মনে করিয়ে দেয় বায়ান্ন’র ভাষা আন্দোলনের এই ছবিগুলো, যেগুলো চিরঅম্লান হয়ে আঁকা থাকবে বাঙালি হৃদয়ে। আর যুগে যুগে মনে করিয়ে দেবে একুশ আমাদের অহংকার, একুশ আমাদের চেতনা। একুশ মানে মাথা নত না করা। একুশ বাঙালির বাঙালি হওয়ার সোপান।

মা, মাটি আর মাতৃভাষা এই তিনটি আবেগময় শব্দ বাংলার মানুষের সত্তায় মিশে আছে। হয়তো এ জন্যই পৃথিবীর ইতিহাসে মাতৃভাষা রক্ষার দাবিতে অত বড় আন্দোলন বাঙালি জাতি ছাড়া আর কোনো জাতি করেছে বলে ইতিহাস সাক্ষ্য দেয় না।

দাবি ছিল বাংলাকে অন্যতম রাষ্ট্রভাষা করার। সেই দাবি এগিয়ে নিতে গিয়ে এ দেশের দামাল ছেলেরা বাংলা ভাষাভাষির রাষ্ট্র বাংলাদেশ আদায় করে ছাড়লেন। বাংলা ভাষা তো বেঁচে রইলোই পর্যায়ক্রমে ভাষা আন্দোলন একটি দেশের স্বাধীনতা আন্দোলনে রূপ নিল এবং ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার গৌরব অর্জন করলো। নিউজনেক্সটবিডি ডটকমের পাঠকদের জন্য বায়ান্ন’র ভাষা আন্দোলনের সংগৃহিত কিছু আলোকচিত্র তুলে ধরা হলো:

১৯৫২ সালের একুশে ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহাসিক আমতলায় ছাত্র সমাবেশের একাংশ

১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারির ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

 

১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারির ভাষা মিছিল

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ভাষা সংগ্রামী ছাত্র-ছাত্রীদের ১৪৪ ধারা ভাঙার দৃশ্য

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ভাষা সংগ্রামী ছাত্র-ছাত্রীদের ১৪৪ ধারা ভাঙার দৃশ্য

২২শে ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেডিকেল কলেজ প্রাঙ্গনে জানাজ শেষে বিশাল মিছিল বের হয়

একুশে ফেব্রুয়ারি ১৯৫৩ : পুরান ঢাকা কলেজ প্রাঙ্গনে ইডেন কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রীদের শহীদ মিনার নির্মান

ঢাকা শহীদ মিনার

১৯৫৬ সালের ২১শে ফেব্রুয়ারি আবুল বরকতের পরিবারের সদস্যরা শহীদ মিনারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন

ছবি: সংগৃহিত, সম্পাদনা: প্রীতম সাহা সুদীপ


সর্বশেষ

আরও খবর

দেশে আরও ৯৫০০ জনের করোনা শনাক্ত, হার ২৫ ছাড়াল

দেশে আরও ৯৫০০ জনের করোনা শনাক্ত, হার ২৫ ছাড়াল


টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী


অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন

অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন


আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর

আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর


কমলো এলপিজির দাম

কমলো এলপিজির দাম


উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন


ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব

ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব


ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার


আবার রক্তক্ষরণ হলে খালেদা জিয়ার মৃত্যুঝুঁকি বাড়বে

আবার রক্তক্ষরণ হলে খালেদা জিয়ার মৃত্যুঝুঁকি বাড়বে