Wednesday, December 21st, 2016
মনে পড়ে তনুকে?
December 21st, 2016 at 8:12 am
মনে পড়ে তনুকে?

প্রীতম সাহা সুদীপ, ঢাকা: কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের সেই হতভাগ্য ছাত্রীর কথা মনে আছে? যার লাশ পাওয়া গিয়েছিলো কুমিল্লা সেনানিবাস এলাকায়। হ্যাঁ, ঠিক ধরেছেন, বলছি সেই তনুর কথাই। ঘটনাবহুল ২০১৬ সালের অন্যতম আলোচিত ঘটনা ছিল সোহাগী জাহান তনু হত্যাকাণ্ড।

তনু নামটি কয়েক মাস আগেও আমাদের কাছে অজানা, অপরিচিত ছিলো, কিন্তু এখন সেই নামটি জানেন না, এমন মানুষের সংখ্যা খুবই কম। স্বাধীন দেশে এমনটি বুঝি আর কখনোই হয়নি লালমাই-ময়নামতির জনপদ কুমিল্লায়। ক্যান্টনমেন্টের মতো সংরক্ষিত এলাকায় একটি মেয়ের ধর্ষিত ও খুন হওয়ার ঘটনা মেনে নিতে পারেনি দেশবাসী। তাই তনু হত্যার বিচারের দাবিতে বছরজুড়ে উত্তাল ছিল কুমিল্লাসহ দেশের নানা অঞ্চল।

কুমিল্লা সেনানিবাসের ভেতরের একটি জঙ্গল থেকে ২০ মার্চ রাতে কলেজ ছাত্রী তনুর লাশ উদ্ধার করা হয়। পরদিন তনুর বাবা কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের অফিস সহায়ক ইয়ার হোসেন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে কোতয়ালী মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

ওই ঘটনার দীর্ঘ নয় মাস পেরিয়ে গেলেও আজ পর্যন্ত ঘটনার রহস্য উদঘাটন, ঘাতকদের শনাক্ত করা কিংবা মামলার তদন্তে দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতি হয়নি। থানা ও গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের পর মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব এখন অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডির কাঁধে। তবে দফায় দফায় তদন্ত কর্মকর্তা পরিবর্তন হলেও ফলাফল কার্যত শূন্য।

ঘটনার নয় দিন পর পুলিশ ও জেলা ডিবির হাত ঘুরে মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব পায় সিআইডি-কুমিল্লা। সিআইডি তনুর জামা-কাপড় থেকে নেয়া নমুনার ডিএনএ পরীক্ষা করে ৩ জনের শুক্রাণু পাওয়ার কথাও গণমাধ্যমকে জানায়। শুধু তাই নয় তনুকে হত্যার আগে ধর্ষণ করা হয়েছিল এবং প্রথম ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনটি সঠিক ছিলো না বলেও তারা নিশ্চিত করে।

তদন্ত সংশ্লিষ্টরা জানান, আদালতের আদেশে সিআইডি ডিএনএ প্রতিবেদনটি দ্বিতীয় ময়নাতদন্তকারী মেডিকেল বোর্ডকে সরবরাহ করলেও ৩ সদস্যের ওই মেডিকেল বোর্ড তনুর মৃত্যুর সঠিক কারণ স্পষ্ট করতে পারেননি। এদিকে এ মামলার দুইজন তদারক কর্মকর্তা সিআইডি-কুমিল্লার বিশেষ পুলিশ সুপার ড. নাজমুল করিম খান ও শাহরিয়ার রহমানের বদলির পর বর্তমানে মামলাটির তদন্ত তদারকি করছেন সিআইডি-কুমিল্লার পুলিশ সুপার ব্যারিস্টার মোশাররফ হোছাইন। তিনি বলেন, “মামলার তদন্ত সঠিকভাবেই এগুচ্ছে। চাঞ্চল্যকর এই হত্যা মামলাটির তদন্ত চলছে অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে। আশা করছি স্বল্প সময়ের মধ্যেই আমরা আলোর মুখ দেখতে পাবো।”

যদিও তনু হত্যার তদন্তে ভালো অগ্রগতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার আবদুল কাহার আকন্দ। তিনি নিউজনেক্সটবিডি ডটকম’কে বলেন, ‘আমরা চুপচাপ কাজ করি। মিডিয়াতে কম আসি। তনু হত্যার তদন্তে ভালো অগ্রগতি হয়েছে। শিগগিরই পরিপূর্ণ ফল পাওয়া যাবে বলে আশা করছি। পরিপূর্ণ ফল হাতে পেলেই মিডিয়াকে বিস্তারিত জানানো হবে।’

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও সিআইডি-কুমিল্লার সহকারী পুলিশ সুপার জালাল উদ্দীন নিউজনেক্সটবিডি ডটকম’কে বলেন, ‘মামলাটির তদন্ত নিজস্ব গতিতেই চলছে, তাই তদন্তাধীন বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না।’

এদিকে সেনানিবাসের মতো একটি জায়গায় ঘটে যাওয়া আলোচিত এ হত্যাকাণ্ডের নয় মাস পেরিয়ে গেলেও ঘটনার রহস্য উদঘাটন করতে না পারায় তনুর পরিবার ও স্থানীয়রা হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

তনু হত্যার বিচার দাবি করে তার মা আনোয়ারা বেগম নিউজনেক্সটবিডি’ডটকমকে বলেন, ‘দীর্ঘদিন কেটে গেল, অথচ খুনিদের কেউ এখন পর্যন্ত ধরা পড়ল না। এ পর্যন্ত ঘাতকদের ডিএনএ মেলানোর কাজটিও শুরু করতে পারেনি। আমরা চাই তনুর প্রকৃত ঘাতকরা ধরা পড়ুক, শাস্তি পাক।’


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় মৃত ব্যক্তিকে যেকোনো কবরস্থানে দাফন করা যাবে: স্বাস্থ্য অধিদফতর

করোনায় মৃত ব্যক্তিকে যেকোনো কবরস্থানে দাফন করা যাবে: স্বাস্থ্য অধিদফতর


সচেতন না হলে সরকার আবারও কঠোর হবে: কাদের

সচেতন না হলে সরকার আবারও কঠোর হবে: কাদের


করোনায় আরও ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৯৫

করোনায় আরও ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৯৫


পুরোনো চেহারায় ফিরছে ঢাকা

পুরোনো চেহারায় ফিরছে ঢাকা


দিল্লির সীমান্ত সাত দিনের জন্য বন্ধ: নয়াদিল্লির মুখ্যমন্ত্রী

দিল্লির সীমান্ত সাত দিনের জন্য বন্ধ: নয়াদিল্লির মুখ্যমন্ত্রী


করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৩৮১

করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৩৮১


‘করোনা মোকাবেলায় দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে’

‘করোনা মোকাবেলায় দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে’


এসএসসির ফল প্রকাশ, পাশের হার ৮২.৮৭%

এসএসসির ফল প্রকাশ, পাশের হার ৮২.৮৭%


বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি

বাস ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি


এই পরিস্থিতিতে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না: শিক্ষামন্ত্রী

এই পরিস্থিতিতে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না: শিক্ষামন্ত্রী