Saturday, December 31st, 2016
বিপদ এখনও যায়নি: ওবায়দুল কাদের
December 31st, 2016 at 3:52 pm
বিপদ এখনও যায়নি: ওবায়দুল কাদের

ঢাকা: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিজয়ের মাসের শেষ দিনে আমাদের শপথ হবে, হলি আর্টিজান ও শোলাকিয়া হামলার ট্র্যাজেডি থেকে আমরা বের হয়ে আসবো। জনগণকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উগ্রবাদীদের প্রতিরোধ করে পরাজিত করবো। বিপদ এখনও যায়নি। নতুন বছরের জন্য এই অসম্পূর্ণ কাজ সম্পন্ন করতে হবে। আমাদের বিজয়কে সুসংহত করতে হবে। সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদও আমাদের বিজয়ের পথে বাধা। এই বাধাও অতিক্রম করে আমাদের পুরোপুরি বিজয়ী হতে হবে। এটাই হবে, আমাদের আজকের শিক্ষা-দীক্ষা। শনিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে বিজয় দিবস উপলক্ষে যুবলীগ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

একাত্তরে যাদের পরাজিত করে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল সেই পাকিস্তান কেবল পিছিয়ে যাচ্ছে এমন মন্তব্য করে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আজকে নির্দ্বিধায় বলতে পারি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ফেলা আসা বছরে আমাদের উন্নয়ন ও অর্জন অনেক বেশি। আজকে গর্ব করে বলছি, বঙ্গবন্ধু তুমি এ দেশ স্বাধীন করে ভুল করোনি। বঙ্গবন্ধু তোমার স্বপ্নের বাংলাদেশ আজ কেবল এগিয়ে যাচ্ছে। আর তোমার নেতৃত্বে একাত্তরে যাদের পরাজিত করেছি, তারা কেবল পিছিয়ে যাচ্ছে। পাকিস্তান পিছিয়ে যাচ্ছে আর বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে।’

সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদী শক্তি এখনও অাছে উল্লেখ করে কাদের বলেন, ‘অাগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদী শক্তি এখনও  রয়েছে। উপরে উপরে অামারা দেখছি অামাদের পুলিশ বাহিনী ভালো কাজ করছে। অামরা ভালো দৃশ্য দেখেতে পাচ্ছি। কিন্তু ভিতরে ভিতরে তারা যে প্রস্তুতি নিচ্ছে তার প্রমাণ হয়েছে হলি অার্টিজান, কল্যাণপুর ও সর্বশেষ অাশকোনার ঘটনায়। সুতারাং অামাদের সন্তুষ্ট হওয়ার কোন কারণ নেই।’

‘অামাদের সর্বাত্মক প্রস্তুতি নিতে হবে। এক দিকে নির্বাচনের প্রস্তুতি অন্যদিকে সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদ মোকাবেলা করার প্রস্তুতি। রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অামরা তাদের পরাজিত করবো এবং বিজয়ী হবো। অাগামী নির্বাচনেও বিজয়ী হতে হবে এবং সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদীর বিরুদ্ধেও সম্পূর্ণ ভাবে বিজয়ী হতে হবে’ বলেন তিনি।

বিএনপির সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তারা এখন সব জায়গায় ব্যর্থ। আন্দোলনে ব্যর্থ, ব্যর্থ নির্বাচনে। সর্বশেষ প্রমাণ নারায়ণগঞ্জ। ব্যর্থ লোক শুধু নালিশ করে। বিএনপি এখন বাংলাদেশ নালিশ পার্টি।’

অন্যদিকে ধানমণ্ডির প্রিয়াংকা কমিউনিটি সেন্টারে অাওয়ামী লীগের এক যৌথসভা শেষে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের নতুন বছরে আগামী ১০০ দিনের মধ্যে দল পূর্ণগঠন করারও ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘নতুন বছরে অাগামী ১০০ দিনের কর্মসূচি হবে দল গোছানোর কর্মসূচি। অাগামী ১০০ দিনের মধ্যে দল পূর্ণগঠন করা হবে। দলের প্রতি অনুগত পরিচ্ছন্ন ও দলের জন্য ত্যাগী নেতাদের দলে অানা হবে।’

তিনি অারো বলেন, ‘অাওয়ামী লীগ অনেক বড় একটি দল, বড় একটি পরিবার। বড় একটি পরিবারে ছোট খাটো সমস্যা থাকবেই। এই সমস্যা গুলো নিরসর করে অামরা অমাদের নেত্রীকে একটা সুসংগঠিত অাওয়ামী লীগ উপহার দেব।’

অাগামী ১০ জানুয়ারি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস সফল করতে অাওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ, প্রতিটি থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক এবং মহানগরের অন্তর্গত দলীয় জাতীয় সংসদ সদস্যদের সাথে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ১০ জানুয়ারির সমাবেশ সফল ও ঐতিহাসিক করার জন্য সকল নির্দেশনাও দেয়া হয়।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে অারো উপস্থিত ছিলেন- অাওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, দপ্তর সম্পাদক অাবদুস সোবহান গোলাপ, প্রচার ও প্রকাশানা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পদক দেলোয়ার হোসেন।

প্রতিবেদক: আশিক মাহমুদ, সম্পাদনা: ইয়াসিন


সর্বশেষ

আরও খবর

সিনেটে ১ লাখ ৯০ হাজার কোটি ডলারের করোনা সহায়তা বিল পাস

সিনেটে ১ লাখ ৯০ হাজার কোটি ডলারের করোনা সহায়তা বিল পাস


বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা


ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ৫০ বছর

ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ৫০ বছর


কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরের জামিন মঞ্জুর

কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরের জামিন মঞ্জুর


একদিনেই সড়কে ঝড়ল ১৯ প্রাণ

একদিনেই সড়কে ঝড়ল ১৯ প্রাণ


শাহবাগে মশাল মিছিলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ, আটক ৩

শাহবাগে মশাল মিছিলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ, আটক ৩


গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক মারা যাওয়ার ৬০ ঘন্টা পরে পরিবারের মামলা

গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক মারা যাওয়ার ৬০ ঘন্টা পরে পরিবারের মামলা


করোনায় ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩২৭

করোনায় ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩২৭


নামাজ পড়ানোর সময় সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু

নামাজ পড়ানোর সময় সিজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু


ভাষার বৈচিত্র্য ধরে রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ভাষার বৈচিত্র্য ধরে রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর