Monday, September 19th, 2016
ভালোবাসার আদিমতম বিজ্ঞাপন
September 19th, 2016 at 1:37 pm
ভালোবাসার আদিমতম বিজ্ঞাপন

বিধুনন জাঁ সিপাই: কবিতা যখন সম্মুখে হাজির নজির তখন কবিতা নিয়ে বাচালতা করাটা অনেকটা এরকম যে, আপনার সামনে ‘মিষ্টি’ আছে আর আপনি ‘মিষ্টি’ শব্দটা কাগজে লিখে সেই কাগজ চেটে বুঝতে চাইছেন মিষ্টি’র স্বাদ কেমন। একেই বলে শুষ্ক তাত্ত্বিকতা। এ বড্ড অপরাধ। নদীয়ার ভাবপরিমন্ডলে শ্রীচৈতন্য যখন আবির্ভাব করলেন, তখন ‘নব্য ন্যায়’দের জামানা চলছে। তিনি দেখলেন ‘নব্য নৈয়ায়িক’ দের চিন্তার কাঠামোবদ্ধতা আছে, যুক্তি স্পষ্ট এবং দার্শনিকতারও অভাব নাই। কিন্তু কি একটা যেন নাই নাই। অবশেষে শ্রীচৈতন্য খুঁজে পেলেন আদতে অভাবটা কি? রসের অভাব, ভাবের অভাব, প্রেমের অভাব। এই অভাব ঘুচাতে চৈতন্যপ্রভু নামলেন ‘রাধা ভাবে’ কৃষ্ণ ভজা’র কীর্তনে। বঙ্গে তাই রসের জোয়ার সর্বদা। কিন্তু সেই রসের রসিক জনার ভাব তাই বলে এ পথেই না। প্রত্যেকের আছে স্বতন্ত্র ইশতেহার, নিজস্ব মোকাম এবং মৌলিক ভাবের প্রকাশ।

কবিতা স্বয়ং কর্তাগিরি করবে কবিতার উপরে। অন্যকিছু নয়। এমনকি কবিও নন। কবি কেবল কবিতার বাহন। কবিতার যা বক্তব্য এবং কবিতার সাথে পাঠকর্তার কি সম্পর্ক হবে সে বিষয়ে কবিতা এবং পাঠিকা উভয়ে মিলেই সিদ্ধান্ত নিবে। সেখানে তৃতীয় সত্তার উপস্থিতি কিম্বা কোনপ্রকার হস্তক্ষেপ কবিতার বহুরৈখিকতার বিপক্ষে আমাদের দাঁড় করাবে। এবং কবিতার ক্রিয়াকাণ্ডের অস্থিমূল কেটে বাদ দিয়ে, কবিতাকে স্রেফ নামপদাশ্রয়ী জড় পদার্থ রুপে ড্রয়িং রুমের বুকশেলফে রূপান্তরের কর্মী হিসেবে আমাদের দায়ী করা হবে। সে বিষয়ে আমরা সতর্ক থাকতেই চাই।

কবিতার শরীল হয়ে থাকে কবি। কবিতাকে পরম যত্নে বহন করতে করতে, কবি এই নাগরিক জীবনের ছত্রে পল্লবে অভিজ্ঞ হয়, সংজ্ঞা দাঁড়ায়, নতুন ভাষা পায়। এখন কবির ভাষা আর পাঠিকার ভাষা এক হবে না। এটা সত্য। এক হবে না এই কারনে বলছি, আমাদের প্রত্যেকের পাঠরীতি আলাদা। এবং কবিতার জন্য একথা তো ধ্রুব। কেউই, অন্যকারো মত করে কিম্বা নিজের থেকে আলাদা অন্যকোনও ভাবে কবিতা পাঠ করে না। কবিতাকে আমরা প্রেমিকার আদলে পাঠ করি, একান্তে নিভৃতে নিজস্ব অন্দরের ভাবে এবং ভাষায়। কবিতার পাঠ করে নিতে হবে কবিতার ভাবে ভাষায় ভাবনায়। এ কথা তো স্বীকৃত, কবিতা এক স্তবকে যা প্রকাশ করে দার্শনিক তার জন্য একটা জীবনও ফুরিয়ে দিতে পারে। তাই স্থুল শব্দ কাঠামোবদ্ধতা দিয়ে নয়, বরং ‘ভাব দিয়ে ভাব নিলে পড়ে তবেই রাঙ্গা চরণ পায়’।

এত কথা বলার জন্য শেষ স্তবকে এসে শরমিন্দা হই পাঠিকার দরবারে। কিন্তু এই বাচালতার একান্ত হেতু এই যে সানাউল কবির সিদ্দিকী’র কবিতার ভাবরসে উদ্বেল হওয়ার অভিলাসেই…

আমি

.

