Monday, July 4th, 2022
ব্রিটিশ পার্লামেন্টের বাইরে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ৫ (ভিডিও)
March 23rd, 2017 at 8:34 am
ব্রিটিশ পার্লামেন্টের বাইরে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ৫ (ভিডিও)

ডেস্ক: লন্ডনে যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টে অধিবেশন চলাকালে ভবনের বাইরে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। এই হামলায় এক পুলিশ কর্মকর্তা ও হামলাকারীসহ ৫ জন নিহত হয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে হতাহতের এ সংখ্যা নিশ্চিত করা হয়েছে।

লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশের বরাত দিয়ে বিবিসি অনলাইনে জানিয়েছে, এ ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তাসহ অন্তত ৫ জন নিহত হয়েছে।

এ ঘটনার দায় তাৎক্ষণিকভাবে কেউ স্বীকার করেনি। তবে যুক্তরাজ্যের পুলিশ ঘটনাটিকে সন্ত্রাসী হামলা বলে বিবেচনা করছে। বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে বিমানবন্দর ও মেট্রোস্টেশনে একযোগে তিনটি সন্ত্রাসী হামলার এক বছর পূর্তির দিনেই লন্ডনে এ ঘটনা ঘটল। ব্রাসেলসের হামলায় নিহত হয়েছিলেন ৩২ জন।

লন্ডনের সময় গতকাল বুধবার দুপুরে যখন ওই হামলার ঘটনা ঘটে, তখন সংসদের উভয় কক্ষে (হাউস অব লর্ডস এবং হাউস অব কমন্স) অধিবেশন চলছিল। প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে-ও ছিলেন সংসদ ভবনে। ঘটনা ঘটার মুহূর্তের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মেকে সংসদ ভবন থেকে নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হয়। এমপিদের নিরাপত্তায় পুরো সংসদ ভবন এলাকা ঘিরে ফেলে আর্মড পুলিশ। কয়েক ঘণ্টার জন্য অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে পার্লামেন্ট ভবন। দর্শনার্থীদের জন্যও এলাকাটি বেশ আকর্ষণীয়। প্রতিদিন দর্শনার্থীদের ভিড়ে ঠাসা থাকে এই এলাকা। লন্ডন আইসহ বিভিন্ন স্থাপনায় আটকা পড়ে দর্শনার্থীরা। পার্শ্ববর্তী ওয়েস্টমিনস্টার পাতাল রেলস্টেশনসহ পুরো এলাকার যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে পুরো লন্ডন শহরে।

নিহতদের মধ্যে আত্মঘাতী হামলাকারী ও  এক নারীও রয়েছেন। আহতদের মধ্যে ফ্রান্সের কয়েকটি স্কুল শিশুও রয়েছে। আহতদের যে ছবি গণমাধ্যমে এসেছে, তাদের রক্তাক্ত অবস্থায় সড়কে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। এই গোলাগুলিতে আরো অন্তত ৪০ জন আহত হয়েছেন।

টেমস নদীর ওপর অবস্থিত ওয়েস্টমিনস্টার ব্রিজের দক্ষিণ প্রান্ত এসে লেগেছে পার্লামেন্ট এলাকায়। আর অপর প্রান্তে ওয়েস্টমিনস্টার পিয়ার (নৌবিহার), লন্ডন আইসহ নানা দর্শনীয় স্থাপনা। এই ওয়েস্টমিনস্টার সেতুর ওপর দিয়ে পার্লামেন্টের দিকে আসার পথে সজোরে গাড়ি চালিয়ে পথচারীদের ওপর উঠিয়ে দেন হামলাকারী। এরপর গাড়িটি পার্লামেন্টের নিরাপত্তাবেষ্টনীতে গিয়ে আঘাত হানে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, হামলাকারী ৮ ইঞ্চি ছুরি নিয়ে পার্লামেন্ট ভবনে প্রবেশের চেষ্টা করেন। নিরাপত্তারক্ষীরা বাধা দিলে এক পুলিশ সদস্যের ওপর উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করেন হামলাকারী। তখন পুলিশ হামলাকারীকে গুলি করে নিবৃত করে। গুলিতে নিহত হন হামলাকারী। হামলাকারীর ছুরিতে আহত চার পুলিশ সদস্যের মধ্যে মারা যান একজন। আর গাড়িচাপায় নিহত হন তিনজন। আহত হন ৪০ জনের বেশি। এঁদের মধ্যে তিনজন ফরাসি নাগরিক বলে তাৎক্ষণিকভাবে জানায় ফরাসি কর্তৃপক্ষ।

ডেইলি মেইল-এর সাংবাদিক কুয়েনটিন লেটস তাঁর অফিস ভবন থেকে ঘটনাটি স্বচক্ষে দেখেছেন। তিনি বিবিসিকে বলেন, পার্লামেন্ট বেষ্টনীতে গাড়ি আছড়ে পড়ার শব্দ শুনে তিনি জানালা দিয়ে তাকিয়ে দেখেন, পার্লামেন্টের প্রবেশপথে তিনজন নিরাপত্তারক্ষী কালো পোশাক পরা এক লোককে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করছেন। ওই ব্যক্তি হাতে কিছু একটা ঘোরাচ্ছিলেন। পরক্ষণেই নিরাপত্তারক্ষীদের একজনকে মাটিয়ে লুটিয়ে পড়তে দেখেন তিনি। এরপর ওই ব্যক্তি দৌড়ে পার্লামেন্ট ভবনে প্রবেশের চেষ্টা করেন। তিনি বলেন, পরপর চারটি গুলির শব্দ শুনতে পেয়েছেন তিনি।

হাউস অব কমন্সের নেতা ডেভিড লিডিংটনকে উদ্ধৃত করে রয়টার্স জানায়, পুলিশের উপর হামলাকারী ওই ব্যক্তিকে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা গুলি করেছে। এতে ওই আত্মঘাতী ব্যক্তিটিও মৃত্যুবরণ করেন।

সন্দেহভাজন হামলাকারীর পরিচয়: পুলিশের গুলিতে নিহত ওই সন্দেহভাজন হামলা কারীর পরিচয় জানিয়েছে বিভিন্ন সূত্র। তার নাম আবু ইজ্জাদিন। তিনি যুক্তরাজ্যের বংশদ্ভূত ক্ল্যাপটন শহরের অধিবাসী। যুক্তরাজ্যভিত্তিক চ্যানেল ফোর ও দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্টের বরাত দিয়ে নিউইয়র্ক পোস্ট জানিয়েছে, সন্ত্রাসবাদ আইনে অন্যান্য ইসলামী জঙ্গিদের সঙ্গে আবু ইজ্জাদ্বীনেরও দুই বছর কারাদণ্ড হয়েছিল।

হামলার পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মের সঙ্গে ফোনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কথা বলেন বলে জানায় হোয়াইট হাউস। এ তথ্য জানিয়ে ট্রাম্পের প্রেস সেক্রেটারি শন স্পাইসার বলেন, ট্রাম্প ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন।

জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল নিন্দা জানিয়ে যুক্তরাজ্যের পাশে থাকার আশ্বাস দেন। তিনি বলেন, ‘যদিও এ হামলার প্রেক্ষাপট এখনো স্পষ্ট নয়, তবু আমি পুনরায় আশ্বস্ত করতে চাই যে জার্মানি এবং এ দেশের জনগণ সব ধরনের সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে দৃঢ়ভাবে যুক্তরাজ্যের পাশে দাঁড়াবে।’

পুলিশ বলছে, সব দিক মাথায় নিয়েই তারা ঘটনাটি তদন্ত করবে। তবে নতুন কোনো কারণ উদ্‌ঘাটনের আগ পর্যন্ত তারা এটিকে সন্ত্রাসী হামলা বলেই বিবেচনা করছে। এ ঘটনায় ধারণ করা ভিডিও ও ছবি পুলিশকে দিয়ে সহযোগিতা করার জন্য জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ১০ ডাউনিং স্ট্রিটের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে নিরাপদে তাঁর বাসভবনে গিয়ে পৌঁছান। রাতেই প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তাবিষয়ক সর্বোচ্চ বৈঠকের ডাক দেন। বিরোধীদলীয় নেতা জেরেমি করবিন ঘটনাটিকে অত্যন্ত গুরুতর বলে মন্তব্য করেছেন।

এদিকে স্কটিশ পার্লামেন্টে বুধবার বিকেলে স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতার দাবিতে উত্থাপিত বিলের ওপর গুরুত্বপূর্ণ ভোটাভুটির কথা ছিল। ওয়েস্টমিনস্টারে হামলার ঘটনায় তারাও পার্লামেন্ট মুলতবি ঘোষণা করে। স্কটল্যান্ডের মুখ্যমন্ত্রী নিকোলা স্টারজিওন হামলার শিকার মানুষের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে টুইট করেন।

সম্পাদনা: জাবেদ চৌধুরী


সর্বশেষ

আরও খবর

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব


আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন

আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন


চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ

চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ


ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার

ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার


তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন

তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন


অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?

অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?


যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার

যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার


আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০

আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০


সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি

সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি


চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার