Monday, June 13th, 2016
ব্লেম-গেম খেলছেন খালেদা
June 13th, 2016 at 5:02 pm
ব্লেম-গেম খেলছেন খালেদা

ঢাকা: সরকার দোষারোপের রাজনীতি করে না। বরং জঙ্গি-সন্ত্রাস-গুপ্তহত্যা দমনে বদ্ধপরিকর বলে সাফ জানিয়ে দিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তিনি বলেন, ‘সরকার অহেতুক দোষারোপ করে না। ব্লেম-গেম খেলে না। খালেদা জিয়াই নিজেদের অপকর্ম আড়াল করতে দোষারোপের রাজনীতি করছেন, ব্লেম-গেম খেলছেন।’

সোমবার বেলা ১২টায় তথ্য অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমি স্পষ্টভাবে বলতে চাই, এর সঙ্গে বিএনপি-জামায়াতের অনেকের জড়িত থাকার প্রমাণ সরকারের হাতে রয়েছে। তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতেই কাজ করে সরকার, অহেতুক দোষারোপ করে না।’

ইনু বলেন, ‘খালেদা জিয়া আগুনযুদ্ধে পরাজিত হবার পর অস্থিতিশীল করার নতুন কৌশল গুপ্ত হত্যা। জঙ্গিবাদকে রক্ষা করে তিনি আজ জঙ্গিবাদের পাহারাদার হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করেছেন। তার প্রতি আমার এখনো অনুরোধ, জঙ্গিবাদের সঙ্গ ত্যাগ করুন, জনগণের কাছে আত্মসমর্পণ করুন।’

তিনি বলেন, ‘গত বছরে ব্লগার-প্রকাশক-শিক্ষক-ধর্মগুরু-সমাজকর্মী-চাকরিজীবীদের ওপর জঙ্গি আক্রমণ ও গুপ্তহত্যার ঘটনায় পঞ্চাশ জনের অধিক ব্যক্তি আটক হয়েছে, দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে একটি মামলায় অপরাধীদের মৃত্যুদণ্ডসহ সাজা হয়েছে। এখানেই শেষ নয়, জঙ্গিবিরোধী বিশেষ অভিযানে পুলিশের হাতে গত দু’দিনে গ্রেফতার হয়েছেন ৫ হাজার ৩২৪ জন, যাদের মধ্যে ৮৫ জনকে জঙ্গি বলে চিহ্নিত করছে পুলিশ।’

কোনো গুপ্তহত্যাকারী রেহাই পাবে না উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘প্রত্যেক হত্যাকারীর জন্য একটি করে ফাঁসির দড়ি প্রস্তুত রয়েছে। গুপ্তহত্যাকারী ধরতে ও জনগণের নিরাপত্তা বিধানে সরকার ২৪ ঘন্টা জেগে রয়েছে অতন্দ্র প্রহরীর মতো। আর জেগে আছে বলেই আগুনযুদ্ধ, হেফাজতে ইসলামের অবরোধ, ৫ জানুয়ারির নির্বাচন পুর্বাপর সহিংসতা সাফল্যের সঙ্গে দমন করেছে সরকার।’

সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী ইনু বলেন, বাংলাদেশের সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য অন্য কোনো দেশ বা সরকারেরসহায়তা চাওয়ার প্রয়োজন নেই। দেশে চলমান চক্রান্তের অংশ হিসেবে সাধারণ নাগরিক ছাড়াও সংখ্যালঘুদের গায়ে হাত দেওয়া হচ্ছে।এটা সরকারকে বিব্রত করার জন্য করা হচ্ছে। তবে এর ফলে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট হয়নি।’

এর আগে রোববার ভারতের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা পিটিআইসহ একাধিক গণমাধ্যমের সংবাদে বলা হয়, বাংলাদেশের হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টানঐক্য পরিষদ দেশটির সংখ্যালঘুদের রক্ষার জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সহায়তা কামনা করেছেন। এ বিষয়ে মন্ত্রীর দৃষ্টিআকর্ষণ করা হলে তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘এ দেশে ২০ হাজারে বেশি মন্দির আছে। সেখানে সুন্দরভাবে ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান পালন করা হচ্ছে। সরকারেরঅবস্থানও নীতিগতভাবে অসাম্প্রদায়িক। সরকার ২৪ ঘণ্টা জেগে আছে। জেগে আছে বলেই বিএনপি-জামায়াতের ৯৩ দিনের আগুন-সন্ত্রাস বন্ধ করতে পেরেছে। হেফাজতের তাণ্ডব মোকাবিলা করতে পেরেছে। এখনকার গুপ্তহত্যা ধীরস্থিরভাবে বন্ধের চেষ্টা চলছে।সরকারের গায়ে হাত দিতে না পেতে তারা সাধারণ নাগরিকদের গায়ে হাত দিচ্ছে। এ জন্য সরকার দুঃখিত। কিন্তু কেউ পার পাবেনা।’                     

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এসজি/জাই


সর্বশেষ

আরও খবর

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বের হলেই জরিমানা

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বের হলেই জরিমানা


আসামে বন্দী রোহিঙ্গা কিশোরীকে কক্সবাজারে চায় পরিবার

আসামে বন্দী রোহিঙ্গা কিশোরীকে কক্সবাজারে চায় পরিবার


ছয় দিনে নির্যাতিত অর্ধশত সাংবাদিক: মামলা নেই, কাটেনি আতঙ্ক

ছয় দিনে নির্যাতিত অর্ধশত সাংবাদিক: মামলা নেই, কাটেনি আতঙ্ক


ঢাকা-দিল্লি ৫ সমঝোতা স্মারক সই

ঢাকা-দিল্লি ৫ সমঝোতা স্মারক সই


নাশকতা ঠেকাতে র‍্যাব-পুলিশের কঠোর অবস্থান

নাশকতা ঠেকাতে র‍্যাব-পুলিশের কঠোর অবস্থান


ঈদের পর স্কুল-কলেজ খোলার ইঙ্গিত শিক্ষামন্ত্রীর

ঈদের পর স্কুল-কলেজ খোলার ইঙ্গিত শিক্ষামন্ত্রীর


শবে বরাতের ছুটি ৩০ মার্চ

শবে বরাতের ছুটি ৩০ মার্চ


রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন


বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে ৬ সমঝোতা স্মারক সই

বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে ৬ সমঝোতা স্মারক সই


ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলাই আমাদের লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী

ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলাই আমাদের লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী