Friday, July 1st, 2022
মংলা-ঘষিয়াখালী আন্তর্জাতিক নৌ চ্যানেল উদ্বোধন
October 27th, 2016 at 12:18 pm
মংলা-ঘষিয়াখালী আন্তর্জাতিক নৌ চ্যানেল উদ্বোধন

ঢাকা:  মংলা-ঘষিয়াখালী আন্তর্জাতিক নৌ চ্যানেল উদ্বোধন করেছেন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসঙ্গে তিনি সরকারের নিজস্ব অর্থায়ানে দেশের বেসরকারি শিপইয়ার্ডে নির্মিত বিআইডব্লিউটিএ’র ১১টি ড্রেজার ও মংলা অত্যাধুনিক সাইলোর (খাদ্য গুদাম) আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছেন।

বৃহস্পতিবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এসব উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সের অপরপ্রান্ত বাগেরহাটের জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব আশোক মাধব রায়, বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান কমোডর এম মোজাম্মেল হকসহ নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় ও খাদ্য মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে মংলা-ঘষিয়াখালী আন্তর্জাতিক নৌ চ্যানেলটি উন্মুক্ত হওয়াতে সুন্দরবনের ভেতর দিয়ে সব ধরনের অভ্যন্তরীণ বাণিজ্যিক জাহাজ চলাচল বন্ধ হয়ে যাবে। এতে দূষণমুক্ত থাকবে ম্যানগ্রোভ বনটি। এছাড়া অভ্যন্তরীণ বাণিজ্যিক জাহাজগুলোকে ৮৬ কিলোমিটার দূরত্ব কম ঘুরতে হবে।

নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় জানায়, মংলা-ঘষিয়াখালী নৌ চ্যানেলের ড্রেজিং কাজ শুরু হয় ২০১৪ সালের জুন মাসে। ভরাট হয়ে যাওয়া ২৬ কিলোমিটার নৌপথটি ১৩ থেকে ১৪ গভীরতা ও ২০০ থেকে ৩০০ ফুট প্রসস্থতায় খনন করা হয়েছে। বিআইডব্লিউটিএ’র ১২টি ও বেসরকারি ৬টিসহ সর্বমোট ১৮টি ড্রেজার দিয়ে ১৮১ দশমিক ৮০ লাখ ঘনমিটার পলিমাটি ড্রেজিং করা হয়েছে। বর্তমানে ড্রেজিংকৃত অংশে ফের পলি জমে ভরাটের কারণে বিআইডব্লিউটিএ’র ৩টি ও বেসরকারি ৫টিসহ ৮টি ড্রেজার দিয়ে সংরক্ষণ খননের আওতায় আরও ৬২ দশমিক ১২ লাখ ঘনমিটার পলিমাটি পুনখনন করা হয়েছে।

বর্তমানেও ড্রেজিংকৃত অংশে ৮টি ড্রেজার দিয়ে পুনখনন কাজ চলমান রয়েছে। গত বছরের মে মাস থেকে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় পরীক্ষামূলকভাবে নৌচলাচলের জন্য চ্যানেলটি খুলে দেয়।

গ্রন্থনা- ময়ূখ ইসলাম, সম্পাদনা: মাহতাব শফি


সর্বশেষ

আরও খবর

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব


আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন

আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন


চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ

চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ


ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার

ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার


তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন

তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন


অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?

অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?


যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার

যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার


আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০

আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০


সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি

সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি


চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার