Saturday, June 25th, 2016
ব্রিটেনকে ইইউ ছাড়তে তাগাদা
June 25th, 2016 at 9:53 pm
ব্রিটেনকে ইইউ ছাড়তে তাগাদা

লন্ডন: ব্রিটেন এক গণভোটে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেয়ার পর তা নিয়ে ইউরোপজুড়ে এখনও তোলপাড় চলছে।

ইইউর প্রতিষ্ঠাকালীন ছয়টি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা শনিবার এক জরুরি বৈঠকে বসেছিলেন তাদের করণীয় ঠিক করতে।

সেখান থেকে তারা ব্রিটেনকে ইইউ ছাড়ার লক্ষ্যে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণের তাগিদ দিয়েছেন।

অন্যদিকে স্কটল্যান্ডের মন্ত্রিপরিষদ আজ ব্রিটেন থেকে পৃথক হওয়ার লক্ষ্যে দ্বিতীয় এক গণভোটের আইনি প্রস্তুতি গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

গণভোটের দু’দিন পর জার্মানি, ফ্রান্স, ইটালি, বেলজিয়াম, লুক্সেমবার্গ ও নেদারল্যান্ডসের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা আজ বার্লিনে এক আলোচনায় বসেন।

জরুরি এই বৈঠক থেকে ব্রিটেনের প্রতি আহবান জানানো হয়েছে, ইইউর সাথে আলোচনা যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব সেরে ফেলার জন্যে।

বৈঠক শেষে জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রাঙ্ক ভাল্টার স্টাইনমায়ার বলেছেন, যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব এই প্রক্রিয়া শুরু করা উচিত। কারণ তাদের ইউরোপের ভবিষ্যতের দিকে মনোযোগ দিতে হবে।

তবে জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মের্কেলের কথা কিন্তু একটু ভিন্ন রকমের। আলাদা একটি অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘বেরিয়ে যাওয়ার জন্যে ব্রিটেনের তাড়াহুড়ো করার কিছু নেই। আবার এই প্রক্রিয়া চিরকালের জন্যে চলতে থাকবে সেটাও নয়।’

এক সংবাদ সম্মেলনে জার্মান চ্যান্সেলর বলেছেন, এর জন্যে বছরের পর বছর সময় নেয়া উচিত নয়- এটা সত্য। আবার ব্রিটেনের জন্যে অল্পকিছু সময় বেঁধে দেয়াও পক্ষে নন তিনি।

অন্যদিকে, ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ব্রিটিশ জনগণ তাদের রায় জানিয়ে দিয়েছে। সেকারণে এই বিষয়ে ‘ইঁদুর বিড়াল খেলার’ কোনো প্রয়োজন নেই।

এই পরিস্থিতিতেই ইইউর শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে আগামী বুধবার। সেখানে অবশ্য ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন উপস্থিত থাকবেন না।

তার আগে ক্যামেরন ইউনিয়নের ২৭টি সদস্য দেশের নেতাদের সাথে আলাদা করে আলোচনায় বসবেন।

স্কটল্যান্ডের মুখ্যমন্ত্রী নিকোলা স্টার্জন বলেছেন, ‘ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে স্কটল্যান্ডের অবস্থানকে রক্ষা করার জন্যে’ তিনি খুব শিগগিরই ব্রাসেলসের সাথে আলোচনা শুরু করার উদ্যোগ নেবেন।

স্কটল্যান্ডের বেশিরভাগ মানুষই, ৬২ শতাংশ ভোটার, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে থেকে যাওয়ার পক্ষে ভোট দিয়েছে।

নিকোলা স্টার্জন তার মন্ত্রিসভার সদস্যদের সাথে এক বৈঠকের পর বলেছেন, ইইউ ছেড়ে যাওয়ার জন্যে স্কটল্যান্ডকে জোর করা যাবে না।

এখন ব্রিটিশ জনগণের এই সিদ্ধান্তের পর স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতার প্রশ্নে দ্বিতীয় আরেকটি গণভোট অনুষ্ঠিত হতে পারে কিনা- সেটা নিয়ে কথাবার্তা হচ্ছে।

মিস স্টার্জন বলেছেন, এরকম একটি গণভোটের ব্যাপারে আইন তৈরির প্রয়োজনীয়তার বিষয়ে তার মস্ত্রিসভার সদস্যরা একমত হয়েছেন।

তিনি বলেছেন, দ্বিতীয় আরেকটি গণভোটের সম্ভাবনা খুবই উজ্জ্বল। সূত্র: বিবিসি

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/জাই

 


সর্বশেষ

আরও খবর

শান্তিতে নোবেল পেলেন দুই সাংবাদিক

শান্তিতে নোবেল পেলেন দুই সাংবাদিক


আফগানিস্তানে মসজিদে বোমা বিস্ফোরণে আহত শতাধিক

আফগানিস্তানে মসজিদে বোমা বিস্ফোরণে আহত শতাধিক


পাকিস্তানে ভূমিকম্পে কমপক্ষে ২০ জন নিহত

পাকিস্তানে ভূমিকম্পে কমপক্ষে ২০ জন নিহত


কাবুল বিমানবন্দরের কাছে আবার বিস্ফোরণ

কাবুল বিমানবন্দরের কাছে আবার বিস্ফোরণ


মেক্সিকোতে সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা

মেক্সিকোতে সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা


বিশ্বে একদিনে আরও ১০ হাজার মানুষের মৃত্যু

বিশ্বে একদিনে আরও ১০ হাজার মানুষের মৃত্যু


ভারতের উত্তর প্রদেশে ট্রাকের ধাক্কায় ১৮ বাসযাত্রী নিহত

ভারতের উত্তর প্রদেশে ট্রাকের ধাক্কায় ১৮ বাসযাত্রী নিহত


পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে আম পাঠালেন শেখ হাসিনা

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে আম পাঠালেন শেখ হাসিনা


ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবিতে ১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু

ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবিতে ১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু


ইরাকে করোনা হাসপাতালে আগুন; নিহত অর্ধশতাধিক

ইরাকে করোনা হাসপাতালে আগুন; নিহত অর্ধশতাধিক