Sunday, February 23rd, 2020
বিশেষ মিশনে ঢাকায় আসা জিসানের ‘ডানহাত’ শাকিল গ্রেপ্তার
February 23rd, 2020 at 10:44 am
জিসানের নির্দেশে সম্রাটকে হত্যা করে ঢাকার আন্ডারওয়ার্ল্ড দখলের মিশন নিয়ে জানুয়ারিতে দুবাই থেকে ঢাকায় আসে সন্ত্রাসী শাকিল মাজহার
বিশেষ মিশনে ঢাকায় আসা জিসানের ‘ডানহাত’ শাকিল গ্রেপ্তার

বিশেষ প্রতিনিধি, ঢাকাঃ

বিদেশে পালিয়ে থাকা কুখ্যাত শীর্ষসন্ত্রাসী জিসানের অন্যতম সহযোগী মাজহারুল ইসলাম ওরফে শাকিল মাজহারকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ভোর ৫টা ১০ মিনিটে রাজধানীর মোহাম্মদপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে এই শীর্ষসন্ত্রাসীকে আটকের পর, বিকেলে কারওয়ান বাজার মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের এ বিষয়ে বিস্তারিত ব্রিফ করা হয়। গ্রেপ্তারের সময় তাঁর কাছ থেকে দুটি বিদেশি পিস্তল, দুটি ম্যাগাজিন ও ছয়টি গুলি উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব জানায়, ক্যাসোনি বিরোধী অভিযানে শীর্ষসন্ত্রাসী ও তাদের পৃষ্টপোষকরা গ্রেপ্তার হওয়ায় আন্ডারওয়ার্ল্ডে সৃষ্টি হওয়া শূন্যতা পূরণ করতে এবং সেই লক্ষ্যে বিএসএমএমইউ-তে চিকিৎসাধীন কারাবন্দী গডফাদার সম্রাটকে হত্যা করে আন্ডারওয়ার্ল্ডের দখল নিতেই শীর্ষসন্ত্রাসী জিসানের ‘ডানহাত’ নামে পরিচিত শাকিল মাজহার জানুয়ারিতে দুবাই থেকে ঢাকায় আসেন। তবে র‌্যাবের তৎপরতায় তার ওই মিশন সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়।

শাকিলের গ্রেপ্তার নিয়ে শনিবার বিকেলে কারওয়ান বাজার মিডিয়া সেন্টারে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লে. কর্নেল সারওয়ার বিন কাশেম সাংবাদিকদের বলেন, গত ১২ জানুয়ারি দুবাই থেকে ঢাকায় আসেন শাকিল। তার উদ্দেশ্য ছিল জিসানের নির্দেশ ও সহযোগিতায় আন্ডারওয়ার্ল্ডে নতুন নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করা। দেশে এসে ১৯ ফেব্রুয়ারি তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) অসুস্থতার কথা বলে ভর্তি হন এবং বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করেন। হাসপাতালে শাকিল কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা সৃষ্টি করে আতঙ্ক ছড়াতে চেয়েছিলেন, সেক্ষেত্রে একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সম্রাটকে খুনের পরিকল্পনা ছিল তার। তবে র‌্যাবের তৎপরতায় সেসব প্রচেষ্টা নস্যাৎ হয়ে যায়।

লে. কর্নেল সারোরায় আরও জানান, বিএসএমএমইউর মূল ভবনের চতুর্থ তলায় ভর্তি হন শাকিল মাজহার। কিন্তু চতুর্থ তলায় থেকেই তিনি দ্বিতীয় তলায় নিবিড় পরিচর্যা ও সাধারণ সেবার মধ্যবর্তী ইউনিটে (এসডিইউ) যুবলীগের বহিষ্কৃত নেতা ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ওরফে সম্রাট সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করতেন। গত ২৪ নভেম্বর থেকে সম্রাট বিএসএমএমইউতে ভর্তি আছেন। নিজের পরিকল্পনা অনুযায়ী শাকিল বেশ কয়েকবার সম্রাটের ইউনিটের সামনে লোকজনসহ ঘোরাফেরাও করেন। সম্রাটের অবস্থান রেকি করতেই তিনি সেখানে ঘোরাফেরা করেছেন। তার উদ্দেশ্য ছিল সম্রাটকে গুলি করে খুন করা। তবে হাসপাতালেই সেই খুনের পরিকল্পনা ছিল কিনা বিষয়টি এখনো পরিস্কার নয়। এই সময়ের মধ্যে সম্রাটের ব্যাপারে বিভিন্নজনের কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ শেষে, ২০ ফেব্রুয়ারি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অনুমতি না নিয়েই অজ্ঞাত কারণে হাসপাতাল থেকে চলে যান শাকিল।

র‍্যাবের ওই ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, জিজ্ঞাসাবাদে শাকিল মাজহার জানিয়েছেন যে, জিসানের প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় তিনি দুবাই থেকে দেশে এসেছেন।

