Wednesday, October 5th, 2016
বৈদেশিক অনুদান রেগুলেশন বিল ২০১৬ পাস
October 5th, 2016 at 10:03 pm
বৈদেশিক অনুদান রেগুলেশন বিল ২০১৬ পাস

ঢাকা: জাতীয় সংসদে বুধবার বৈদেশিক অনুদান (স্বেচ্ছাসেবামূলক কার্যক্রম) রেগুলেশন বিল-২০১৬ সংশোধিত আকারে পাস হয়েছে। সংসদকার্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বিলটি পাসের প্রস্তাব করেন।

বিলে বলা হয়, আপাতত বলবৎ অন্য কোনো আইনে যা কিছুই থাকুক না কেন, এই আইনের অধীন ব্যুরোর নিকট থেকে নিবন্ধন গ্রহণ ব্যতিত কোনো সংস্থা বা এনজিও বৈদেশিক অনুদান গ্রহণক্রমে কোনো স্বেচ্ছাসেবামূলক কার্যক্রম গ্রহণ ও পরিচালনা করতে পারবে না। তবে শর্ত থাকে যে, কোনো ব্যক্তি কর্তৃক স্বেচ্ছাসেবামূলক কার্যক্রম গ্রহণ ও পরিচালনার উদ্দেশ্যে বৈদেশিক অনুদান গ্রহণের ক্ষেত্রে নিবন্ধনের প্রয়োজন হবে না, ব্যুরোর অনুমোদন গ্রহণ করতে হবে।

বিলে স্বেচ্ছামূলক প্রতিষ্ঠানের বা সংগঠনের নিবন্ধন ও নিবন্ধন নবায়নের নতুন বিধান করা হয়েছে। বিলে জাতীয় সংসদ বা স্থানীয় সরকার নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থী, জাতীয় সংসদের সদস্য, স্থানীয় সরকার পরিষদের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, কোনো রাজনৈতিক দল, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের বিচারকসহ সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানে অধিষ্ঠিত ব্যক্তি, সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত বা সংবিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কোনো কর্মকর্তা বা কর্মচারী, এ বিলের অধীন নিবন্ধিত এনজিও বা সংস্থার কোনো কর্মকর্তা কর্মচারী, সন্ত্রাস বিরোধী আইন, ২০০৯ (২০০৯ সালের ১৬ নং আইন) এর ধারা ১৮ এর অধীন, ক্ষেত্রমত, তালিকাভুক্ত বা নিষিদ্ধ ঘোষিত কোনো ব্যক্তি বা সত্তা বৈদেশিক অনুদান গ্রহণে নিষিদ্ধ করার বিধান করা হয়।

বিলে বলা হয়, সাহায্য গ্রহণকারীকে বাংলাদেশের প্রচলিত আইনের অধীন নিবন্ধিত সংস্থা হতে হবে। ব্যুরো থেকে অনুমোদিত সাহায্য প্রদানকারী কর্তৃক প্রণীত প্রকল্প প্রস্তাবে সাহায্য গ্রহণকারীর বিস্তারিত বিবরণ ও অর্থ ব্যয়ের রূপরেখা থাকতে হবে এবং প্রকল্প অনুমোদনের শর্ত মোতাবেক প্রকল্প বাস্তবায়নের বিষয়ে সাহায্য প্রদানকারী সংস্থা নিশ্চয়তা প্রদান করবে।

বিলে বলা হয়, প্রত্যেক এনজিও এবং ব্যক্তি নির্ধারিত পদ্ধতিতে এর হিসাব সংরক্ষণ করবে এবং হিসাবের বার্ষিক বিবরণী প্রস্তুত করবে। প্রতি অর্থবছর শেষ হবার পর নির্ধারিত পদ্ধতিতে প্রত্যেক এনজিও এবং ব্যক্তি ওই অর্থবছরে সম্পাদিত কার্যাবলীর বিবরণ সম্বলিত একটি বার্ষিক প্রতিবেদন মহাপরিচালকের নিকট পেশ করবে।

এছাড়া বিলে নিবন্ধন বাতিল বা কার্যক্রম স্থগিত, বিধি প্রণয়ন ক্ষমতা, নির্বাহী আদেশ জারিসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সুনির্দিষ্ট বিধান করা হয়েছে।

বিলে কোনো এনজিও বা ব্যক্তি এই বিলের বিধান বা এর অধীন প্রণীত কোনো বিধি বা আদেশের বিধান লংঘন করলে উহা এ বিধানের অধীন এবং সংবিধান এবং সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে বিদ্বেষমূলক ও অশালীন কোনো মন্তব্য করলে বা রাষ্ট্র বিরোধী কর্মকাণ্ড করলে বা জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসমূলক কর্মকাণ্ডে অর্থায়ন, পৃষ্ঠপোষকতা কিংবা সহায়তা করলে অথবা নারী ও শিশু পাচার বা মাদক ও অস্ত্র পাচারের সাথে সংশ্লিষ্টতা থাকলে উহা দেশে প্রচলিত আইনের অধীন অপরাধ বলে গণ্য করার বিধান করা হয়েছে। পাশাপাশি এ ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট দণ্ড প্রদানের বিধান করা হয়। এছাড়া বিলে এ সংক্রান্ত বিদ্যমান অধ্যাদেশ রহিত করা হয়েছে।

জাতীয় পার্টির সেলিম উদ্দিন, ফখরুল ইমাম, কাজী ফিরোজ রশীদ, নুরুল ইসলাম মিলন, নূর-ই হাসনা লিলি চৌধুরী, বেগম মাহজাবিন মোরশেদ, বেগম রওশন আরা মান্নান ও স্বতন্ত্র সদস্য মোঃ রুস্তম আলী ফরাজী বিলের ওপর জনমত যাচাই, বাছাই কমিটিতে প্রেরণ ও সংশোধনী প্রস্তাব আনলে একটি সংশোধনী গ্রহণ করা হয়। বাকি প্রস্তাবগুলো তা কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: জাহিদুল ইসলাম


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় ৩৭ জনের মৃত্যু

করোনায় ৩৭ জনের মৃত্যু


শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি


দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির

দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির


ভারতে আবার সংক্রমণের রেকর্ড, একদিনে মৃত্যু প্রায় ৪০০০

ভারতে আবার সংক্রমণের রেকর্ড, একদিনে মৃত্যু প্রায় ৪০০০


দেশে করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৮২২

দেশে করোনায় আরও ৪১ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৮২২


খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী

খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী


যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


করোনায় কমলো মৃত্যু ও শনাক্তের হার; মৃত্যু ৫০ আর শনাক্ত ১ হাজার ৭৪২

করোনায় কমলো মৃত্যু ও শনাক্তের হার; মৃত্যু ৫০ আর শনাক্ত ১ হাজার ৭৪২


১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি

১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি


২১ দিন পর বৃহস্পতিবার থেকে সড়কে গণপরিবহন

২১ দিন পর বৃহস্পতিবার থেকে সড়কে গণপরিবহন