Thursday, June 25th, 2020
ভোটের ঈমান বনাম করোনার ঈমান
June 25th, 2020 at 3:56 pm
ভোটের ঈমান বনাম করোনার ঈমান

মাসকাওয়াথ আহসান:

আপনি যেমন বীজ বুনবেন; ঠিক তেমন ফসল পাবেন। গণতন্ত্রের পললে আপনি ঠিক যেমন বীজ বুনেছেন; আজ করোনার মহাবিপদে আপনি ঠিক সেই মৃত্যু ফসল পাচ্ছেন।

ভোটের সময় প্রার্থী এসে কিছু টাকা আর লুঙ্গি-শাড়ি বিতরণ করলে; আপনি সামান্য টাকা-লুঙ্গি-শাড়ির জন্য ভোটের ঈমান বেচে দেন। এখন কোন আক্কেলে আশা করছেন, আপনি ঘুষ নিয়ে গণতন্ত্রের সঙ্গে বেঈমানি করে যাকে জনপ্রতিনিধি করেছেন; সে আপনাকে করোনাকালে হাসপাতাল দেবে; খাবার জোগান দেবে আপনাকে।

ঠিক যে রকম দুই নাম্বারি চিন্তা করে আপনি টেকাটুকা-শাড়ি-লুঙ্গি ঘুষ নিয়া “বাটপার”-কে জনপ্রতিনিধি বানালেন; সেই বাটপার প্রার্থীই আপনার যোগ্য প্রতিনিধি। রতনে রতন চিনেছে;

আর করোনা তাই চিনেছে আপনাকে।

আপনি পার্টির মার্কার কলাগাছকে কলা ঘুষ নিয়ে ভোট দেন, নির্বাচনে জামানত বাজেয়াপ্ত হয় সৎ প্রার্থীর। কারণ সৎ প্রার্থীর মাথার ওপর আওয়ামী লীগ বা বিএনপি মাজারের লালসালু নাই। বছরের পর বছর বেশ একটা ঘুষের বিনিময়ে; পেশীশক্তি ভক্তি করে “ভোট” দিয়ে আসছেন ঠগীকে; সেই ঠগীরা আপনার জন্য বরাদ্দ টেকাটুকা রপ্তানী করে লন্ডনে মাজার খুলেছে, নিউইয়র্কে কাছিম নগর কিনেছে; তাদের ছেলেমেয়ে নাতি নাতনি করোনাকালে উন্নত হাসপাতালে যায়; আর আপনি হাসপাতালের সামনে চিত হয়ে মরে পড়ে থাকেন।

গণতন্ত্রকে আপনি যখন আলকাপ নাচের বাইজি ভেবে ভোট ছুঁড়ে দেবেন শরীরময় শিহরণে; তখন করোনার শিহরণও আপনার প্রাপ্য। আপনার মনে আছে কী সেই বৃদ্ধ লোকটাকে যে মুক্তিযোদ্ধা; শিক্ষকতা থেকে অবসর নেবার পর; প্রতিটি ভোটে প্রার্থী হন। তার কোন কর্মী নেই; তার গাড়ি নেই, ভোটের পোস্টার লাগানোর লোক নেই। সাদা পাজামা পাঞ্জাবি আর ঘোলা কাঁচের চশমা পরা লোকটাকে ভোটের আগে চার রাস্তার মোড়ে মাইক নিয়ে বক্তৃতা দিতে দেখে; আপনি গণতন্ত্রের সব বুইঝা ফালাইছেন এইরকম বিজ্ঞের হাসি দিয়ে বাটপার প্রার্থীর কাছে আগে-ভাগেই ভোটের ঈমান বেচে; ঐ সৎ প্রার্থীকে দুয়ো দিয়ে বলেন; “পাগলারে পাগলা।”

সৎ মানুষকে আপনার পাগল মনে হয়। আপনার চাই ঋণখেলাপী বাটপার প্রার্থী; আপনার চোখে সে বুদ্ধিমান; কারণ সে চুরিদারির টাকা দিয়ে বিরাট বড় বড় গাড়ি নিয়ে ভোটের শো’ডাউনে আসে। তিনিই তো “আসল পুরুষ”। আপনিই একটি বাটপার লোককে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন, আপনাকে তিলে তিলে হত্যা করতে। এ মৃত্যুকে আপনি নিজেই আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।

রাজনীতির মহান পুরুষ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর “মুজিব কোট” পরে বাটপারগুলো হেলিকপ্টারে উড়ে এসে দেশপ্রেমের বুলি দিয়ে ভুলায়ে ভালায়ে আপনাকে ভোটের ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে আপনার সর্বনাশ করে। আপনি যখন এই সর্বনাশ এড়াতে পারেন না; তখন তা উপভোগ করেন। “অমুক ভাই”-এর সঙ্গে সেলফি তুলে ফেসবুকে টাঙ্গাইয়া রাখেন। এখন করোনাকালে অমুক ভাই চার্টার্ড বিমানে করে ক্যানাডার সেকেন্ড হোমে চলে যায়; কিংবা আপনাকে লুন্ঠন করা অর্থে নির্মিত প্রাসাদে, বেহুলার বাসর ঘরে লুকাইয়া থাকে।

আর আপনি এখন করোনা আক্রান্ত হয়ে টেস্টের অভাবে পাটক্ষেতে উল্টায়ে পড়ে মরে যান। আপনার ফেসবুকে “অমুক ভাই” তুমি কী কেবলি ছবি-শুধু পটে আঁকা হয়ে রয়ে যায়।

বিশ্বব্যাংক ও আই এম এফ একথা বার বার বলে; ঘুষ-দুর্নীতি আর রাজনীতির দুবৃত্তায়ন না থাকলে; বাংলাদেশের পরিশ্রমী মানুষ যে হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করে; তাতে কারো কোন ঋণ না নিয়ে আত্মনির্ভর উন্নয়ন কৌশল অর্জন করতে পারে বাংলাদেশ।

কিন্তু আপনার মতো নিজের পায়ে নিজে কুড়াল মারা ভোটার দেশটাকে নিজের পায়ে দাঁড়াতে দিলেন কোথায়! ভোট দিয়ে নিয়ে আসেন “এদলের চোর ওদলের চোরের চেয়ে কম চোর” এরকম রূপের রাণী চোরের রাজাদের।

আপনার বুদ্ধি বিবেচনা কেমন হলে একাত্তরের খুনীকে আলেমের লেবাসে দেখে ভক্তিতে গদ গদ হয়ে জালেম নির্বাচিত করেন। এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী; বাপে সৎ নেতা ছিলো; সেই আশার জিলাপি খেয়ে; তাকে বার বার ভোট দিলে; আপনারই কিশোর সন্তানের লাশ পড়ে থাকে শীতলক্ষ্যায়।

জিয়াউর রহমান আর্থিকভাবে সৎ ছিলেন; এই ভরসায় আপনি যে লালু-ভুল-দুলুকে ভোট দেন; তাদেরই ধর্ম-সৈনিক আপনার ভাইয়ের লাশ বাগমারার গাছে টাঙ্গিয়ে রাখে।

বাটপারকে ভোটের ঈমান বেচে আপনি সন্তান হারিয়েছেন; ভাই হারিয়েছেন; মেয়েটিকে উন্নয়নের পাপিয়া আসরে পাপের মালা পরানো হয়েছে; আপনার আর করোনাকে ভয় কেন?

করোনাভাইরাসকে বলুন, উনিই পারে; উনিই পারবে; উনি করোনার চেয়ে শক্তিশালী।


মাসকাওয়াথ আহসান

সর্বশেষ

আরও খবর

রাজনৈতিক কড়চায় শফী’র মৃত্যু!

রাজনৈতিক কড়চায় শফী’র মৃত্যু!


গণমাধ্যম, স্বাধীনতা এবং মিডিয়া মালিকানা

গণমাধ্যম, স্বাধীনতা এবং মিডিয়া মালিকানা


ওসি প্রদীপের বিচার ! রাষ্ট্রের দায়!!

ওসি প্রদীপের বিচার ! রাষ্ট্রের দায়!!


সীমান্ত জটিলতায় চীন-ভারত  বন্ধুত্ব

সীমান্ত জটিলতায় চীন-ভারত বন্ধুত্ব


প্রসঙ্গ:করোনা কালে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের অমানবিক আচরণ

প্রসঙ্গ:করোনা কালে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের অমানবিক আচরণ


কালের হিরো খন্দকার খোরশেদ

কালের হিরো খন্দকার খোরশেদ


করোনাকালের খোলা চিঠি

করোনাকালের খোলা চিঠি


সিগেরেট স্মৃতি!

সিগেরেট স্মৃতি!


পাঠকের-জনতার ‘মিটেকড়া-ভীমরুল’ এবং একটি পর্ট্রেট

পাঠকের-জনতার ‘মিটেকড়া-ভীমরুল’ এবং একটি পর্ট্রেট


দাদন ব্যাবসায়ী ও মধ্যস্বত্ত্বভোগী ঠেকাও

দাদন ব্যাবসায়ী ও মধ্যস্বত্ত্বভোগী ঠেকাও