তবে শাকিল মাজহারের পরিবারের দাবি, গত ২০ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ১১টার দিকে বিএসএমএমইউ থেকে র‍্যাব সদস্যরা শাকিলকে ধরে নিয়ে যান। এর পর আজ শনিবার দুপুরে তাঁকে অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেপ্তার দেখানো হয়। চাচাতো ভাই সায়েম মাহমুদ দাবি করেন, হৃদরোগ ও উচ্চ রক্তচাপের সমস্যার কারণে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি মাথা ঘুরে পড়ে যায় শাকিল। সেদিন তাঁকে ধানমন্ডির একটি হাসপাতালে নেয়া হয়। এর পরদিন ২০ ফেব্রুয়ারি সকালে বিএসএমএমইউয়ে ভর্তি করা হয় শাকিলকে। ওই দিনই রাত সাড়ে ১১টার দিকে র‍্যাবের সদস্যরা এসে তাঁকে তুলে নিয়ে যায়। তবে প্রথমে শাকিলের পরিবার বুঝতে পারেনি যে কারা তাঁকে তুলে নিয়ে গেছে। ওই রাতেই ৯৯৯-এ ফোন করা হয়। শাহবাগ থানা-পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। পরে ২১ ফেব্রুয়ারি শাহবাগ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও করেন সায়েম মাহমুদ।

উল্লেখ্য, মাজহারুল ইসলাম ওরফে শাকিল মাজহার ২০০৫ সালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় ছাত্ররাজনীতি শুরু করেন। পরে ঢাকা মহানগর ছাত্রলীগের উপ-আপ্যায়নবিষয়ক সম্পাদক হন তিনি। ২০০৯ সাল থেকে টেন্ডার বাণিজ্যে জড়িয়ে পড়েন। রেলওয়েতে ছোট ছোট কাজের টেন্ডার নিয়ে কাজ করতেন তিনি। ২০১৩ সালে গ্রামের বাড়ি ফেনীতে গিয়ে পারিবারিক ব্যবসার পাশাপাশি গ্রাম্য রাজনীতিতেও যোগদান করেন। ২০১৫ সালে আবারও ঢাকায় ফিরে আসেন। সেই সময় তার সঙ্গে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার জি কে শামীমের সখ্য গড়ে ওঠে। এরপর যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার সঙ্গে রেলওয়ের টেন্ডার কাজ নিয়ে শাকিলের বিরোধ সৃষ্টি হয়। তবে ২০১৬ সালের জুন মাসে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সহ-সম্পাদক রাজীব হত্যা মামলার এজাহারে নাম আসার চার দিন পরে শাকিল পালিয়ে চীন চলে যান। ২০১৭ সাল পর্যন্ত তিনি সেখানেই বসবাস করেন এবং কার্গো সার্ভিসে কাজ করেন। ২০১৮ সালে চীন থেকে তিনি দুবাই চলে যান, আর সেখানেই কুখ্যাত শীর্ষসন্ত্রাসী জিসানের সঙ্গে তার সখ্যতা গড়ে উঠে। দ্রুত সময়ের মধ্যে বিশ্বাস ও আস্থা অর্জন করায় দুবাইয়ে জিসানের বিভিন্ন ব্যবসা দেখাশোনার সুযোগ পান শাকিল। জিসানের দেওয়া আবাসিক ফ্ল্যাটে বসেই দেশে জিসানের সহোযোগীদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যক্রম অব্যাহত রাখেন তিনি। জিসানের পক্ষ হয়ে বিভিন্ন ‘বিশেষ মিশন’ সফল করার দায়িত্বও পান শাকিল। এরকম একটি মিশন নিয়েই জানুয়ারিতে ঢাকা আসেন তিনি, কিন্তু এবার র‌্যাবের তৎপরতায় সেই মিশন শেষ পর্যন্ত পুরোপুরি ব্যার্থ হয়।


সর্বশেষ

আরও খবর

পুরোনো চেহারায় ফিরছে ঢাকা

পুরোনো চেহারায় ফিরছে ঢাকা


দিল্লির সীমান্ত সাত দিনের জন্য বন্ধ: নয়াদিল্লির মুখ্যমন্ত্রী

দিল্লির সীমান্ত সাত দিনের জন্য বন্ধ: নয়াদিল্লির মুখ্যমন্ত্রী


করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৩৮১

করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৩৮১


‘করোনা মোকাবেলায় দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে’

‘করোনা মোকাবেলায় দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে’


এসএসসির ফল প্রকাশ, পাশের হার ৮২.৮৭%

এসএসসির ফল প্রকাশ, পাশের হার ৮২.৮৭%


বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি

বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি


এই পরিস্থিতিতে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না: শিক্ষামন্ত্রী

এই পরিস্থিতিতে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না: শিক্ষামন্ত্রী


করোনায় ১ দিনে সর্বোচ্চ ৪০ জনের মৃত্যু, শনাক্তের নতুন রেকর্ড

করোনায় ১ দিনে সর্বোচ্চ ৪০ জনের মৃত্যু, শনাক্তের নতুন রেকর্ড


বাস ভাড়া ৮০% বাড়ানোর সুপারিশ বিআরটিএ’র

বাস ভাড়া ৮০% বাড়ানোর সুপারিশ বিআরটিএ’র


ট্রেনের ভাড়া বাড়বে না, টিকিট অনলাইনে: রেলমন্ত্রী

ট্রেনের ভাড়া বাড়বে না, টিকিট অনলাইনে: রেলমন্ত্রী