Tuesday, January 3rd, 2017
বিদায়ী বছরের আলোচিত হত্যাকাণ্ড
January 3rd, 2017 at 9:20 am
বিদায়ী বছরের আলোচিত হত্যাকাণ্ড

প্রীতম সাহা সুদীপ, ঢাকা: কালের গর্ভে হারিয়ে গেল আরও একটি বছর। অনেক ঘটনা-দুর্ঘটনা, প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি, চড়াই-উৎরাই, উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা ও আনন্দ-বেদনার সাক্ষী ছিল বিদায়ী বছর (২০১৬)। বছরটিতে সারা দেশে চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছিল বেশ কয়েকটি হত্যাকাণ্ড।

বছরের শুরুতেই মায়ের হাতে দুই সন্তান খুনের ঘটনায় চমকে গিয়েছিল গোটাদেশ। এছাড়াও বছর জুড়ে আলোচনায় ছিল সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের ছাত্রী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনু, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক ড. এএফএম রেজাউল করিম সিদ্দিকী, হবিগঞ্জে চার শিশু, নারায়ণগঞ্জে এক পরিবারের পাঁচজন এবং চট্টগ্রামে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ ইরফান চৌধুরী হত্যাকাণ্ড।

নারায়ণগঞ্জে এক পরিবারের পাঁচজনকে হত্যা

নারায়ণগঞ্জের বাবুরাইল এলাকায় ১৬ জানুয়ারি একই পরিবারের পাঁচজন খুন হন। পারিবারিক দ্বন্দ্ব ও এক নারীর প্রতি আসক্তির জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত পাঁচজন হলেন— মোরশেদ, তার বোন তাসলিমা এবং তাসলিমার দুই সন্তান শান্ত ও সুমাইয়া, তাসলিমার দেবরের স্ত্রী লামিয়া। তাদের বাড়ি ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার চরবেলাবোয়। নারায়ণগঞ্জের বাবুরাইলে তারা ভাড়া থাকতেন। এ ঘটনায় নিহত তাসলিমার স্বামী শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে ১৭ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় অজ্ঞাত ৫-৬ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় শফিকুল ইসলামের ভাগ্নে মাহফুজকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে নারায়ণগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাইদুজ্জামানের আদালতে মাহফুজ ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। মাহফুজ একাই পাঁচজনকে হত্যা করে বলে জবানবন্দিতে স্বীকার করেন।

হবিগঞ্জের বাহুবলে চার শিশুর লাশ উদ্ধার

হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার ভাদেশ্বর ইউনিয়নের সুন্দ্রাটিকি গ্রামে ১৭ ফেব্রুয়ারি মাটিতে পুঁতে রাখা অবস্থায় উদ্ধার করা হয় চার শিশুর লাশ। তার পাঁচ দিন আগে নিখোঁজ হয় শিশুরা। নিহতরা হলো— সুন্দ্রাটিকি গ্রামের মো. ওয়াহিদ মিয়ার ছেলে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র জাকারিয়া আহমেদ শুভ (৮), তার দুই চাচাতো ভাই আবদুল আজিজের ছেলে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র তাজেল মিয়া (১০) ও আবদাল মিয়ার ছেলে প্রথম শ্রেণির ছাত্র মনির মিয়া (৭) এবং তাদের প্রতিবেশী আবদুল কাদিরের ছেলে মাদরাসার ছাত্র ইসমাঈল হোসেন (১০)।

ময়নাতদন্ত রিপোর্ট অনুসারে, বুকের পাঁজর ভেঙে ও শ্বাসরোধে হত্যা করা হয় চার শিশুকে। পরে জড়িতদের জবানবন্দিতে জানা গেছে, গ্রাম্য বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষ শিশুদের হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে মূল হোতা আব্দুল আলী বাঘালসহ কয়েকজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এর মধ্যে কারাগারে আছেন হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী আব্দুল আলী বাঘাল, তার দুই ছেলে জুয়েল ও রুবেল, একই গ্রামের আজিজুর রহমান আরজু এবং শাহেদ আলী। পলাতক ৩ আসামি হলেন— আব্দুল আলী বাঘালের ভাতিজা অটোরিকশাচালক বিল্লাল হোসেন, উস্তার মিয়া ও বাবুল আহমেদ। মামলার অন্যতম আসামি অটোরিকশাচালক বাচ্চু র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। চাঞ্চল্যকর এ মামলার তদন্ত শেষে ৮ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দিয়েছে পুলিশ।

