Thursday, September 1st, 2016
বিএনপির ৩৮ বছর
September 1st, 2016 at 11:07 am

ঢাকা: দেশের অন্যতম বৃহৎ রাজনৈতিক দল বিএনপির ৩৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর)। ১৯৭৮ সালের ১ সেপ্টেম্বর রমনা গ্রিনে এক সম্মেলনের মাধ্যমে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদের ওপর ভিত্তি করে ১৯ দফা কর্মসূচিকে সামনে রেখে বিএনপি গঠন করেন।

বিএনপি গঠনের মাত্র তিন বছরের মাথায় চট্টগ্রামে এক সেনা অভ্যুত্থানে নিহত হন জিয়াউর রহমান। জিয়াউর রহমানের মৃত্যুর পর বিএনপির হাল ধরেন তার স্ত্রী দলের বর্তমান চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তিনবার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার গৌরবও অর্জন করেন তিনি। সর্বশেষ ২০১৬ সালের ১৯ মার্চ বিএনপির ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলে আবারও বিএনপির চেয়ারপারসন নির্বাচিত হন খালেদা জিয়া।

দুই দফায় নির্দলীয় সরকারের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে ব্যর্থ হয়ে মামলা-হামলায় বিপর্যস্ত দলটির নেতাকর্মীরা। দল গুছিয়ে আবারো আন্দোলনের প্রস্তুতি নেয়াই এবারের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দলটির জন্য মূল চ্যালেঞ্জ বলে মনে করেন নীতিনির্ধারকরা। কারণ সংগঠন গোছাতে নতুন কমিটি গঠনের যে প্রতিবন্ধকতা ছিল তাও শেষ হয়েছে গত মাসেই।

বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, কয়েক বছরের মতো এবারো সাদামাটাভাবেই প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজন করেছে দলটি। এ উপলক্ষে কেন্দ্রীয়ভাবে মাত্র একদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

BNP 2

কর্মসূচি: বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দসহ সব নেতাকর্মী শেরেবাংলা নগরস্থ জিয়াউর রহমানের মাজারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ ও ফাতেহা পাঠ করবেন।

এছাড়া বিএনপির উদ্যোগে দুপুর ২টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ছাড়াও দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া উপস্থিত থাকবেন। বক্তব্য রাখবেন দেশের বরেণ্য ব্যক্তিবর্গ।দিবসটি উপলক্ষে খালেদা জিয়া বাণীও দিয়েছেন। এছাড়া যথাযথভাবে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করবে সারাদেশে মহানগর, জেলা, থানা-উপজেলা, পৌরসভা ও সব ইউনিট।

তবে অনুমতি না পাওয়ায় প্রস্তুতি নেওয়ার পরও প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শোভাযাত্রা করতে পারছে না বিএনপি। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কয়েকদিন আগেই রাজধানীতে শোভাযাত্রা করার অনুমিত চেয়ে চিঠি দিয়েছিল বিএনপি। কিন্তু সে অনুমতি দেওয়া হয়নি।

টানা ১০ বছর রাষ্ট্রক্ষমতা ও ৩ বছর সংসদের বাইরে থাকা বিএনপি সাংগঠনিকভাবে দুর্বল ও আত্মবিশ্বাসের জায়গায় কিছুটা নড়বড়ে হয়ে পড়েছে। দলের শীর্ষ পর্যায় থেকে শুরু করে তৃণমূল পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছে হতাশা। কাউন্সিলের বেশ কয়েকমাস পর সম্প্রতি দলটি নতুন করে তাদের কমিটি ঘোষণা করেছে। যদিও সেখানে অসন্তোষের বিষয়টি বেরিয়ে এসেছে। অন্যদিকে কয়েক দফা আন্দোলনের পর দলটির অনেক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে, অনেকে রয়েছেন কারাগারে।

BNP 3

কমিটি গঠনের পর দলের প্রথম সারির কয়েকজন নেতা পদত্যাগ করেছেন এতে দলের মধ্যে কতটা ঐক্য রয়েছে এই প্রশ্নে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, ‘পদত্যাগের কথাটার এখনো শোনাকথা পর্যায়ে, কিন্তু বাস্তব পর্যায়ে সেটার বাস্তবতা এখন নেই। তাছাড়া এটা একটা বৃহত্তম রাজনৈতিক দল, এখানে কিছুটা অসন্তোষ থাকবেই।’

নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলার ব্যাপারে গয়েশ্বর বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমিও অর্ধশত মামলার মধ্যে আছি। তবে এর চেয়ে বেশি মামলা রয়েছে তৃণমূল পর্যায়ে। এগুলোকে মোকাবেলা করে যখন আমরা আছি, তার মানে আমরা সঠিক পথে এবং জনগণের পূর্ণ সমর্থন আছে। এই শক্তিতেই আমাদের আগামী দিনের পথ চলার বড় মনোবল। আমরা অনেক কিছু পারছি, অনেক কিছুই পারি না। তবে মনে করি, শেষ ভাল যার সব ভাল তার।’

কিছুদিন আগে জাতীয় ঐক্য গড়ার প্রশ্নে জোটের অন্যতম দল জামায়াত ইসলামি নিয়ে প্রশ্ন উঠে, দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘বিষয়টা পরিষ্কার করে বোঝা দরকার যে আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য জাতীয় ঐক্যের ডাক দেন নি, তিনি উগ্রবাদ জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে নিঃশর্ত ভাবে দল মতের ঊর্ধ্বে থেকে জাতীয় ঐক্যের ডাক দিয়েছিলেন।’

‘কিন্তু মাঝখানে বিতর্ক সৃষ্টি হল জামায়াত থাকবে কি থাকবে না। এখন প্রশ্নটা হলো জামায়াত সমস্যা না উগ্রবাদ সমস্যা?’ প্রশ্ন রাখেন গয়েশ্বর।

জামায়াতে ইসলামির প্রশ্নটা অত্যন্ত রাজনৈতিক। জামায়াতকে সরকার চায়, সরকার না পেলে বিরুদ্ধ করবে। আমরা না পেলে আমরা বিরুদ্ধ করবো। এটা স্বাভাবিক রাজনৈতিক রেওয়াজ। সুতরাং আজকের রাজনীতির আন্দোলনের কৌশলে গণতান্ত্রিক আন্দোলনে যে আমার সাথে থাকবে তাকে আমি বাদ দেব কেন? কী কারণে বাদ দেব? বলেন তিনি।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: ইয়াসিন


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় চার মাস পর সর্বনিম্ন ২১ জনের মৃত্যু

করোনায় চার মাস পর সর্বনিম্ন ২১ জনের মৃত্যু


ডিসেম্বরের মধ্যে দেওয়া হবে ১০ কোটি টিকা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ডিসেম্বরের মধ্যে দেওয়া হবে ১০ কোটি টিকা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী


গ্রামীণ ব্যাংকের বিরুদ্ধে ২ মামলা

গ্রামীণ ব্যাংকের বিরুদ্ধে ২ মামলা


করোনায় সারাদেশে আরও ২৪ জনের মৃত্যু

করোনায় সারাদেশে আরও ২৪ জনের মৃত্যু


দাখিল পরীক্ষা শুরু ১৪ নভেম্বর

দাখিল পরীক্ষা শুরু ১৪ নভেম্বর


এ বছরই দেশে ফাইভ জি চালু হবে: জয়

এ বছরই দেশে ফাইভ জি চালু হবে: জয়


বিমানবন্দরে শুরু হলো করোনার পরীক্ষামূলক পরীক্ষা

বিমানবন্দরে শুরু হলো করোনার পরীক্ষামূলক পরীক্ষা


ই-কমার্স বন্ধ না করে প্রতারণা ঠেকাতে আইন করার মতামত ৪ মন্ত্রীর

ই-কমার্স বন্ধ না করে প্রতারণা ঠেকাতে আইন করার মতামত ৪ মন্ত্রীর


করোনায় আরও ২৬ জনের মৃত্যু, চার মসে সর্বনিম্ন

করোনায় আরও ২৬ জনের মৃত্যু, চার মসে সর্বনিম্ন


ভারতে দুই হাজার টন ইলিশ রফতানির অনুমতি

ভারতে দুই হাজার টন ইলিশ রফতানির অনুমতি