আমি সেই প্রজাতি

যে নিজে গড়া ধ্বংসস্তুপের চূড়ায় বসে

করি নতুন শহরের পরিকল্পনা

সীমানা টানি বিষাক্ত জলের বুকে

বাতাসে ছড়াই শৈল্পিক কার্বন

সবশেষে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হই যে

নির্মল হাসি

ভালোবাসার আদিমতম বিজ্ঞাপন।

 

পথচলা

.

এভাবেই যেতে যেতে ফেলে আসি

অথবা ফেলতে ফেলতে যাই

রাস্তায় পায়ের ছাপ

বাতাসে ফুসফুস ধোয়া সিওটু

বিছানার চাদরে বীজ

প্রেমিকার স্তনে দাঁতের দাগ

মদের দোকানে জ্যাকেট

লাইব্রেরির সামনে ভালোবাসা

জীবনজোড়া নস্টালজিয়া

কারন সহস্র নক্ষত্রের আলো দিনে চাপা পড়ে

এক সূর্যের প্রজ্বলনে


 

রেসিস্ট্যান্স ১

.

দিনে রাশিফল, রাতে চটি

এইসব লেখকেরা যখন

অদৃশ্য টাকা লেনদেনকারী প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন পুরে দেয়

তাদের ফিকশনের স্ক্রিপ্টগুলোতে

তখন থোকা থোকা কথাগুলো আর কবিতা থাকে না

এর নাম হোক কালচারাল রেসিস্ট্যান্স।

একে কভার তাকে ট্রিবিউট দেয়া

অমুকের গেঞ্জী তমুকের টুপি ব্যাগ

পরিহিত সঙ্গীতজ্ঞরা জিঙ্গেল আর

আমি তুমি গান করে হাপিয়ে উঠলে

একটা তারছেড়া গিটারের

ডিস্টর্টেড ডিস্টিউন লীড সোলোকে

বলা হোক প্রতিরোধের গান।


 

একটি আত্মহননের আত্মকথন: সেলফ ক্রিটিসিজম

.

ঘর্মাক্ত শরীর টেনে এনে

ওভারব্রীজের নিচে এসে থামে বোকাচোদা।

সুবিশাল বৃক্ষের সুশীতল ছায়ায় দাঁড়িয়ে মোতে।

ব্লাডার খালি হয় ধীরে, সূর্য আজও ব্রা পড়েনি

ছায়ায় বাতাস বইলে গুয়ের গন্ধেও

জুড়ায় মন প্রাণ-ধন

তারপর গাঁজা খাওয়ার ধান্দা করতে ফোন টেপে

টাউটারি হাসি হাসতে হাসতে আগায় দক্ষিণে

অ্যার টাকা অর সাইকেল হ্যাগো কেঁচি

মামুর ছাবি খুব ক্রিয়েটিভ চর্চা করে;

সৃষ্টিশীলতা রোল করে ভরে

মাথা মুড়ে পুড়ে ছাইরঙা ফ্ল্যাশব্যাকে শেষ।

অন্যদিকে কোপের পর কোপ টিপের পর টিপ

আর ঠাপের পর ঠাপ খেয়ে যেতে থাকে প্রেমিকা।


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত


ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড


মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী

মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী


আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার

আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার


পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি

পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি


দুইদিনের বিক্ষোভের ডাক বিএনপির

দুইদিনের বিক্ষোভের ডাক বিএনপির


বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে

বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে


অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ

অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ


মাইন্ড এইড হাসপাতালে তালা, মালিক গ্রেপ্তার

মাইন্ড এইড হাসপাতালে তালা, মালিক গ্রেপ্তার


অবশেষে গ্রেফতার হলো এসআই আকবর

অবশেষে গ্রেফতার হলো এসআই আকবর