বনশ্রীতে মা’র হাতে দুই সন্তান খুন

রাজধানীর রামপুরার বনশ্রীতে ২৯ ফেব্রুয়ারি বিকালে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী নুসরাত আমান অরণী ও হলি ক্রিসেন্ট স্কুলের নার্সারির ছাত্র আলভী আমানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। শুরুতে হত্যাকাণ্ড নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়। শিশুদের পরিবার থেকে জানানো হয়, খাদ্যে বিষক্রিয়ায় তাদের মৃত্যু হয়েছে। দু’শিশুর মা মাহফুজা মালেক জেসমিনের আচরণে সন্দেহ হওয়ায় জামালপুর শহরের ইকবালপুর এলাকা থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। তারপরই দুই সন্তান হত্যার বিষয়টি স্বীকার করেন ওই নারী, আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিও দেন তিনি। জেসমিন জানান, সন্তানদের পড়াশোনা ও ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তা থেকেই দুই শিশুকে হত্যা করেন তিনি।

তনু হত্যা

কুমিল্লা সেনানিবাসে বাসার অদূরে জঙ্গলে ২০ মার্চ রাতে সোহাগী জাহান তনুর লাশ পাওয়া যায়। ২১ মার্চ তার বাবা ইয়ার হোসেন অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন। ঘটনাস্থল থেকে বিভিন্ন আলামত ও দুই দফা ময়নাতদন্ত করা হয় তনুর মরদেহ। তনুর পোশাক থেকে সংগ্রহ করা আলামতের ডিএনএ পরীক্ষায় তিন ব্যক্তির শুক্রাণু পাওয়া যায়। প্রথম ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন এবং ডিএনএ প্রতিবেদনের এমন গরমিল থাকায় তনু হত্যা মামলা সিআইডিতে হস্তান্তর করা হয়। তবে ৯ মাসেও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

দৃক গ্যালারির কর্মকর্তার লাশ উদ্ধার

ধানমন্ডির ৮ নম্বর সড়কে ডাচ-বাংলা ব্যাংক থেকে ২ এপ্রিল দুপুরে তিন লাখ আট হাজার টাকা তুলে বের হতেই ‘রহস্যজনকভাবে’ নিখোঁজ হন দৃক গ্যালারির কর্মকর্তা ইরফানুল ইসলাম। পাঁচ ঘণ্টা পর ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডে জালকুড়ি এলাকার ফিরোজ ফিলিং স্টেশনের কাছে বিলের পাশের কাঁচা সড়ক থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ময়নাতদন্ত অনুসারে তার গলায়, গালে, বুকে, মাথায় জখম ও আঘাতের আলামত পাওয়া গেছে। ইরফানকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলেও ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলাটি তদন্ত করছে সিআইডি। কিন্তু এখনও হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের শনাক্ত করতে পারেনি তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।

রাবি শিক্ষক রেজাউল করিম সিদ্দিকী হত্যাকাণ্ড

বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস ধরার জন্য ২৩ এপ্রিল সকাল ৭টা ৪০ মিনিটে বাসা থেকে বের হয়েছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক এ এফ এম রেজাউল করিম সিদ্দিকী। এ সময় তাকে গলা কেটে হত্যা করে পালানোর সময় জনতার হাতে আটক হন ফাইজুল্লাহ ফাহিম নামে একজন। অধ্যাপক রেজাউল হত্যার দিনই থানায় মামলা করেন তার ছেলে রিয়াসাত ইমতিয়াজ সৌরভ। ফাহিমকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। তবে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হওয়ার পর ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে হাতকড়া পরা অবস্থায় পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন ফাহিম। এ মামলায় পুলিশ বিভিন্ন সময় অন্তত ১৩ জনকে গ্রেফতার করে। অধ্যাপক রেজাউল ‘কোমলগান্ধার’ নামে একটি সাহিত্য পত্রিকার সম্পাদক এবং ‘সুন্দরম’ নামে একটি সাংস্কৃতিক সংগঠনের উপদেষ্টা ছিলেন।

কাশিমপুরে প্রধান কারারক্ষী খুন

গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারের কয়েকশ গজ দূরে প্রধান কারারক্ষী রুস্তম আলীকে ২৫ এপ্রিল গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। রুস্তম আলী ‘সার্জেন্ট ইন্সট্রাক্টর’ পদে ছিলেন।

জুলহাস মান্নান ও তনয় হত্যা

পার্সেল দেয়ার কথা বলে ২৫ এপ্রিল বিকেলে কলাবাগানের লেক সার্কাস এলাকায় ৫/৭ যুবক জুলহাস মান্নানের বাসায় ঢুকে তাকে এবং তার বন্ধু তনয়কে কুপিয়ে হত্যা করে। সমকামীদের অধিকার প্রতিষ্ঠার সাময়িকী ‘রূপবান’ সম্পাদক জুলহাস আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপু মনির খালাতো ভাই।

মাহবুব রাব্বী তনয় ছিলেন লোকনাট্য দলের কর্মী। পিটিএ নামে একটি প্রতিষ্ঠানে ‘শিশু নাট্য প্রশিক্ষক’ হিসেবেও তিনি কাজ করতেন। আল-কায়েদা ভারতীয় উপমহাদেশ (একিউআইএস) শাখা ওই হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করলেও পুলিশ অভিযুক্ত করে দেশীয় উগ্রপন্থীদের।

টাঙ্গাইলে দর্জি খুন

টাঙ্গাইলের গোপালপুরে নিখিল জোয়ার্দ্দার নামে এক দর্জিকে ৩০ এপ্রিল প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ধর্ম নিয়ে নিখিল কয়েক বছর আগে কটূক্তি করেছিলেন বলে প্রচার ছিল। তখন তার বিরুদ্ধে মিছিল এবং তার বাড়িতে হামলা করা হয়েছিল।

রাজশাহীতে পীর হত্যাকাণ্ড

৭ মে কুপিয়ে হত্যা করা হয় শহিদুল্লাহ নামে এক ‘পীর’ কে। গোয়ালন্দঘাটের পীর নূর মোহাম্মদ দয়ালের ভক্ত ছিলেন শহিদুল্লাহ। এ ঘটনায় মামলা হলেও হত্যা রহস্য উদঘাটিত হয়নি।

বান্দরবানে বৌদ্ধ ভিক্ষু খুন

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে মং শু হুক (৭৫) নামে এক বৌদ্ধ ভিক্ষুকে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ১৪ মে সকালে বাইশরি বৌদ্ধবিহারের ভেতর তার রক্তাক্ত মরদেহ পাওয়া যায়। জানা যায়, দুই বছর আগে বৌদ্ধমন্দির প্রতিষ্ঠার পর থেকে ভিক্ষু মং শু হু সেখানে ধ্যানমগ্ন থাকতেন।

এসপি বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খাতুন মিতু হত্যাকাণ্ড

চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি মোড়ে গত ৫ জুন সকালে পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খাতুন মিতুকে ছুরিকাঘাত ও গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় বাবুল আক্তার অজ্ঞাত পরিচয় তিন ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করেন। ঘটনার পর পুলিশ জানায়, জঙ্গি দমনে বাবুল আক্তারের সাহসী ভূমিকার কারণে জঙ্গিরা তার স্ত্রীকে খুন করতে পারে। এ ঘটনার পর থেকে রাজধানীর রামপুরায় শ্বশুরবাড়িতে দুই সন্তানকে নিয়ে বসবাস করছেন বাবুল আক্তার। তবে সন্দেহজনক কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলেও মূল হত্যাকারীরা এখনো পুলিশের ধরাছোঁয়ার বাইরে। মিতু হত্যাকাণ্ডের পর পুলিশ সাতজনকে গ্রেফতার করে। এদের মধ্যে দুজন বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়। হত্যাকাণ্ডে সম্পৃক্ত থাকার কথা স্বীকার করে দুজন আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে। হত্যাকাণ্ডের মূল আসামি বাবুল আক্তারের এক সময়ের সোর্স মুছাকে গ্রেফতার করা যায়নি।

ডাচ-বাংলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতির লাশ উদ্ধার

নিখোঁজ হওয়ার তিন দিন পর ২৬ জুলাই ডাচ্‌-বাংলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (ডিবিসিসিআই) সভাপতি হাসান খালেদের লাশ উদ্ধার করা হয়। ওই দিন সকালে বুড়িগঙ্গার তীরে তার লাশ পাওয়া যায়। এ বিষয়ে রাজধানীর ধানমন্ডি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছিলেন তার শ্যালক শরিফুল আলম। এ হত্যাকাণ্ডের কোনো কূলকিনারা করতে পারেনি আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। মামলা বর্তমানে তদন্ত করছে ডিবি পুলিশ।

বখাটের হাতে রিশা খুন

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় ২৪ আগস্ট রাজধানীর উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী সুরাইয়া আক্তার রিশাকে (১৪) পেট ও হাতে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় টেইলার্স কর্মচারী ওবায়েদুল রহমান নামে এক বখাটে যুবক। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে শয্যাশায়ী রিশা তার মা ও পুলিশকে বখাটে ওবায়েদুলের কথা বলে গিয়েছিলেন। মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে চিরবিদায় নেন রিশা। মৃত্যুর দিনই রাজধানীর কাকরাইল সড়ক অবরোধ করে উইলস লিটল ফ্লাওয়ারের শিক্ষার্থীরা। পরদিন রিশা হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবির আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে সারাদেশে। অবশেষে নীলফামারী ডোমার থেকে গ্রেফতার করা হয় বখাটে ওবায়েদুলকে। আদালতে হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দিও দেয় সে। বর্তমানে সে কারাগারে।

ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ হত্যা

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ২ নম্বর গেট এলাকার একটি ভবন থেকে ২০ নভেম্বর কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ ইরফান চৌধুরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গেলে দিয়াজের মা জোবায়দা আমিন চৌধুরী দাবি করেন তার ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। লাশ উদ্ধারের পর দিয়াজের শরীরের তিন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায় বলে জানান হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আফসানা বিলকিস।

দিয়াজের মৃত্যুর ঘটনায় ২৪ নভেম্বর চট্টগ্রামের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দিয়াজের বড় বোন জুবাঈদা ছরওয়ার চৌধুরী নিপা মামলা দায়ের করেন। দিয়াজ ২০০৬-০৭ শিক্ষাবর্ষের ফাইন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন। এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকও ছিলেন। গত বছর তিনি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদকের পদ পান।

নাটোরে ৩ যুবলীগ কর্মীর লাশ উদ্ধার

নাটোরের যুবলীগ কর্মী রেদওয়ান আহমেদ সাব্বির, আবু আব্দুল্লাহ ও সোহেল আহমেদের গুলিবিদ্ধ লাশ দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট থেকে ৫ ডিসেম্বর উদ্ধার করা হয়। নিহতদের পরিবারের অভিযোগ, র‌্যাব পরিচয়ে রাতে সদর উপজেলার তকিয়া বাজার থেকে তাদের তুলে নেওয়া হয়। পরদিন নাটোর সদর থানায় এ ব্যাপারে জিডিও করেন তারা। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে র‌্যাব।নিহত তিনজনই শীর্ষ সন্ত্রাসী। সাব্বির ও সোহেলের নামে ১৫টি মামলা আছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

গাইবান্ধার সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যাকাণ্ড

বছর শেষ হওয়ার প্রাক্কালে ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গায় নিজ বাড়িতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন গুলিবিদ্ধ হন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নেয়া হয়। রাত পৌনে ৮টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

লিটনের স্ত্রী খোরশেদ জাহান স্মৃতি সাংবাদিকদের জানান, সন্ধ্যায় বামনডাঙ্গার বাসায় ঢুকে দুইজন দুর্বৃত্ত তাকে গুলি করে পালিয়ে যায়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় লিটনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়।

স্থানীয়রা জানান, দুইটি মোটরসাইকেলে তিনজন এমপি লিটনের বাসায় আসে। তাদের দুইজন বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করেন আর একজন মোটরসাইকেলে বসে থাকে। এ সময় পর পর বেশ কয়েকটি গুলির শব্দ পাওয়া যায়। তারপরই দুর্বৃত্তরা বাড়ি থেকে দৌড়ে বের হয় এবং মোটরসাইকেলে উঠে দ্রুত পালিয়ে যায়।

সম্পাদনা: প্রণব


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় মৃত ব্যক্তিকে যেকোনো কবরস্থানে দাফন করা যাবে: স্বাস্থ্য অধিদফতর

করোনায় মৃত ব্যক্তিকে যেকোনো কবরস্থানে দাফন করা যাবে: স্বাস্থ্য অধিদফতর


সচেতন না হলে সরকার আবারও কঠোর হবে: কাদের

সচেতন না হলে সরকার আবারও কঠোর হবে: কাদের


করোনায় আরও ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৯৫

করোনায় আরও ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৯৫


পুরোনো চেহারায় ফিরছে ঢাকা

পুরোনো চেহারায় ফিরছে ঢাকা


দিল্লির সীমান্ত সাত দিনের জন্য বন্ধ: নয়াদিল্লির মুখ্যমন্ত্রী

দিল্লির সীমান্ত সাত দিনের জন্য বন্ধ: নয়াদিল্লির মুখ্যমন্ত্রী


করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৩৮১

করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৩৮১


‘করোনা মোকাবেলায় দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে’

‘করোনা মোকাবেলায় দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে’


এসএসসির ফল প্রকাশ, পাশের হার ৮২.৮৭%

এসএসসির ফল প্রকাশ, পাশের হার ৮২.৮৭%


বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি

বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি


এই পরিস্থিতিতে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না: শিক্ষামন্ত্রী

এই পরিস্থিতিতে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না: শিক্ষামন্ত্রী